তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৮ জুলাই ২০২১

তথ্যবিবরণী ২৮ জুলাই ২০২১

তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ৩৪৯৬

 

বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. এস এ সামাদের মৃত্যুতে মন্ত্রিপরিষদ সদস্যবৃন্দের শোক

 

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :  

 

          বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. এস এ সামাদের মৃত্যুতে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীবর্গ গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

 

          পৃথক শোকবার্তায় মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীবর্গ মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।  

 

        ড. এস এ সামাদের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক;  বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান; ডাক  ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার; নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্‌মুদ চৌধুরী  এবং সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

 

#

বিবেকানন্দ/সাহেলা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/২২৪২ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৩৪৯৫

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সহযোগিতা জোরদার করতে সম্মত বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র

ওয়াশিংটন, ডিসি, (২৮ জুলাই) :

          বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র কোভিড-১৯ অতিমারি মোকাবিলায় আরো নিবিড়ভাবে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। ওয়াশিংটন ডিসিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরে গতকাল প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান এবং মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, জ্বালানি এবং পরিবেশ বিষয়ক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা মার্সিয়া বার্নিকাটের মধ্যে এক বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠকটি ২০২০ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত প্রথম বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব বৈঠকের একটি ফলোআপ।

          বৈঠকে অংশগ্রহণকারীরা দু'দেশের মধ্যে চলমান অর্থনৈতিক সহযোগিতা এবং ২০২০ সালের অংশীদারিত্ব বৈঠকে চিহ্নিত সহযোগিতার ক্ষেত্রসমূহে যেসব অগ্রগতি হয়েছে তাতে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। তারা দু’দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সরকারের মধ্যে অংশীদারিত্ব গভীরতর করার প্রয়োজনীয়তার ওপরও জোর দিয়েছেন।

          জনস্বাস্থ্যের পাশাপাশি বিশ্ব-অর্থনীতিতে কোভিড-১৯ অতিমারির বিরূপ প্রভাবগুলো বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হয়। উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান কোভ্যাক্স এর মাধ্যমে বাংলাদেশকে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ৫ দশমিক ৫ মিলিয়নেরও বেশি ডোজ সরবরাহ করার জন্য মার্কিন সরকারকে ধন্যবাদ জানান। মহামারির প্রথম দিন থেকেই কোভিড-১৯ মোকাবিলায় দু’দেশের ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার কথা স্মরণ করে  তিনি কোভিড-১৯ মোকাবিলায় ভ্যাকসিন এবং অন্যান্য মহামারি-ব্যবস্থাপনা সরঞ্জামাদির বৈশ্বিক উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর জোর দেন। এক্ষেত্রে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী সংস্থাগুলোকে বাংলাদেশের দক্ষ ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানিসমূহের সাথে অংশীদারিত্ব প্রতিষ্ঠা করতে মার্কিন সরকারের সহায়তা কামনা করেন। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ এ ধরনের অংশীদারিত্বের জন্য ফার্মাসিউটিকাল কোম্পানিসমূহের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রয়োজনীয় বিনিয়োগ করতে প্রস্তুত। রাষ্ট্রদূত বার্নিকাট দেশে কোভিড-১৯ ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন এবং বলেন, যুক্তরাষ্ট্র পিপিইর পাশাপাশি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন এবং থেরাপিউটিক্স উৎপাদন সম্প্রসারণের পরিকল্পনায় বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার দেবে।

          বৈঠকে শ্রমিকের অধিকার ও সুরক্ষা, জ্বালানি, জলবায়ু পরিবর্তন ও কৃষিক্ষেত্রে সহযোগিতা, বাংলাদেশে মার্কিন বিনিয়োগ, প্রযুক্তি স্থানান্তর এবং ঢাকা থেকে নিউইয়র্কে বিমানের সরাসরি ফ্লাইট পুনস্থাপনসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

#

সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/২২৫০ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ৩৪৯৪

নেত্রকোনায় জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে আর্থিক অনুদানের

