তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৮ নভেম্বর ২০২১

তথ্যবিবরণী ২৮ নভেম্বর ২০২১

তথ্যবিবরণী                                                                                                          নম্বর: ৫৬০৭

 

ডিজিটাল ডিভাইস ও ডিজিটাল অর্থনীতি ছাড়া চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলা সম্ভব হবে না

                                                                         -- তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

          তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ডিজিটাল রূপান্তরের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেছেন, ডিজিটাল ডিভাইস ও ডিজিটাল অর্থনীতি ছাড়া চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলা সম্ভব হবে না। 

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেলে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট সামিট উপলক্ষে বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভলপমেন্ট অথরিটি এর উদ্যোগে বাংলাদেশের বিনিয়োগ সুবিধা কাজে লাগিয়ে দেশি- বিদেশি  বিনিয়োগকারীদের আকর্ষণে “লিভারেজিং ফোর্থ আইআর” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

          পলক  চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে প্রস্তুত হচ্ছে বাংলাদেশ উল্লেখ করে এ বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন এবং  পদক্ষেপ ও পরিকল্পনা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, প্রযুক্তির কল্যাণে অর্থনীতি ও সমাজে জীবনযাত্রার নাটকীয় পরিবর্তনের মাধ্যমে নাগরিকরা এখন আধুনিক জীবনের  সুবিধা ভোগ করছে। তিনি আরো বলেন, বৈশ্বিক জ্ঞানভিত্তিক শিল্পে নিজেদের অবস্থান সুসংহত করতে ইন্টারনেট অভ্‌ থিংস ব্যবহার করে  তথ্য-উপাত্তনির্ভর স্মার্ট সল্যুশন তৈরি করতে হবে। 

 

          প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টার নির্দেশনা উদ্ধৃত করে পলক বলেন, জ্ঞানভিত্তিক হাইটেক সেবা উদ্ভাবনের মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষ কেবল চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের অংশীদারই হবে না; নেতৃত্বের আসনে অধিষ্ঠিত হবে। 

 

          অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশগ্ৰহণ করেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ, বেসিসের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ আলমাস কবির, ই-ক্যাবের প্রেসিডেন্ট শমী কায়সার, বিকাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদের, স্যামসাং আর এন্ড ডি এর হেড অভ্‌ সাপোর্ট স্টাফ গাজী মুনির উদ্দিন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন গ্ৰামীন ফোনের সিইও ইয়াসির আজমাম।

 

#

 

শহিদুল/পাশা/সঞ্জীব/রেজাউল/২০২১/২২১০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                         নম্বর: ৫৬০৬

অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমি মন্ত্রণালয় অর্পিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে

                                                                   ---ভূমিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর):

 দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমি মন্ত্রণালয় আন্তরিকতার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে মন্তব্য করে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, বিনিয়োগ ও উন্নয়নে ভূমি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। তিনি আরও বলেন, ভূমিমন্ত্রী হিসেবে আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি যে আমি আমার দায়িত্ব অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে পালন করার চেষ্টা করছি।

আজ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আওতাভুক্ত বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) কর্তৃক ঢাকার একটি হোটেলে দুইদিনব্যাপী আয়োজিত বাংলাদেশ বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন ২০২১-এ অর্থনৈতিক অঞ্চল সম্পর্কিত সেশনে সভাপতির বক্তব্যে উপস্থিত দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশে ভূমিমন্ত্রী এই মন্তব্য করেন। 

উল্লেখ্য, আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি দেশে বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে দুইদিনব্যাপী বিনিয়োগ সম্মেলন উদ্বোধন করেন।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী প্রত্যক্ষ বৈদেশিক বিনিয়োগকে অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্যে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে আরও বলেন, বাংলাদেশ সরকার এই কারণে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের পর্যাপ্ত প্রণোদনা দিচ্ছে। ভূমিমন্ত্রী উপস্থিত বিদেশি বিনিয়োগকারী ও প্রবাসী বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের জানান, আইএমএফ-এর উপাত্ত অনুযায়ী করোনা মহামারিকালীন বিশ্বের শীর্ষ পাঁচটি সহনশীল অর্থনীতির দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি। তিনি তাঁর বক্তব্যে তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার উদাত্ত আহ্বান জানান।

সেশনটি সঞ্চালনা করেন ভারত-বাংলাদেশ চেম্বার অভ্ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (আইবিসিসিআই) সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ। সেশনে কিনোট (keynote) উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা)’র নির্বাহী সদস্য (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মোহাম্মদ এরফান শরীফ।

