তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ জুলাই ২০২১

তথ্যবিবরণী ১৯ জুলাই ২০২১

Handout                                                                                              Number : 3368

 

Bangladesh receives additional three million doses

of Moderna vaccine from USA

 

Dhaka, July 19 :

 

            Foreign Minister Dr. A K Abdul Momen today received, in the Hazrat Shahjalal International Airport in the evening, 3 million doses of Moderna vaccine from the United States under the COVAX Framework. This consignment is in addition of the first one of 2.5 million doses of Moderna vaccine. Health and Family Welfare Minister Zahid Malik MP, US Charge d’Affaires in Bangladesh JoAnne Wagner, Senior Secretary of Health Services Division Lokman Hossain Miah and other high officials of Bangladesh Government were also present. Altogether, Bangladesh has so far received 5.5 million doses of Moderna vaccine from the United States. More vaccine doses from the United States are likely to come in coming months. 

 

#

 

Tohidul/Masum/Sanjib/Salim/2021/23.15 Hrs 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬৭

 

চট্টগ্রাম বিভাগে হতদরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          করোনা ভাইরাসজনিত রোগ (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে সরকার আরোপিত চলমান বিধিনিষেধকালীন সময়ে আজ চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় অসহায়, কর্মহীন, হতদরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

 

          চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় আজ জেলা স্টেডিয়ামে কর্মহীন ২২৭ জন হোটেল কর্মচারী, পত্রিকার হকার ও অসহায় দুস্থ মানুষের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

 

          লক্ষ্মীপুর জেলায় আজ জেলা প্রশাসন কর্তৃক প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ৫০০টি দুস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। ত্রাণসামগ্রী হিসেবে প্রতি পরিবারকে ১০ কেজি চাল, ০১ কেজি ডাল, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি লবণ ও ১ লিটার সয়াবিন তেল প্রদান করা হয়।

 

          এদিকে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ১৫০ জন প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়।

 

#

 

ফয়সল/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/২৩০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ৩৩৬৬

 

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          আজ সিনোফার্মের প্রথম ডোজ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১ লাখ ২৯ হাজার ৮৯৩ জন। যার মধ্যে পুরুষ ৭৪ হাজার ৭৩০ জন, মহিলা ৫৫ হাজার ১৬৩ জন। অদ্যাবধি সিনোফার্মের প্রথম ডোজ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১০ লাখ ৪৯ হাজার ৬৬০ জন। এদিকে, আজ সিনোফার্মের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৭৩৩ জন। যার মধ্যে পুরুষ ৩৪২ জন ও মহিলা ৩৯১ জন। অদ্যাবধি দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৩ হাজার ৩১৯ জন।

 

          মডার্না ভ্যাকসিনের আজ প্রথম ডোজ নিয়েছে ৫০ হাজার ৯০৪ জন। যার মধ্যে পুরুষ ৩০ হাজার ৬৭৯ জন, মহিলা ২০ হাজার ২২৫ জন। অদ্যাবধি মডার্না ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ৬৯ হাজার ৫৩৭ জন। মডার্না ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ প্রদান শুরু হয়নি।

 

          এদিকে, ফাইজার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ আজ ১২ জনকে দেয়া হয়েছে। যার মধ্যে পুরুষ ৫  জন, মহিলা ৭ জন। অদ্যাবধি প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছে ৫০ হাজার ১০৪ জনকে। ফাইজার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ শুরু হয়নি।

 

          অ্যাস্ট্রোজেনেকা-কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের এ পর্যন্ত প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছে ৫৮ লাখ ২০ হাজার ৩৩ জনকে। অদ্যাবধি অ্যাস্ট্রোজেনেকা-কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ ৪২ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬ জনকে দেয়া হয়েছে।

         

          আজ বিকাল ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত ভ্যাকসিনের জন্য মোট নিবন্ধন করেছেন ১ কোটি ৯ লাখ ৯০ হাজার ৩৩২ জন।

 

#

 

মিজানুর/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/২২০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬৫

 

কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ তদারকি করবে ডিএসসিসি

১০টি টিম গঠন ও কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ স্থাপন

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাটের বর্জ্য এবং ২১ জুলাই দুপুর ২টা হতে ২৪ জুলাই দুপুর ২টা পর্যন্ত দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)-এর আওতাধীন এলাকা ও পশুর হাটগুলোর বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সরেজমিন মাঠ পর্যায়ে তদারকির জন্য ১০টি টিম গঠন করেছে ডিএসসিসি। আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে করপোরেশনের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমন্বয়ে এই টিমগুলো গঠন করা হয়েছে।