চেক হস্তান্তর করলেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

নেত্রকোনা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

          নেত্রকোনায় বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করেছেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু ।

 

          সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী আজ নেত্রকোনা শহরের মোক্তাপাড়া এলাকার নিজ বাসায় ১২ জনের মাঝে ৫০ হাজার টাকা করে মোট ৬ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেন। ক্যান্সার, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ-সহ অন্যান্য জটিল রোগে আক্রান্তদের মাঝে এই চেক বিতরণ করা হয়।

 

          এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থাকতে দেশের একজন মানুষও বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করবে না। তিনি সারাদেশে বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত মানুষের চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তাসহ যা যা করণীয় তাই করছেন। সকলকে সততা, নিষ্ঠা, বিচক্ষণতা ও দক্ষতা দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সকল উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করতে হবে।

 

          এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজসেবার উপ-পরিচালক আলালউদ্দিন, সরকারি শিশু পরিবারের তত্ত্বাবধায়ক তারেক হোসেনসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

           #

জাকির/সাহেলা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/২১৫২ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৩৪৯৩

দেশে সরকারি খাদ্যশস্যের মজুত ১৬ দশমিক ৬৯ লাখ মেট্রিক টন

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

           দেশে সরকারি খাদ্যশস্য মজুতের রেকর্ড করতে যাচ্ছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় খাদ্য মন্ত্রণালয়ের নিরলস প্রচেষ্টায় খাদ্যশস্য মজুতের এ রেকর্ড হচ্ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

          উল্লেখ্য, দেশে সিএসডি ও এলএসডি গোডাউনে বর্তমান ধারণক্ষমতা ২১ লাখ মেট্রিক টন। চলমান অভ্যন্তরীণ বোরো সংগ্রহ অভিযানে গতকাল পর্যন্ত ৭ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন চাল, ৩ লাখ ১৫ হাজার মেট্রিক টন ধান এবং ১ লাখ ৩ হাজার মেট্রিক টন গম সংগৃহীত  হয়েছে। গত কয়েক মাসে বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়েছে প্রায় ৯ লাখ মেট্রিক টন চাল ও গম। আরো ৫ লক্ষাধিক মেট্রিক টন চাল বিদেশ থেকে আসার অপেক্ষায় রয়েছে। ১৬ আগস্ট পর্যন্ত চলবে বোরো সংগ্রহ অভিযান, এই সময়ের মধ্যে আরো ৭ লাখ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য অভ্যন্তরীণভাবে সংগ্রহের আশা করা হচ্ছে। বর্তমানে সরকারি খাদ্যগুদামে মোট মজুতের পরিমাণ ১৬ দশমিক ৬৯ লাখ মেট্রিক টন। আগস্ট শেষে এ মজুতের পরিমাণ আরো বাড়বে। ফলে সরকারি গোডাউনে খাদ্যশস্য মজুতের স্থান সংকুলান নিয়ে নতুন করে ভাবতে হবে।

          এ বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। একজন মানুষও যেন খাবারের কষ্ট না পায় সেই লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে। কৃষক যাতে ন্যায্যমূল্য পায় সেটা নিশ্চিত করার জন্য খাদ্য মন্ত্রণালয় সব সময় সচেষ্ট ছিলো।

          মন্ত্রী আরো বলেন, খাদ্য মজুত সক্ষমতা বাড়াতে ৩টি সাইলোর নির্মাণ কাজ শেষের পথে, ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধারণক্ষমতার একটি সাইলোর নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে এবং চারটির টেন্ডার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। সম্প্রতি একনেকে ৩০টি পেডি সাইলোর অনুমোদন পাওয়া গেছে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে ১৭০টি পেডি সাইলো নির্মাণের নির্দেশ দিয়েছেন। এগুলো নির্মিত হলে খাদ্যশস্য মজুত নিয়ে আর চিন্তা থাকবে না।

#

কামাল/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/২১৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৩৪৯২

বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. সৈয়দ আব্দুস সামাদের মৃত্যুতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর শোক

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

          জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রাক্তন একান্ত সচিব ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক মুখ্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. সৈয়দ আব্দুস সামাদের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

          আজ এক শোকবার্তায় মন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

#

মারুফ/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/২১১৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ৩৪৯১

 

শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস-নৈরাজ্য ছিল বিএনপি'র আমলেই

                                                ---তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

 

          বিএনপি'র আমলেই শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস-নৈরাজ্য ছিল, আওয়ামী লীগ সরকার এক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে, বলেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ ।

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় তার সরকারি বাসভবন থেকে বাংলাদেশ চার্টার্ড একাউন্টস ইনস্টিটিউট আয়োজিত সেরা অটোমেটেড আর্থিক প্রতিবেদন পুরস্কার-২০২১ অনুষ্ঠানে অনলাইনে প্রধান অতিথির বক্তৃতা শেষে   সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।  

          বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য 'সরকার দলীয়করণ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করে দিচ্ছে' এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, 'সন্ত্রাস-দলাদলির কথা যদি বলেন, শিক্ষাঙ্গনে যে কি পরিমাণ সন্ত্রাস হয়েছে, তা ছাত্রদলের দুই গ্রুপের মারামারিতে বুয়েট শিক্ষার্থী সনির মৃত্যু,  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএনপির নিয়োগ করা ভিসি'র রাতের বেলা অফিস দখল করা থেকেই বোধগম্য। মির্জা ফখরুল সাহেব যা বলেছেন, সেগুলো তাদের বেলাতেই প্রযোজ্য।' 

          প্রকৃতপক্ষে গত সাড়ে ১২ বছরে শিক্ষাঙ্গনে সেশনজট অনেক কমে গেছে, একেবারে নেই বললেই চলে আর বিএনপি-জাতীয় পার্টির আমলে চার বছরের কোর্স শেষ করতে সাত বছর লেগে যেতো, বলেন ড. হাছান মাহ্‌মুদ। 

          ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষা ব্যবস্থাও উন্নত হয়েছে। একসময় নকল করে পরীক্ষা দেয়া একটা রেওয়াজে পরিণত হয়েছিল, এখন সেটা পুরোপুরি বন্ধ হয়েছে।

          শিক্ষার্থীদেরকে দেশের ভবিষ্যৎ হিসেবে বর্ণনা করে মন্ত্রী বলেন, তারা যাতে ঠিক শিক্ষা লাভ করে ঠিক সময়ে বেরিয়ে আসতে পারে সে বিষয়ে সরকার অত্যন্ত যত্নবান এবং এ বিষয়ে অনেক সফলতা এসেছে।

          এর আগে চার্টার্ড একাউন্টস ইনস্টিটিউটের অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, আর্থিক প্রতিবেদনে অটোমেশন পদ্ধতি চতুর্থ শিল্পবিপ্লবে দেশকে এগিয়ে নিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট মাহমুদুল হাসান খসরুর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী সাবেক সিনিয়র সচিব শুভাশিস বোস অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। 

#

আকরাম/সাহেলা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/২১০৬ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৩৪৯০

করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার

পাশাপাশি ভ্যাকসিন প্রদানকে সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে

                                                        -- প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

রৌমারী (কুড়িগ্রাম), ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

          প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন বলেছেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলার পাশাপাশি ভ্যাকসিন প্রদানকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার প্রদান করেছে। দেশে বর্তমানে ভ্যাকসিনের কোনো সঙ্কট নেই, মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে চূড়ান্ত করা হয়েছে ভ্যাকসিন রোডম্যাপ। সরকার আগামী ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়নে করোনার টিকাদান কেন্দ্র খোলার এবং ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত টিকা প্রদান সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