অনুষ্ঠানে আলোচকবৃন্দ বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোকে সম্পূর্ণ প্যাকেজ হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলের মূল আকর্ষণ সম্পূর্ণ সেবাযুক্ত শিল্প স্থাপনে উপযুক্ত ভূমি, পানি, বিদ্যুৎ ও গ্যাস সরবরাহের জন্য প্রস্তুত অবকাঠামো এবং বিস্তৃত আকারে প্রদত্ত প্রতিযোগিতামূলক আকর্ষণীয় প্রণোদনা।

উল্লেখ্য, অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের প্রণোদনা হিসেবে ১০ বছরের কর অবকাশ ও লভ্যাংশ প্রত্যাবাসনের সুবিধা এবং ব্যবসা পরিচালনার জন্য ১২৫টি পরিষেবার ওয়ান স্টপ সার্ভিস (একই ছাদের নিচে সকল সেবা) সেন্টারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সারা দেশে ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে।

সেশনে প্যানেল আলোচক হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ (বেপজা)’র নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আবুল কালাম মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান, জাইকা বাংলাদেশ অফিসের প্রধান প্রতিনিধি ইউহো হায়াকাওয়া, বাংলাদেশ প্রাইভেট ইকোনমিক জোন ইনভেস্টর অ্যাসোসিয়েশন-এর সভাপতি এএসএম মাইনুদ্দিন মোনেম এবং জাপানের সুমিটোমো কর্পোরেশন এশিয়া ও ওশেনিয়া অঞ্চলে বাংলাদেশ অফিসের মহাব্যবস্থাপক শিনিচি নাগাটা।

#

নাহিয়ান/পাশা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/১৯১৭ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৫৬০৫

 

বিএনপি’র ফন্দি-ফিকির আমরা বুঝি

               -- তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

          তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘বিএনপি বেগম খালেদা জিয়াকে অসুস্থতার অজুহাত দেখিয়ে বিদেশে পাঠিয়ে দিতে চায় যেন সেখান থেকে তিনি বেআইনিভাবে রাজনীতিটা করতে পারেন, যেটি তারেক রহমান করছে। আমরা আপনাদের ফন্দি-ফিকির বুঝি।’

          ‘বিএনপি’র দাবি খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যগত নয়, রাজনৈতিক; কিন্তু বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য সরকার বদ্ধপরিকর’ বলেন মন্ত্রী।

          আজ রাজধানীর মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে ঢাকা উত্তর মহানগর আওয়ামী লীগের দারুস সালাম থানার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের ১০ ইউনিটের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ সকল কথা বলেন।

          ‘বিএনপিনেতারা খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে নানা কথা বলে, অথচ গত একবছর ধরে বেগম জিয়া তাদের তত্ত্বাবধানে, বেগম জিয়ার পছন্দের এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান বলেন, ‘সেকারণে তার কিছু হলে সেজন্য তারাই দায়ী। বিএনপি নানা কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চায়, জনগণ বিভ্রান্ত হবে না।’

          ড. হাছান বলেন, ‘এখন মনে হচ্ছে বিএনপি’র রাজনীতিটা আর জনগণের জন্য নয়, একমাত্র খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যরক্ষার জন্য। গত ১৫-২০ দিন ধরে বিএনপি নেতাদের বক্তব্য যদি শোনেন তাহলে দেখতে পাবেন, অন্য কোনো বক্তব্য নেই, খালেদা জিয়ার কী হয়েছে সেটিই তারা প্রতিনিয়ত বলছেন। গতকাল টেলিভিশনের পর্দায় দেখলাম মির্জা ফখরুল সাহেব বলছেন, খালেদা জিয়ার পেটে কী কী সমস্যা হয়েছে। এখন মির্জা ফখরুল, রিজভী, গয়েশ্বর সাহেবও বড় ডাক্তার হয়ে কথা বলা শুরু করেছেন। আজ মির্জা ফখরুল সাহেব বলেছেন যে, বেগম খালেদা জিয়াকে না কি আইনের ধারা বলে বিদেশে পাঠানো যাবে। এখন মনে হচ্ছে ফখরুল সাহেব ডাক্তার নয় ভেতরে ভেতরে ব্যারিস্টারও হয়েছেন, আইনেরও ব্যাখ্যা দেয়া শুরু করেছেন।’

          আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান এসময় দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘কেউ যাতে ষড়যন্ত্র করতে না পারে সেজন্য সবাইকে চোখ-কান খোলা রেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। সুযোগ সন্ধানীদের দলের মধ্যে দরকার নেই। যারা পিঠ বাঁচানোর জন্য আওয়ামী লীগ করতে চায়, যারা জায়গা দখল করার জন্য কিংবা দখল করা জায়গা রক্ষার জন্য বা সম্পদ অর্জনের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ করতে চায় তাদের দরকার নেই। যারা আমাদের আদর্শ, উদ্দেশ্য, নীতিতে বিশ্বাস করে আওয়ামী লীগ করতে চায়, তাদেরকেই আওয়ামী লীগে দরকার আছে।’

চলমান পাতা -২

         

 

 

 

 

 

- ২ –

 

          বক্তব্য শেষে সাংবাদিকরা ‘ছাত্রদের হাফভাড়া নিয়ে বাস মালিকরা বিশেষ প্রণোদনা চাচ্ছেন’ এবিষয়ে প্রশ্ন করলে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমি যখন ছাত্র ছিলাম তখন আমি নিজেও বাসে হাফ ভাড়া দিয়ে চলেছি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবস্থায় শহর থেকে বাসে যেতাম হাফ ভাড়া দিয়ে। তখন সরকার বাস মালিকদের কোনো প্রণোদনা দিতো না। বাস মালিকরাও প্রণোদনা দাবি করে নাই। তারা বিনা প্রণোদনাতেই ছাত্রদেরকে হাফ ভাড়া দেয়ার সুযোগ করে দিয়েছে। আজকে কেন প্রণোদনা লাগবে সেটি আমার ব্যক্তিগত জিজ্ঞাসা। একটি বাসে ৪০ থেকে ৫০জন যাত্রী থাকে সেখানে দু-তিন-পাঁচজন  ছাত্র থাকে এবং এতে বাস মালিকদের কী অসুবিধা হবে, সেটি আমার ব্যক্তিগত প্রশ্ন।’

          মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ছাত্রদের প্রতি সহানুভূতিশীল, সরকার সহানুভূতিশীল এবং সেই কারণে প্রধানমন্ত্রী সরকারি সংস্থা বিআরটিসি’র ভাড়া হাফ করে দিয়েছেন। যারা ছাত্র তারা আমাদের সন্তান, তাদেরও সন্তান। আমি আশা করবো, পরিবহনের মালিকরাও তাদের সন্তানদের কথা চিন্তা করে বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে নিয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।’

          দারুস সালাম থানার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মিয়া মোহাম্মদ লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে থানার সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ফরিদুল ইসলাম হ্যাপীর সঞ্চালনায় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান সম্মেলন উদ্বোধন করেন। আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমীন বিশেষ অতিথি, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি প্রধান বক্তা এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান ও এবিএম মাজহারুল আনাম, কার্যনির্বাহী সদস্য আবুল হাসনাত এবং ১০ নং ওয়ার্ডে সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুল আনসারী সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

#

 

আকরাম/পাশা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/১৯০০ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর: ৫৬০৪

পুষ্টিকর খাবার শ্রমিকের কর্মক্ষমতায়  ইতিবাচক প্রভাব ফেলে

                                                 ---শ্রম প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর):

          শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, দীর্ঘমেয়াদি অপুষ্টি শ্রমিকের কর্মক্ষমতায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করে। অন্যদিকে পুষ্টিকর খাবার জনস্বাস্থ্যের তথা শারীরিক বৃদ্ধি, মেধা বিকাশ ও যথাযথ কর্মক্ষমতার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

 

          আজ রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইম্প্রুভড নিউট্রিশন- GAIN  এর সহযোগিতায় কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর আয়োজিত ‘কর্মক্ষেত্র পুষ্টি কার্যক্রম : শিক্ষণ বিনিময়’ সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 

 

          শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার শুধু শ্রমিক নয় সকল জনগণের অপুষ্টির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায়
দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। বাংলাদেশের মানুষের পুষ্টির অবস্থার উন্নতির জন্য সরকার পুষ্টি নীতি-২০১৫ প্রণয়ন করেছে এবং দ্বিতীয় জাতীয় পুষ্টি কর্মপরিকল্পনা (২০১৬-২০২৫) গ্রহণ করেছে।

 

          প্রতিমন্ত্রী মালিকগণ কারখানায় শ্রমিকদের যে নাস্তা দেয়া হয় সেগুলো যেন পুষ্টিকর হয় বিজিএমইএ এবং বিকেএমইএ এর নেতৃবৃন্দকে সে অনুরোধ করেন। সকলে মিলে সতের কোটি মানুষকে পুষ্টির বেড়াজালে আটকাতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে মঙ্গাকে বিদায় করেছি, খাদ্য ঘাটতিকে দূর করেছি, মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছি। সরকারি নীতি, প্রশাসনিক দক্ষতা ও রাজনৈতিক অঙ্গীকারের মাধ্যমে দেশের শুধু শ্রমজীবী মানুষই নয় সকল নাগরিকের অপুষ্টিজনিত ঘাটতি দূরীকরণের লক্ষ্য অর্জনে সক্ষম হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  