 

          এছাড়া, করপোরেশনের শীতলক্ষ্যা হলে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম সচিত্র তদারকির জন্য একটি কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে স্থাপন করা হয়েছে। করপোরেশনের আওতাধীন যেকোনো নাগরিক তার নিজ এলাকায় সৃষ্ট বর্জ্য সম্পর্কিত তথ্য প্রেরণ বা পশুর বর্জ্য অপসারণ সম্পর্কিত সুরাহার জন্য কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ০১৭০৯৯০০৮৮৮ নম্বরে ফোন করে জানাতে পারবেন। কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে করপোরেশনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ তিন শিফটে ১৮ জুলাই দুপুর ২টা হতে ২৪ জুলাই দুপুর ২টা পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন। নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মাঠ পর্যায়ে চলমান বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রম তদারকি করবে।

 

          পাশাপাশি ৯০টি খোলা ট্রাক, ৫৩টি কম্পেক্টর, ১২টি পানির গাড়ি, ১০২টি ডাম্প ট্রাক, ১৪টি পে-লোডার, ৮১টি কন্টেইনার ক্যারিয়ার, ৯টি টায়ার ডোজার, ২টি ট্রেইলার, ৯টি স্কিড লোডারসহ প্রায় পৌনে ৪০০ যান-যন্ত্রপাতি মাঠ পর্যায়ে বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রমে নিযুক্ত থাকবে।  

 

          এছাড়া, নিয়মিত ৫ হাজার কর্মীর পাশাপাশি অতিরিক্ত আরো ৫ হাজার জন কর্মী কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণে নিযুক্ত থাকবে। পরিবেশ সুরক্ষা ও দূষণমুক্ত রাখার লক্ষ্যে প্রায় ৩০ টন ব্লিচিং পাউডার ও ১ হাজার ৮০০ লিটার তরল জীবাণুনাশক ছিটানো হবে। পাশাপাশি ঈদ উপলক্ষে ইতোমধ্যে প্রতি কাউন্সিলরকে ১ হাজার করে এবং আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাদেরকে ১ হাজার ৫০০টি পরিবেশবান্ধব থলে প্রদান করা হয়েছে। এসব থলে যারা কোরবানি করবেন তাদের মাঝে বিতরণ করা হবে। কোরবানির পশুর বর্জ্য সেসব থলের মধ্যে ভরে তা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে করপোরেশনের নির্ধারিত ব্যক্তিবর্গের কাছে হস্তান্তর করবেন।

 

#

 

নাছের/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/২১৩০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬৪

 

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিটিসিএল-জিপি চুক্তি ঐতিহাসিক মাইলফলক

                                                               -- টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          দেশব্যাপী ডিজিটাল সংযোগ আরো গতিশীল ও সুদৃঢ় করতে বিটিসিএল ও গ্রামীণফোনের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই চুক্তির অধীনে দেশব্যাপী বিটিসিএল এর অপটিক্যাল ফাইবার সংযোগ ও বিটিসিএল টাওয়ারসমূহ গ্রামীন ফোন শেয়ার করবে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের উপস্থিতিতে আজ  ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে  এই  চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

 

          অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অগ্রযাত্রায় এটি একটি ঐতিহাসিক মাইলফলক হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, সারাদেশে বিদ্যমান বিটিসিএল এর অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক ও টাওয়ার সেবা গ্রহণের মাধ্যমে গ্রামীণফোন তাদের গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন  ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির অগ্রযাত্রাকে আরো বেগবান করবে। তিনি বলেন, জাতির পিতা  টিএন্ডটি বোর্ড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের বীজবপন করে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া টিএন্ডটি (বর্তমান বিটিসিএল) বোর্ডের দেশব্যাপী সুবিস্তৃত ডিজিটাল অবকাঠামো সময়োপযোগী কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নের মাধ্যমে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

 

