তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১

তথ্যবিবরণী ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর :  ৪৩৫৮

 

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ

                                                  ---তথ্য ও সম্প্রচার  প্রতিমন্ত্রী

জামালপুর, ২৭ ভাদ্র (১১  সেপ্টেম্বর) :

 

          তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ মুরাদ হাসান বলেছেন, শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্ব ও সাহসী পদক্ষেপে সকল প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ আজ অনন্য উচ্চতায় অধিষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ উঁচু করে কথা বলতে শিখেছে—এই দেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দেশ। এই দেশের মানুষ স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বলীয়ান; বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ধারক ও বাহক।

 

          আজ জামালপুর জেলাসদরের ফৌজদারি মোড়ে পৌর আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

          পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুম রেজা রহিমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক বিজন কুমার চন্দের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক কৃষি মন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  শিক্ষা মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা.দিপু মনি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি।

#

 

গিয়াস/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৯:২৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৪৩৫৭

 

শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটকে জমি হস্তান্তর

 বিষয়ক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত

 

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

 

            আজ সাভারে অবস্থিত শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটকে জমি হস্তান্তর বিষয়ক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমঝোতা স্মারকে শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের  পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক মোঃ আব্দুল করিম এনডিসি এবং বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের পক্ষে মহাপরিচালক ডাঃ মোঃ আব্দুল জলিল স্বাক্ষর করেন।

 

            অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত  থেকে বক্তব্য প্রদান করেন  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রদান করেন দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান,  যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্হায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আখতার হোসেন ও শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল করিম।  

 

            সভাপতির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন,  প্রধানমন্ত্রীর নামে যুবসমাজের দক্ষ জনশক্তিতে রুপান্তরের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত এ ইনস্টিটিউটটিকে Centre of Excellence হিসেবে দেশে তথা বিশ্বের মাঝে এর কর্মকাণ্ড সুপরিচিত করার লক্ষ্যে এবং যুবদের সার্বিক কল্যাণে ইনস্টিটিউটকে উচ্চতর পর্যায় নিয়ে যাওয়ার জন্য বর্তমান কাঠামোর সম্প্রসারণ প্রয়োজন। এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এ সমঝোতা স্মারক সাক্ষর।  তিনি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে ধন্যবাদ জানান দেশের এক তৃতীয়াংশ জনগোষ্ঠীর কল্যাণে এগিয়ে আসার জন্য। তিনি জানান,  এ ইনস্টিটিউট থেকে যুবদের উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা, যুগোপযোগী প্রশিক্ষণ, যুব কর্মের ইম্প্যাক্ট এনালাইসিস ও থিংক ট্যাংক, যুব বিষয়ক নীতি ও পরিকল্পনা প্রণয়ন, যুব সংগঠন পরিচালনা, যুব বিষয়ক সেমিনার ও কর্মশালার আয়োজন, যুব বিষয়ক ডকুমেন্ট প্রস্তুত ও প্রকাশনা, যুব লাইব্রেরি ও ই-লাইব্রেরি স্থাপন, যুব বিষয়ক আধুনিক গবেষণাগার ও তথ্য ভান্ডার, যুব পার্লামেন্ট ইত্যাদি যুব কর্মকাণ্ডের সম্প্রসারণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। 

 

            এছাড়া এই ইনস্টিটিউটে যুবদের জন্য যুব বিষয়ক ডিপ্লোমা কোর্স, আন্ডার গ্রাজুয়েট ডিগ্রি, পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিগ্রিসহ পিএইচডি ডিগ্রি পরিচালনা করার পরিকল্পনা রয়েছে। 

 

            এ সময়ে প্রধান অতিথি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, প্রতিষ্ঠানটি আধুনিক ও যুগোপযোগী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যুবসমাজকে দক্ষ মানবসম্পদে রূপান্তরিত করে দেশের বেকারত্ব নিরসন ও আত্মকর্মসংস্হান সৃষ্টিতে অনন্য ভূমিকা পালন করছে।  অচিরেই  এ ইনস্টিটিউটটি সারাবিশ্বে  একটি স্বনামধন্য ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে পরিণত হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

 

            অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয়  স্হায়ী কমিটির সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ  মাহবুব আরা বেগম গিনি, নাইমুর রহমান দুর্জয় এমপি, জাকিয়া তাবাসসুম এমপি, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট ও শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। 

 

#

আরিফ/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৯:১৬ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর :  ৪৩৫৬