          আজ কুড়িগ্রাম জেলার নিজ নির্বাচনি এলাকা রৌমারীতে কোভিড-১৯ স্বাস্থ্যসেবা সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ এখনো করোনা টিকাদান কর্মসূচির আওতায় আসেনি। প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শীতার কারণে দেশে টিকাদান কর্মসূচি মহামারির প্রথম থেকেই শুরু হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ করোনা টিকা আনা শুরু হয়েছে এবং অচিরেই অধিকাংশ মানুষকে টিকা দেওয়া সম্ভব হবে। তিনি আরো বলেন, দেশের অন্যান্য এলাকার তুলনায় রৌমারী-রাজিবপুর-চিলমারী এলাকায় করোনার প্রাদুর্ভাব কম। করোনাভাইরাস সমূলে নির্মূল করার লক্ষ্যে প্রতিমন্ত্রী এ এলাকার জনগণকে সরকার ঘোষিত স্বাস্থবিধি মেনে চলা এবং প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে না যাওয়ার আহ্বান জানান।

          কোভিড-১৯ স্বাস্থ্যসেবা সমন্বয় সভায় রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  মোঃ আল ইমরানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল্লাহ ও ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ মোজাফফর হোসেন,  রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম এবং সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

#

রবীন্দ্রনাথ/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/২১১০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ৩৪৮৯

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

 

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫৩ হাজার ৮৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৬ হাজার ২৩০ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১২ লাখ ১০ হাজার ৯৮২ জন। 

 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩৭ জন-সহ এ পর্যন্ত ২০ হাজার ১৬ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১০ লাখ ৩৫ হাজার ৮৮৪ জন।

#

ফেরদৌস/সাহেলা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/২০৩৪ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                 নম্বর : ৩৪৮৮

গ্রাহকসেবাসমৃদ্ধ প্রকল্প গ্রহণ করে দ্রুত বাস্তবায়নের কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে

                                                                           -- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

          বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, গ্রাহকসেবাসমৃদ্ধ প্রকল্প গ্রহণ করে দ্রুত বাস্তবায়নের কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার মাঝে সমন্বয় করে প্রকল্প গ্রহণ করা উচিত। রোডম্যাপ অনুসারে প্রকল্প বাস্তবায়নে তদারকি বাড়ানো প্রয়োজন।

          প্রতিমন্ত্রী আজ অনলাইনে ‘বিদ্যুৎ বিভাগের উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের জুলাই ২০২০ থেকে জুন ২০২১ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা’ সভায় সভাপতিত্বকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় বিদ্যুৎ বিভাগ এবং জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের অগ্রগতি সন্তোষজনক। মে মাসেই যেন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়-এই রোড ম্যাপ বাস্তবায়ন করতে প্রকল্পসংশ্লিষ্টদের আন্তরিক হয়ে কাজ করা  প্রয়োজন। এডিপি বাস্তবায়নে আরএডিপি বরাদ্দের শতভাগ ও সর্বোচ্চ বাস্তবায়নের জন্য সংস্থা প্রধানসহ সকল প্রকল্প পরিচালককে জোরালো প্রচেষ্টা গ্রহণ করতে হবে।