          মোস্তাফা জব্বার করোনাকালে উচ্চগতির ইন্টারনেট সেবা প্রদানের মাধ্যমে দেশের মানুষের জীবনযাত্রা সচল রাখায় টেলিযোগাযোগ খাতের অবদান তুলে ধরে বলেন, সরকারি টেলিকম প্রতিষ্ঠানসমূহের পাশাপাশি দেশের অন্য মোবাইল অপারেটরসমূহ অবিস্মরণীয় দায়িত্ব পালন করেছে। তৃণমূল মানুষের ইন্টারনেট পরিষেবা নিশ্চিত করতে দেশব্যাপী ফোর-জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে তারা সরকারের নির্দেশনা অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে পালন করেছে। দেশের কোন কোন মোবাইল অপারেটর টুজি ও থ্রিজি থেকে  শতভাগ বিটিএস ফোরজি নেটওয়ার্কের আওতায় এনেছে। এর ফলে তৃণমূলের প্রথম শ্রেণির শিশুটিও তার চাহিত ইন্টারনেট সেবা পাচ্ছে, অনলাইনে ক্লাস করছে। সবজি ও ফল বিক্রেতা থেকে শুরু করে গরু বিক্রেতা পর্যন্ত ডিজিটাল প্রযুক্তির সুবিধা ভোগ করছে।

 

          মোস্তাফা জব্বার বলেন, ২০১৮ সালে বাংলাদেশ ফোরজি নেটওয়ার্ক চালু করে একই বছর প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদের দিকনির্দেশনায় ফাইভজি প্রযুক্তির পরীক্ষা সম্পন্ন করেছি। ফাইভজি চালুর মাধ্যমে বাংলাদেশ ডিজিটাল সুপার হাইওয়ে নির্মাণের দ্বারপ্রান্তে । টেলিকমখাতের এই অগ্রগতি দেশকে এক অভাবনীয় অগ্রগতির শিখরে উন্নীত করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

 

          অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মোঃ আফজাল হোসেন, বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর সিকদার, বিটিসিএল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মোঃ রফিকুল মতিন এবং গ্রামীণফোনের সিইও ইয়াসির আজমান বক্তৃতা করেন।

#

শেফায়েত/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/২১০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬৩

 

বঙ্গবন্ধু আমৃত্যু শোষিত মানুষের পক্ষে লড়াই করে গেছেন

                                      -- প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমৃত্যু শোষিত মানুষের পক্ষে লড়াই করে গেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশটা স্বাধীন করে দিয়ে গেছেন বলেই আমরা গর্ব করে বলতে পারি আমরা স্বাধীন।  বঙ্গবন্ধু এদেশ স্বাধীন করেছেন বলেই আমরা আজ উন্নত বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখতে পারছি।

 

          আজ সচিবালয়ে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সম্মেলন কক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের উদ্যোগে প্রকাশিত ‘বঙ্গবন্ধুর সমবায় ভাবনা : উন্নয়ন অভিযাত্রায় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ’ শীর্ষক প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

 

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বাঙালি জাতিকে একটি স্বাধীন আত্মপরিচয় দিয়ে গেছেন। অর্থনৈতিক মুক্তির জন‍্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। তাঁর ইচ্ছা ছিল বাঙালি জাতি অত্যন্ত মর্যাদার সঙ্গে সারা পৃথিবীতে বিচরণ করবে। জাতির পিতার সেই স্বপ্নসাধ পূরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি ক্ষমতায় আছেন বলেই  বাংলাদেশ একটি সম্ভাবনাময় দেশ।

 

          পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মোঃ রেজাউল আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন‍্যান্যের মধ‍্যে উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোঃ রাশিদুল ইসলাম, বিআরডিবি’র মহাপরিচালক সুপ্রিয় কুমার কুন্ডু,  সমবায় অধিদপ্তরের নিবন্ধক ও মহাপরিচালক ড. মো. হারুন-অর-রশীদ বিশ্বাস, পিডিএফ এর এমডি মউদুদউর রশীদ সফদার এবং বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মোঃ আমিনুল ইসলাম।

 

#

 

হাবীব/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৯৪০ ঘণ্টা 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬২

 

ঢাকা বিভাগে ত্রাণ কার্যক্রম চলমান

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          করোনাভাইরাস মহামারিতে মানবিক সহায়তা হিসেবে  সরকারের পক্ষ হতে দেশব্যাপী ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। গতকাল ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় এ কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে।

 

          নরসিংদী জেলায় ৯৩ হাজার মেট্রিক টন চাল ত্রাণ হিসেবে বিতরণ করা হয়। ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ১ হাজার ৩৬১ দশমিক ৫৯ মেট্রিক টন চাল বিতরণ  এবং ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৯২৩টি পরিবার ও ৪ হাজার ৬১৫ জনকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

 