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

 

            স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৮ হাজার ৮৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৩২৭ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ
২৮ হাজার ৫৪২ জন। 

 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৮ জন-সহ এ পর্যন্ত ২৬ হাজার ৮৮০ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৪ লাখ ৭৫ হাজার ২৩৫ জন।

 

#

 

ফেরদৌস/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৯:০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৪৩৫৫

 

চা-শ্রমিকদের মাঝে অনুদান বিতরণ এবং দু’টি নবনির্মিত বিদ্যালয় ভবনের উদ্বোধন করলেন পরিবেশমন্ত্রী

 

 

জুড়ী (মৌলভীবাজার), ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

          পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন শনিবার মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে চা-শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় এককালীন আর্থিক অনুদান বিতরণ করেন। সমাজসেবা অধিদপ্তর আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি ৩ হাজার ৪ শত ৪৭ জন চা শ্রমিকের মাঝে জনপ্রতি ৫ হাজার টাকা করে মোট ১ কোটি ৭২ লাখ ৩৫ হাজার টাকা বিতরণ করেন। এছাড়া, তিনি ১০ জন সংস্কৃতিসেবীর মাঝে ২৫ হাজার টাকা এবং ১ জন দুরারোগ্য রোগীকে ৫০ হাজার টাকা বিতরণ করেন।

 

          আজ অপর এক অনুষ্ঠানে পরিবেশমন্ত্রী ১ কোটি ৩ লাখ টাকা ব্যয়ে উত্তর ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন এবং ১ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে শিলঘাট চা-বাগান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ওয়াস ব্লকসহ নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন।

 

          অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার চা-শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে আন্তরিকভাবে কাজ করছে। তিনি আরো বলেন, জনগণের স্বার্থ ও বনভূমি সংরক্ষণের লক্ষ্যে জুড়ী উপজেলার লাঠিটিলায় দেশের তৃতীয় বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক নির্মাণ করা হবে। এর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সাফারি পার্কের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ হবে না। জুড়ীতেই নির্মাণ করা হবে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক।

 

          জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোনিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ মোঈদ ফারুক, ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাশ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রঞ্জিতা শর্মা এবং উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা রাকেশ পাল প্রমুখ।

 

#

দীপংকর/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৮:১০ ঘণ্টা

 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৪৩৫৪

 

বিএনপিতে নেতাদের প্রতি কর্মীদের আস্থা নেই 

                                        ---ড. হাছান মাহ্‌মুদ

 

চট্টগ্রাম,২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

 

          তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, 'মির্জা ফখরুলদের ওপর কর্মীদেরই আস্থা নেই, বিএনপির কর্মীদের দ্বারাই তারা প্রচণ্ডভাবে সমালোচিত। যে দলের এই অবস্থা, সেই দলের মহাসচিব হুইসেল বাজালেই আন্দোলনে মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়ার বক্তব্য হাস্যকর। বিএনপি কোনো একটা অনুষ্ঠান করতে গেলে নিজেরাই মারামারি করে সে অনুষ্ঠান পণ্ড হয়।'

 

          শনিবার দুপুরে বন্দরনগরীর আগ্রাবাদে বাংলাদেশ বেতার চট্টগ্রাম কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে মতবিনিময়কালে সাংবাদিকরা বিএনপি মহাসচিবের গণআন্দোলনের ডাক নিয়ে প্রশ্ন করলে জবাবে মন্ত্রী একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, 'উনার বক্তব্যে মনে হচ্ছে উনি কিংবা সাত সমুদ্র তের নদীর ওপার থেকে তাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হুইসেল বাজাবেন, তাহলেই মানুষ রাস্তায় নেমে পড়বে। আসলে মির্জা ফখরুল সাহেব যে জেগে জেগে স্বপ্ন দেখেন এবং প্রতিনিয়ত অবান্তর কথা বলেন, এই বক্তব্য সেটিরই  হাস্যকর বহিঃপ্রকাশ।'

 

          ড. হাছান মাহমুদ বলেন, 'চট্টগ্রাম বেতার কেন্দ্র একটি ঐতিহাসিক কেন্দ্র। কারণ এখান থেকেই ২৬ মার্চ বঙ্গবন্ধুর পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করেছিলেন তৎকালীন চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হান্নান। পরে ২৭ মার্চ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ একজন সেনা অফিসারকে দিয়ে স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করানোর জন্য মেজর জিয়াউর রহমানকে খুঁজে বের করে এনে তাকে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করানো হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণা সম্প্রচারে ব্যবহৃত কালুরঘাটের সেই ট্রান্সমিটারটি এখন চট্টগ্রাম পুরনো সার্কিট হাউসে রাখা হয়েছে। এটি কালুরঘাটে স্থাপিত স্বাধীনতা পার্কে ছোট্ট জাদুঘর করে রাখা হবে।'  