 

          বাংলাদেশে প্রায় ৮ শতাংশ জিডিপি হ্রাস পায় শুধু আয়রনের অভাবজনিত এনেমিয়ার কারণে। সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে একটি পুষ্টি কালচার তৈরির আহ্বান জানানো হয়।

 

          সভাপতির বক্তৃতায় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব এহছানে এলাহী বলেন, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে স্বাস্থ্যই সম্পদ। আগামীতে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মাধ্যমে পুষ্টি বিষয়ে শ্রমিকদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধিতে আরো বেশি প্রকল্প গ্রহণ করা হবে। 

 

          সেমিনারে কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর এর মহাপরিদর্শক মোঃ নাসির উদ্দিন আহমেদ, বিজিএমইএ এর সম্মানিত সভাপতি ফারুক হাসান, বিকেএমইএ সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মনসুর আহমেদ, আইএলও এর কান্ট্রি ডিরেক্টর তোমো পুতিআইনেন, ন্যাশনাল নিউট্রেশন সার্ভিস এর লাইন ডিরেক্টর ডা. এস এম মোস্তাফিজুর রহমান, কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর এর যুগ্ম-মহাপরিদর্শক
ডা. মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান এবং গেইন এর কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা. রুদাবা খন্দকার বক্তৃতা করেন।

 

#

আকতারুল/পাশা/মোশারফ/আব্বাস/২০২১/১৯০০ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৫৬০৩

 

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার এবং যশোর-খুলনা মহাসড়ক ৪ লেনে উন্নীতকরণে সৌদি সরকারের আগ্রহ

 

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

          চট্টগ্রাম-কক্সবাজার এবং যশোর-খুলনা মহাসড়ক ৪ লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পে অর্থায়নের ব্যাপারে সৌদি সরকার আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

          মন্ত্রীর সাথে আজ সংসদ ভবনস্থ অফিস কক্ষে সৌদি আরবের পরিবহন এবং লজিস্টিক সার্ভিস মন্ত্রী প্রকৌশলী সালেহ নাসের এ আল-জাসের এর নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ শেষে মন্ত্রী এ কথা জানান।

          মন্ত্রী আরো জানান, বন্দর নগরী চট্টগ্রাম থেকে পর্যটন নগরী কক্সবাজার পর্যন্ত প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দীর্ঘ মহাসড়ক এবং প্রায় ৬২ কিলোমিটার দীর্ঘ যশোর-খুলনা মহাসড়ক ৪ লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পে অর্থায়নের প্রস্তাব দিলে সৌদি আরবের পরিবহন ও লজিস্টিক সার্ভিস মন্ত্রী প্রকল্পগুলোর বিস্তারিত তথ্য চেয়ে অর্থায়নের আগ্রহ প্রকাশ করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় অন্যান্য ক্ষেত্রেও বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

          এ সময় মন্ত্রী সৌদি আরবে বাংলাদেশের জনশক্তি রপ্তানির সুযোগ বৃদ্ধির বিষয়টি উল্লেখ করেন এবং দু’দেশের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো জোরদার করার ওপরও গুরত্বারোপ করেন।

#

 

ওয়ালিদ/পাশা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/১৮১৫ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                                          নম্বর: ৫৬০২

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

            স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৯ হাজার ৮১১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২০৫ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে।  এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৭৮৪ জন। 

 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এ পর্যন্ত ২৭ হাজার ৯৭৮ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৪০ হাজার ৩১৭ জন।

 

#

 

কবীর/পাশা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/১৭৪০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৫৬০১

 

বাংলাদেশ জাতীয় নারী ক্রিকেট দলকে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর অভিনন্দন

 

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

          যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল বাংলাদেশ জাতীয় নারী ক্রিকেট দল প্রথমবারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করায় দলের সকল খেলোয়াড় কোচ কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

          অভিনন্দন বার্তায় প্রতিমন্ত্রী বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপনের এ মাহেন্দ্রক্ষণে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের এ সাফল্যে আমি অত্যন্ত আনন্দিত ও গর্বিত। আমি আশা করি, ভবিষ্যতেও বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের সাফল্যের জয়যাত্রা অব্যাহত থাকবে। 

          উল্লেখ্য, সেপ্টেম্বরের ১৫ তারিখ পর্যন্ত র‌্যাংকিংয়ের সেরা আটে থাকা দলগুলো আগামী বছর নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপে অংশ নেবে। গতকাল এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা।  