          গোপালগঞ্জ জেলায় ত্রাণ হিসেবে নগদ  ৪ লাখ টাকা,  ৬৭ হাজার মেট্রিক টন চাল, ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ৮৯৩ দশমিক ৬৬ মেট্রিক টন চাল, ২ হাজার শুকনো খাবার প্যাকেট  এবং  ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ১ হাজার ৮৫৫টি পরিবার ও ৮ হাজার ৩৪৭ জনকে  ত্রাণ  বিতরণ করা হয়েছে।

 

          মুন্সীগঞ্জ জেলায় ত্রাণ হিসেবে নগদ  ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ৫৭২ মেট্রিক টন চাল,  ২ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার এবং ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ৬৭৩ দশমিক ২৭ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয় এবং হটলাইনের মাধ্যমে ৩২৫ জনকে মানবিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

 

          শরীয়তপুর জেলায় ত্রাণ হিসেবে ১০ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

 

          ফরিদপুর জেলায় ত্রাণ হিসেবে নগদ ৪ লাখ টাকা, ৬৭ হাজার মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ৮৯৩ দশমিক ৬৩ মেট্রিক টন চাল, ২ হাজার শুকনো খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে। ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ১ হাজার ৮৫৫টি পরিবার ও ৩৮ হাজার ৩৪৭ জনকে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।

 

          কিশোরগঞ্জ জেলায় ত্রাণ হিসেবে নগদ ১ লাখ টাকা  এবং ১০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ৮২০ দশমিক ১৬০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৪৮২টি পরিবার ও ২ হাজার ৪১০ জনকে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

 

          সংশ্লিষ্ট  জেলার  জেলা তথ্য অফিসসমূহ ঢাকা বিভাগীয়  তথ্য অফিসের মাধ্যমে  এসব তথ্য জানিয়েছে।

#

 

আনোয়ার/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৮৪০ ঘণ্টা 

 তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬১

খুলনা বিভাগে করোনাকালীন অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          কোভিড-১৯ মহামারিকালে অসহায়, কর্মহীন ও বিভিন্ন শ্রেণির প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে সরকারি ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আজ খুলনা বিভাগের মাগুরা, কুষ্টিয়া ও নড়াইল জেলায় ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।

 

          মাগুরা জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন দপ্তরের উদ্যোগে আজ ৩ হাজার ৭৪০টি উপকারভোগী পরিবারের প্রত্যেকটির মাঝে ১০ কেজি করে চালের প্যাকেট বিতরণ করা হয়।  এছাড়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয়ভাবে ৮ শত ৪০ প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়।

 

          কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আজ ২ হাজার ২১০টি দুস্থ ও অসহায় পরিবারের মধ্যে ২২ দশমিক ১০০ মেট্রিক টন চাল এবং স্থানীয়ভাবে ২৪ হাজার ৫৯২ জন উপকারভোগীর মাঝে ২৪৫ দশমিক ৯২ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। ৪৬৪ জন উপকারভোগীর মাঝে ২ লাখ ৫৯ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। ৩৩৩ হেল্পলাইনের মাধ্যমে সহায়তা প্রত্যাশী ৭৯টি পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া স্থানীয়ভাবে ২টি পরিবারের মাঝে  ২০ কেজি চাল প্রদান করা হয়েছে।

 

          নড়াইল জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ২৯ হাজার ৪০টি দুস্থ ও অসহায় পরিবারের মধ্যে ২৯০ দশমিক ১০ মেট্রিক টন চাল এবং স্থানীয়ভাবে ১০০টি শুকনো খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চারশত প্যাকেট রান্না করা খাবার বিতরণ করেছে।

 

#

 

দীপংকর/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৯২০ ঘণ্টা 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৬০

 

দেশের অর্থনীতিতে করোনা আঘাত করতে পারেনি

                              -- নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

 

বোচাগঞ্জ (দিনাজপুর), ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, করোনা মোকাবিলায়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীবন ও জীবিকার যে তত্ত্ব দিয়েছেন তা সমগ্র পৃথিবীতে প্রশংসিত হয়েছে। করোনায় বিশ্বের অর্থনীতিতে ধস নেমেছে কিন্তু বাংলাদেশের অর্থনীতিতে করোনা আঘাত করতে পারেনি। দেশের উন্নয়ন সমানতালে এগিয়ে চলছে। যারা পদ্মা সেতু নিয়ে ষড়যন্ত্র করেছিল তারা দেখুক এই করোনার মধ্যেও পদ্মা সেতুর কাজ এগিয়ে যাচ্ছে।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলা ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইনের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

          বোচাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবুল বাসার মোঃ সায়েদুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন রংপুর বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডাঃ আবু মো. জাকিরুল ইসলাম, জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মো. আব্দুল কুদ্দুস ও বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছন্দা পাল।

 

          প্রতিমন্ত্রী পরে বোচাগঞ্জ উপজেলা চত্বরে এলজিইডির বাস্তবায়নাধীন ১০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন, ৭টি পাকা রাস্তার উদ্বোধনসহ এডিপি প্রকল্পের আওতায় সেলাই মেশিন, হুইল চেয়ার, ভ্যানগাড়ি ও বাই সাইকেল বিতরণ করেন।

 

#

 

জাহাঙ্গীর/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৯০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৫৯

 

করোনাভাইরাস বিস্তাররোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপন

 কোরবানি পশুর চামড়া পরিবহন ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ বিধি-নিষেধ আওতাবর্হিভূত

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর বিস্তাররোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ১৩ জুলাই ২০২১ তারিখের স্মারকের মাধ্যমে আরোপিত সার্বিক কার্যাবলি ও চলাচলে বিধি-নিষেধকালে নিম্নোক্ত কার্যক্রমসমূহ আওতাবহির্ভূত থাকবে।

 

          এগুলো হলো-খাদ্য ও খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতকরণ মিল কারখানা; কোরবানির পশুর চামড়া পরিবহন, সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং    ঔষধ, অক্সিজেন ও কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য উৎপাদনকারী শিল্প। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সরকার।

 

          মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ আজ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে।

 

#

 

রেজাউল/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৮৪০ ঘণ্টা 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৫৮

 

লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক স্থাপনের সম্ভাব্যতা

যাচাই প্রতিবেদন অনুমোদন করেছে পরিবেশ মন্ত্রণালয়

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          ডুলাহাজারা ও গাজীপুরের পর মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার লাঠিটিলায় দেশের তৃতীয় সাফারি পার্ক স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদন অনুমোদন করেছে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়। ৫ হাজার ৬৩১ একর বনভূমির ওপর নির্মিতব্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদন আজ অনুমোদিত হয়।

 

          বন অধিদপ্তরের প্রধান বন সংরক্ষক মোঃ আমীর হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সংক্রান্ত ভার্চুয়াল  সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মোস্তফা কামাল। অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) আহমদ শামীম আল রাজী, মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন, জুড়ী উপজেলা পরিষদের প্রতিনিধিবৃন্দসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সম্ভাব্যতা যাচাই কমিটির টিম লিডার  ড. তপন কুমার দে প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করেন।

 

          মন্ত্রী বলেন, সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদন অনুযায়ী অন্যান্য এলাকার চাইতে লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক স্থাপন অধিক সুবিধাজনক ও বাস্তবভিত্তিক। এলাকার মানুষের ঐকমত্যের ভিত্তিতেই জুড়ী উপজেলার লাঠিটিলায় এ সাফারি পার্ক প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। এখানে সাফারি পার্ক স্থাপিত হলে বনভূমি অবৈধ দখল হতে রক্ষা পাবে। জীববৈচিত্র্য ও পরিবেশের মানের উন্নয়নে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত পর্যটকগণ এ সাফারি পার্কে এসে বিভিন্ন ধরনের দেশি-বিদেশি প্রাণীর সাথে পরিচিত হতে পারবে।

 

          মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সরকারি এ বনভূমির অভ্যন্তরে অবৈধভাবে বসবাসরত পরিবারগুলোর মধ্যে ৫৮টি পরিবারকে যথাযথ প্রক্রিয়ায় পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে। অবশিষ্ট পরিবারগুলোর সমন্বয়ে ইকোভিলেজ প্রতিষ্ঠা করা হবে।  পুনর্বাসন প্রক্রিয়া সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সম্পন্ন করে সাফারি পার্ক স্থাপনের কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য মন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

 

          উল্লেখ্য, মৌলভীবাজার জেলা শহর হতে ৬০ কিমি উত্তর পূর্ব, মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত হতে ২০ কিমি দক্ষিণ এবং  লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের ৫০ কিমি উত্তর দিকে অবস্থিত হওয়ায় পর্যটকদের জন্য এ সাফারি পার্কে  ভ্রমণ সুবিধাজনক হবে। বর্তমানে ২০৯ প্রজাতির প্রাণী এবং ৬০৩ ধরনের প্রজাতির উদ্ভিদ সম্পন্ন প্রস্তাবিত এলাকায় সাফারি পার্ক স্থাপিত হলে এখানে আরো অধিক প্রজাতির উদ্ভিদ ও প্রাণীর সম্মিলন ঘটানো হবে।