 

          বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে রেডিও যেমন অনন্য ভূমিকা রেখেছে একইভাবে দেশ গঠনেও রেডিও অনন্য ভূমিকা পালন করে চলেছে, বলেন তথ্যমন্ত্রী। বেতার যাতে দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে দিতে আরো জোরালো ভূমিকা রাখতে পারে সেজন্য এর উন্নয়নে অনেকগুলো পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, জানান তিনি।

 

          বেতারের চট্টগ্রাম কেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী নিত্য প্রকাশ বিশ্বাস, আঞ্চলিক পরিচালক এস এম মোস্তফা সরোয়ার, উপ বার্তা নিয়ন্ত্রক মো. জাকির হোসেনসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

 

#

আকরাম/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৮:০৩ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৪৩৫৩

 

ডিজিটালাইজেশনের বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে সচেতনতার অভাব 

                                     ---মোস্তাফা জব্বার

 

ঢাকা,২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটালাইজেশনের বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে সচেতনতার অভাব। জনগণকে ডিজিটাল প্রযুক্তির সাথে ব্যাপকভাবে সম্পৃক্ততা করার পাশাপাশি প্রযুক্তির বিষয়ে শিক্ষিত করা অপরিহার্য। এ বিষয়ে সরকারের পাশাপাশি বিসিএসসহ সংশ্লিষ্ট ট্রেডবডিসমূহকে অগ্রণী ভূমিকা গ্রহণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

 

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় বিসিএস কম্পিউটার সিটি প্রতিষ্ঠানের ২২ বছর পদার্পণ উপলক্ষ্যে বিসিএস কম্পিউটার সিটি ব্যবস্থাপনা কমিটি আয়োজিত চারদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালার  উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

          মন্ত্রী বলেন, দেশে মোট মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের শতকরা ৩৫ভাগ স্মার্ট ফোন ব্যবহার করেন। সারাদেশে ফোরজি নেট্ওয়ার্ক ও ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ সম্প্রসারিত হওয়ায় খুব সহসাই স্মার্টফোনের ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে শতকরা ৮৫ ভাগ থেকে ৯০ ভাগে উন্নীত হবে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, আমরা এবছরেই ৫জি যুগে প্রবেশ করছি। আর প্রযুক্তির এই আধুনিক ভার্সানটি হবে ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল পণ্য। মন্ত্রী দেশের আধুনিক প্রযুক্তি পণ্যের হাব হিসেবে পরিচিত বিসিএস কম্পিউটার সিটিকে প্রচলিত ডিজিটাল পণ্যের পাশাপাশি আধুনিক ডিজিটাল ডিভাইসের হাব হিসেবে গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।  তিনি বলেন, ২০০৮ সালে দেশে মাত্র ৮ জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যান্ডউইডথ ব্যবহার হতো, বর্তমানে তা সাড়ে ২৬শত জিবিপিএস-এ উন্নীত হয়েছে। তিনি কম্পিউটার জনপ্রিয় করতে সংবাদ মাধ্যমের ভূমিকা এবং বিসিএস’র তৎকালীন নেতৃবৃন্দের অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি তথ্যপ্রযুক্তি বিকাশে জামিলুর রেজা চৌধুরী (জেআরসি) রিপোর্ট বাস্তবায়নে বিসিএস’র অবদান তুলে ধরে বলেন, কমিটির ৪৫টি রিপোর্টের মধ্যে ২৮টি রিপোর্ট বাস্তবায়নে বিসিএস ভূমিকা পালন করে। তিনি বলেন, ডিজিটালাইজেশনের জন্য বঙ্গবন্ধুর রোপণ করা বীজটি ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চারা গাছে রূপান্তর করেন। গত বার বছরে শেখ হাসিনার হাত ধরেই তা বিরাট মহিরূহে রূপ লাভ করেছে।

 