#

 

আরিফ/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/সুবর্ণা/শামীম/২০২১/১৫৩৬ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                               নম্বর : ৫৬০০

 

বাংলাদেশের নারীরা বিশ্বে নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছেন

                                                              -পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর):

          পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশের নারীরা শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ক্ষেত্রেও নিজেদের যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে বাংলাদেশের জন্য সুনাম বয়ে আনছেন। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের সর্বক্ষেত্রে নারীরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন। পুরুষের পাশাপাশি আমাদের নারীরাও অনেক দুঃসাহসিক কাজে অংশ নিয়ে নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিচ্ছেন–যা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক।

          গতকাল সন্ধ্যায় পররাষ্ট্র ভবনে নেপালে 'লবুচে' পর্বত জয়ী বাংলাদেশের প্রথম নারী জয়নাব বিনতে হোসেন শান্তু পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করতে আসলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে এ কথা বলেন। ড. মোমেন ফুল দিয়ে জয়নাবকে শুভেচ্ছা জানান। এসময় জয়নাব লবুচে পর্বতশৃঙ্গে ওড়ানো বাংলাদেশের পতাকাটি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে উপহার দেন।

          পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসময় বলেন, লবুচে পর্বতারোহীদের তালিকায় বাংলাদেশের প্রথম নারীর নাম লেখানোর এই গৌরবময় দৃষ্টান্ত বাংলাদেশের সকল নারীকে প্রেরণা যোগাবে। তিনি আগামীতে জয়নাবের আরো সাফল্য প্রত্যাশা করেন এবং বাংলাদেশের সুনাম ও মর্যাদা বৃদ্ধির যেকোনো প্রচেষ্টায় তাকে সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। এসময় লবুচে পর্বত অভিযানের স্পন্সর নাসির মিল্কি (সৌরভ) উপস্থিত ছিলেন।

          গত ১ নভেম্বর বাংলাদেশি প্রথম নারী হিসেবে জয়নাব বিনতে হোসেন শান্তু নেপালের ৬ হাজার ১১৯ মিটার উচ্চতার ‘লবুচে’ পর্বত জয় করে বাংলাদেশের জন্য গৌরব বয়ে আনেন।

#

মোহসিন/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/সুবর্ণা/শামীম/২০২১/১২০৪ ঘণ্টা

 

Not to publish before 5 PM

 

Handout                                                                                                                         Number : 5599

 

Prime Minister’s Message on the International Day

of Solidarity with the Palestinian People

 

Dhaka, 28 November :   

 

            Prime Minister Sheikh Hasina has given the following message on the occasion of International Day of Solidarity with the Palestinian People :

            "On the International Day of Solidarity with the Palestinian People, Bangladesh joins the international community in reaffirming its unwavering solidarity with the Palestinian people in their just struggle for inalienable rights. We firmly support the establishment of a sovereign, independent and viable State of Palestine with East Jerusalem as its capital.

            Our unflinching support to the Palestinian people was shaped by the powerful dictum of our Father of the Nation, Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman. Nevertheless, the country's Constitution enshrines our principled position to stand by the 'oppressed peoples throughout the world waging a just struggle against imperialism, colonialism or racialism.' Indeed, our own struggle for independence in 1971 constantly motivates us to stand against the injustice and tyranny endured by the Palestinian people. 

            The persistent violations of all international laws by the occupying forces and the sufferings of the innocent Palestinian civilians, including children are blatant disregard to international laws and a shameful failure of the international community. The cycle of impunity coupled with the indifferent attitude of the international community has only encouraged the occupying forces to commit repeated violations of human rights.  

            We strongly condemn the illegal and belligerent actions against all Palestinians, including the atrocities recently unleashed by the occupying power in the Palestinian Territories. We call for an immediate cessation of the continued aggression, construction of illegal settlements and demolition of homes. 

            On this day, we urge the international community to work in unison to find a just, peaceful and lasting solution to the Palestinian crisis. We must step up efforts to translate our solidarity with Palestinian people into meaningful action in line with relevant UN resolutions, the Arab Peace Initiative and the Quartet Road Map. 

Joi Bangla, Joi Bangabandhu  

May Bangladesh Live Forever."

 

#

 

 

Sarwer/Anasuya/Parikshit/Asma/2021/1000 hours

 

Not to publish before 5 PM

 

 

2021-11-28-16-37-f1ec593455e29ae44d235257979ae51e.doc 2021-11-28-16-37-f1ec593455e29ae44d235257979ae51e.doc

Share with :

Facebook Facebook