#

 

দীপংকর/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৯০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৩৩৫৭

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৪৫ হাজার ১২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৩ হাজার ৩২১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১১ লাখ ১৭ হাজার ৩১০ জন। 

 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩১ জন-সহ এ পর্যন্ত ১৮ হাজার ১২৫ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৯ লাখ ৪১ হাজার ৩৪৩ জন।

 

#

 

ফেরদৌস/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৭৪০ ঘণ্টা 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                      নম্বর : ৩৩৫৬

 

বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বৃত্তির দরখাস্ত আহ্বান

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে ‘নতুন ভারত বাংলাদেশ মৈত্রী মুক্তিযোদ্ধা সন্তান স্কলারশিপ স্কিম’-এর আওতায় বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এবং নাতি-নাতনিদের বৃত্তি প্রদানের লক্ষ্যে দরখাস্ত আহ্বান করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।  ১ হতে ৩১ আগস্ট  ২০২১ পর্যন্ত দরখাস্ত  জমা নেয়া হবে।

 

          ভারত সরকারের আর্থিক সহায়তায় ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় যৌথভাবে এ কার্যক্রম  বাস্তবায়ন করবে।

 

          স্কলারশিপ স্কিমের আওতায় উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এক হাজার জন এবং স্নাতক পর্যায়ে এক হাজার জন করে মোট দুই হাজার ছাত্র-ছাত্রীকে (বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/নাতি-নাতনি) বৃত্তি প্রদান করা হবে। স্নাতক পর্যায়ে এককালীন ৫০ হাজার এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এককালীন ২০ হাজার টাকা করে বৃত্তি  প্রদান করা হবে।

 

          এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য ও ফরম মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে  (www.molwa.gov.bd) পাওয়া যাবে।

 

#

 

মারুফ/মাসুম/সঞ্জীব/সেলিম/২০২১/১৭৫০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ৩৩৫৫

 

সমালোচনা করে আবার সেই টিকাই নিচ্ছেন খালেদা জিয়া, এটা ভালো!

                                                                       -- তথ্যমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৪ শ্রাবণ  (১৯ জুলাই) :

 

          তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘সমালোচনা করে আবার সেই টিকাই নিচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া, এটা ভালো!’

 

          আজ রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীর সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ও করোনাসুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিএনপিনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার টিকা নেয়া প্রসঙ্গে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক উপকমিটি এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এ কে এম রহমতুল্লাহ, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা প্রমুখ এ সময় বক্তব্য রাখেন।

 

          ড. হাছান বলেন, ‘আজকে আমরা দেখতে পেলাম, বেগম খালেদা জিয়াও টিকা নিচ্ছেন। তার দলের নেতারা এই টিকা নিয়ে অনেক বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিলেন আর সেই নেতারাই পরে টিকা নিয়েছিলেন। আজকে বেগম খালেদা জিয়াও টিকা নিচ্ছেন। এজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাই এবং তিনি যেন টিকা গ্রহণ করে পুরোপুরি সুস্থ থাকেন, করোনা মহামারি থেকে মুক্ত থাকেন, সেটিই আমরা প্রত্যাশা করি, সেটিই আমরা বিধাতার কাছে প্রার্থনা করি।’

 

          ‘তবে আপনারা টিকা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিলেন, এখন বেগম খালেদা জিয়াসহ সবাই যখন টিকা গ্রহণ করছেন, অতীতে বিভ্রান্তি ছড়ানোর জন্য জাতির কাছে আপনাদের ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে জনগণ মনে করে’ বিএনপি’র উদ্দেশ্যে বলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

 

          ‘অ্যাস্ট্রোজেনেকার যে টিকা ইউরোপের মানুষও নিচ্ছে সেই টিকা দেশে আনার সময় বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, সেটা কোনো কাজ করবে না এমনকি এটা নিলে

2021-07-19-17-18-5606465fa5487066c6c0212f29ce4783.doc 2021-07-19-17-18-5606465fa5487066c6c0212f29ce4783.doc

Share with :

Facebook Facebook