          অনুষ্ঠানে বিএসএস সভাপতি শাহিদ-উল মুনীর, সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ এইচ কাফি. আহমেদ হাসান জুয়েল, সবুর খান,যুক্তরাষ্ট্র থেকে সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুনেম রানা, বিসিসিএস সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনি, বিসিএস নেতা ভূইয়া এনাম লেলিন, রফিকুল আনোয়ার, হাবিবুর রহমান শাহীন, মঈনুল ইসলাম মইন প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

 

         

                                                          #

শেফায়েত/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৭:৩৬ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ৪৩৫২

 

দেশীয় দুগ্ধশিল্পের বৈচিত্র্যময় প্রসারে কাজ করছে মিল্কভিটা 

                                                --- স্বপন ভট্টাচার্য্য

 

খুলনা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

 

          দেশীয় দুগ্ধশিল্পের  বৈচিত্র্যময় প্রসারে কাজ করছে  মিল্কভিটা জানিয়েছেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য ।

          প্রতিমন্ত্রী আজ খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলায় বাংলাদেশ দুগ্ধ উৎপাদনকারী সমবায় ইউনিয়ন লি. এর খুলনা বিভাগের সমবায়ীদের মাঝে ক্ষুদ্র ঋণের চেক বিতরণ ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন । অনুষ্ঠানে  ২০০ জন সমবায়ীর মধ‍্যে ২ কোটি ৪০ লাখ টাকার ক্ষুদ্র ঋণের চেক বিতরণ করা হয়।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, একটি শোষিত ও বঞ্চিত  জাতিকে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম। এ মুক্তি বলেতে তিনি অর্থনৈতিক মুক্তির কথা বলেছেন। আর এই অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের জন‍্য সমবায়কে বেছে নিয়েছিলেন। সমবায় ছিল জাতির পিতার সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন পূরণের হাতিয়ার। তিনি কৃষি ও ভূমি ব্যবস্থাপনা, শিল্প উদ্যোগ, কৃষি ঋণসহ সবক্ষেত্রেই সমবায়ভিত্তিক উৎপাদন ও বণ্টন ব্যবস্থাপনায় উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন।

          স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেন, বতর্মান সরকার কৃষকদের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে। দেশের দুগ্ধ উৎপাদনের মাধ‍্যমে কৃষকদের ভাগ্য পরিবর্তনের আকাঙ্ক্ষা থেকেই মিল্কভিটা গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। প্রতিষ্ঠানটি গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিচ্ছে। সাতক্ষীরায় একটি মিনি ডেইরি প্ল্যান্ট স্থাপন করা হচ্ছে। এটি সফল হলে সারা দেশে বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হবে। ডুমুরিয়ায় উপজেলায় যেহেতু দুধের উৎপাদন বেশি তাই এখানেও একটি মিনি ডেইরি প্ল্যান্ট  স্থাপন করা হবে।

          মিল্ক ভিটার চেয়ারম্যান শেখ নাদির হোসেন লিপুর সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ‍্যে বক্তব্য রাখেন মিল্ক ভিটার ব্যবস্থাপনা পরিচালক  অমর চান বণিক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবদুল ওয়াদুদ এবং বিভাগীয় সমবায় অধিদপ্তরের যুগ্ম নিবন্ধক মোঃ মিজানুর রহমানসহ স্থানীয় সমবায়ী নেতৃবৃন্দ।

#

 

আহসান/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/১৭:২০ ঘণ্টা 

Handout                                                                                                                            Number : 4351

The Ministry of Environment has started implementing the recommendation of the parliamentary committee to shut down the Savar Tannery Complex

Dhaka, 11 September:

            The Ministry of Environment has started taking steps to implement the recommendation of the 21st meeting of the Parliamentary Standing Committee on the Ministry of Environment, Forest and Climate Change to shut down the Savar Tannery Complex. The Chairman of Bangladesh Small and Cottage Industries Corporation (BSCIC) has been requested to send a clear explanation by September 20, 2021 as to why the Savar Tannery Complex will not be shut down  as per the recommendation of the parliamentary committee .

            The request was made in a letter signed by the Director General of the Department of Environment Md. Ashraf Uddin on 9 September.

            It is to be noted that as per the decision of the 21st meeting of the Parliamentary Standing Committee on the Ministry of Environment, Forests and Climate Change held 23rd August, it was recommended to shut down the tannery complex run by the Ministry of Industries and BSCIC as a matter of urgency as the waste management was not done properly. In the future, if the complex is operated in accordance with the provisions of the law, the issue of reopening may be considered.  It is recommended to collect maximum compensation through fines till the closure.