          বিদ্যুৎ বিভাগে ২০২০-২১ অর্থ বছরের আরএডিপিতে ২৪ হাজার ৭৬৮ দশমিক ২২ কোটি টাকা (জিওবিতে ১০ হাজার ৮০০ দশমিক ১৮ কোটি, পিএ খাতে ১২ হাজার ৯৫৯ দশমিক ৯৯ কোটি ও নিজস্ব অর্থায়নে ১ হাজার ৮ দশমিক ৫ কোটি টাকা) বরাদ্দ ছিল। অর্থ বিভাগ কর্তৃক নির্ধারিত ব্যয়মীসা জিওবিতে ৯ হাজার ৬৪৫ দশমিক ১৭ কোটি, পিএ খাতে ১২ হাজার ৯৫৯ দশমিক ৯৯ কোটি ও নিজস্ব অর্থায়নে ১ হাজার ৮ দশমিক  শূন্য ৫ কোটি অর্থাৎ মোট ২৩ হাজার ৬১৩ দশমিক ২১ কোটি টাকা নির্ধারিত ছিল। জুন ২০২১ পর্যন্ত ব্যয়  জিওবিতে ৯ হাজার ৪৯৩ দশমিক  শূন্য ৪ কোটি, পিএ খাতে ১২ হাজার ৭৭২ দশমিক ৪৫ কোটি ও নিজস্ব অর্থায়নে ৮১৪ দশমিক ১৪ কোটি অর্থাৎ মোট ২৩ হাজার ৭৯ দশমিক ৬০ কোটি টাকা। আরএডিপি বরাদ্দ অনুযায়ী জুন ২০২১ পর্যন্ত ব্যয়ের শতকরা হার ৯৩ দশমিক ১৮ ভাগ আর সিলিং অনুযায়ী জুন ২০২১ পর্যন্ত ব্যয়ের শতকরা হার ৯৭ দশমিক ৭৪ ভাগ। অর্থাৎ আর্থিক অগ্রগতি ৯৭ দশমিক ৭৪ ভাগ। বিদ্যুৎ বিভাগ ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট ৯৭ টি (বিনিয়োগ ৮২টি, পিএ ১০ টি ও নিজস্ব অর্থায়নে ৫ টি) প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

          সভায় বিদ্যুৎ সচিব মোঃ হাবিবুর রহমান, পিডিবির চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন, আরইবির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অবঃ), পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেনসহ অন্যান্য দপ্তর প্রধানগণ সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন।

          জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগে ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট ৩০টি (জিওবি ও বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট ৮টি,  নিজস্ব অর্থায়নে ১৬ টি ও জিডিএফ (গ্যাস উন্নয়ন তহবিল) ৬টি) প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থ বছরের জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগে আরএডিপি বরাদ্দ ছিল ২ হাজার ৯৫৮ দশমিক ৪৬ কোটি টাকা কিন্তু ব্যয় করা হয়েছে ৩ হাজার ৮৪ দশমিক ৭৩ কোটি টাকা। অর্থাৎ আর্থিক অগ্রগতি ১০৪ দশমিক ২৭ ভাগ।  যদিও আরএডিপি অনুমোদনের পর আরো ১১টি প্রকল্প অনুমোদিত হয়েছে। আজ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ আনিছুর রহমানের সভাপতিত্বে ‘জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের আওতাধীন ২০২০-২১ অর্থ বছরের আরএডিপিতে জিওবি ও বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট, সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন এবং গ্যাস উন্নয়ন তহবিলভুক্ত প্রকল্পসমূহের জুন ২০২১ পর্যন্ত  বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা’ সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

#

আসলাম/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/২০১৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর : ৩৪৮৭

চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় করোনায় কর্মহীন জনগোষ্ঠীর মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

          চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন জেলায় করোনায় কর্মহীন, অসহায় ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে সরকারি ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

          কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আজ সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে করোনায় কর্মহীন ১৪৫টি অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। ত্রাণসামগ্রী হিসেবে প্রতি প্যাকেটে ছিল চাল, আলু, ডাল, লবণ, তেল সহ সর্বমোট ১০কেজি খাদ্যদ্রব্য। এছাড়া কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন উপজেলায় অনুরূপ ৭৮টি প্যাকেটসহ জেলায় সর্বমোট ২২৩টি অসহায় পরিবারের মাঝে ২২৩ প্যাকেট ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

          লক্ষ্মীপুর জেলায় আজ জেলা প্রশাসন কর্তৃক প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১১৮টি পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। খাদ্যসামগ্রী হিসেবে প্রতি পরিবারকে ১০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি চিনি,

১  কেজি লবণ ও ১ লিটার সয়াবিন তেল প্রদান করা হয়।  

          রাঙামাটি জেলার সদর উপজেলার উদ্যোগে মগবান, সাপছড়ি ও কুতুকছড়ি ইউনিয়নে ১ হাজার ১৮ টি দুস্থ জেলে পরিবারের মাঝে ২০ কেজি হারে চাল বিতরণ করা হয়।