#

Dipankar/Mehedi/Zulfikar/Rafiqul/Shamim/2021/1412 Hours

তথ্যবিবরণী                                                                                                                  নম্বর : ৪৩৫০

সাভার ট্যানারি কমপ্লেক্স বন্ধে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ বাস্তবায়নে পরিবেশ মন্ত্রণালয়


ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :

          সাভার ট্যানারি কমপ্লেক্স বন্ধে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২১তম সভার সুপারিশ বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নিয়েছে পরিবেশ মন্ত্রণালয়। সংসদীয় কমিটির সুপারিশ মোতাবেক সাভার ট্যানারি কমপ্লেক্স কেন বন্ধ করা হবে না আগামী ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ব্যাখ্যা প্রদানে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক) এর চেয়ারম্যানকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। 

          উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২১তম বৈঠকে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সঠিকভাবে না করায় জরুরিভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট আইনের ধারা অনুযায়ী শিল্প মন্ত্রণালয় ও বিসিক পরিচালিত ট্যানারি কমপ্লেক্স বন্ধে সুপারিশ করা হয় এবং ভবিষ্যতে কমপ্লেক্সটি পরিচালিত হলে পুনরায় চালু করার বিষয় বিবেচনা করা যেতে পারে। বন্ধের পূর্ব পর্যন্ত জরিমানার মাধ্যমে সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ আদায়ের সুপারিশ করা হয়।

#

দীপংকর/মেহেদী/জুলফিকার/রফিকুল/শামীম/২০২১/১৩৩০ ঘণ্টা 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                 নম্বর :  ৪৩৪৯

নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম উদ্বোধন

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :  

          নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলে গতকাল ‘ই-পাসপোর্ট’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসার সভাপতিত্বে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব মোঃ মোকাব্বির হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে ‘ই-পাসপোর্ট’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

          এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ ই-পাসপোর্ট ও স্বয়ংক্রিয় বর্ডার নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুর রহমান খান বক্তব্য রাখেন। পরে সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব ও কনসাল জেনারেল কয়েকজন আবেদনকারীকে ই-পাসপোর্টের এনরোলমেন্ট স্লিপ হস্তান্তর করেন। 

          মোঃ মোকাব্বির হোসেন পূর্বে প্রচলিত হাতে লেখা এবং মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের কিছু সীমাবদ্ধতা তুলে ধরে বলেন, ই-পাসপোর্ট বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির হওয়ায় এতে জালিয়াতির সুযোগ নেই, যার ফলে বহির্বিশ্বে এই পাসপোর্টধারীদের মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে। তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক উন্নত দেশ এখনও ই-পাসপোর্ট এর প্রচলন করতে পারেনি এবং দক্ষিণ এশিয়ার দেশসমূহের মধ্যে বাংলাদেশ প্রথম ই-পাসপোর্ট সেবা চালু করেছে। সচিব আরো বলেন, গত ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ বার্লিনে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

          অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল ই-পাসপোর্ট সেবার সূচনা করল। ই-পাসপোর্টের প্রচলন উন্নত প্রযুক্তিনির্ভর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের অন্যতম দ্রুতবর্ধনশীল অর্থনীতির একটি দেশ। তথ্যপ্রযুক্তিসহ আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অভূতপূর্ব অগ্রগতির মাধ্যমে জাতির পিতার স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুকন্যার নেতৃত্বে অদম্য গতিতে বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। 

          নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল হতে ই-পাসপোর্ট সেবা গ্রহণের জন্য https://www.epassport.gov.bd/landing লিংক এর মাধ্যমে অন-লাইনে আবেদন ফরম পূরণ করে আবেদনপত্রের কপি (বার কোডসহ) এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস সরবরাহ করতে হবে।

          অনুষ্ঠানে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, কনস্যুলেটে আগত সেবা প্রার্থী ছাড়াও দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  

          উল্লেখ্য, কনস্যুলেটে ই-পাসপোর্ট সেবার পাশাপাশি চলমান মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) এর কার্যক্রমও অব্যাহত থাকবে। 

#

সুলতানা পারভিন/মেহেদী/জুলফিকার/রফিকুল/শামীম/২০২১/১২৫৫ ঘণ্টা 

2021-09-11-13-45-02a3b1106d750025315ef3ac46c4783f.doc 2021-09-11-13-45-02a3b1106d750025315ef3ac46c4783f.doc

Share with :

Facebook Facebook