#

ফয়সল/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/২০১০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪৮৬

ঢাকা বিভাগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

 

          করোনা ভাইরাস মহামারির প্রেক্ষিতে মানবিক সহায়তা হিসেবে  সরকারের পক্ষ হতে দেশব্যাপী ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। গতকাল ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় এ কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে।

 

          নরসিংদী  জেলায় ত্রাণ হিসেবে ১০৫ দশমিক ৫০০  মেট্রিকটন চাল এবং  ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ১ হাজার ৩৭৬ দশমিক ৫৯০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৯২৩টি পরিবার ও ৪ হাজার ৬১৫ জনকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। 

 

          গোপালগঞ্জ জেলায় ত্রাণ হিসেবে ১০ লাখ টাকা নগদ এবং ৮৯ হাজার ৮৪০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ৮৯৩ দশমিক ৬৩ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। ২ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার এবং ৩৩৩ কলের এর মাধ্যমে ১ হাজার ৮৫৫ টি পরিবার ও ৮৩৪৭ জনকে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। 

 

          শরীয়তপুর জেলায় ১৪৫ টি পরিবারকে ৫০০ টাকা হারে এবং ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৪টি পরিবার এবং ৪ জনকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।  

 

          মুন্সিগঞ্জ  জেলায় ত্রাণ হিসেবে ৫ লাখ টাকা নগদ এবং ১০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া, ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ৬ লাখ ২৩ হাজার ১৫০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৩৭টি পরিবার ও ১৪৮  জনকে ত্রাণ সহায়তা প্রদান  করা হয়। 

 

          ফরিদপুর জেলায়  ত্রাণ হিসেবে ৯ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয় এবং ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৫টি পরিবার ও ২০ জনকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

 

          কিশোরগঞ্জ জেলায় ত্রাণ হিসেবে নগদ ১ লাখ টাকা এবং ১০ হাজার মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে ১ হাজার ১০০ দশমিক ৩১০  মেট্রিক টন চাল এবং ৩৩৩ কলের মাধ্যমে ৪৮২টি পরিবার এবং ২ হাজার ৪১০ জন লোককে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। 

 

          সংশ্লিষ্ট  জেলার  জেলা তথ্য অফিসসমূহ ঢাকা বিভাগীয়  তথ্য অফিসের মাধ্যমে  এসব তথ্য জানিয়েছে।

#

আনোয়ার/সাহেলা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২১/১৯৪৪ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর : ৩৪৮৫

শৈশব থেকেই শিশুদের প্রোগ্রামিং শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে

                                                       -- ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

          বর্তমান পৃথিবীতে সবচেয়ে বড় শক্তির নাম হচ্ছে ডিজিটাল শক্তি। শিশুদের শিক্ষা থেকে ব্যবসা-বাণিজ্যসহ মানুষের প্রাত্যহিক জীবনযাপনের জন্য আজ এটি অপরিহার্য, বলেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, ডিজিটাল যুগের উপযোগী মানবসম্পদ তৈরির জন্য শৈশব থেকেই শিশুদের প্রোগ্রামিং ও ম্যাথ শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। ডিজিটাল যুগের উপযোগী হিসেবে  নতুন প্রজন্মকে তৈরি করতে না পারলে তারা যুগের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারবে না বলে তিনি উল্লেখ করেন।

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় তার কার্যালয় থেকে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল আয়োজিত হ্যাকাথন উৎসব ২০২১ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

          নতুন প্রজন্ম অত্যন্ত মেধাবী তারাই ডিজিটাল যুগের নেতৃত্ব দিবে এবং তারাই ডিজিটাল প্রযুক্তি উদ্ভাবন করবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দেশের ছেলে মেয়েরা রোবট বানাচ্ছে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিকাশ ঘটছে। দেশ এখন ইন্টারনেট অভ্ থিংস (আইওটি) যুগে প্রবেশ করছে। ব্লকচেইন প্রযুক্তিও এখন সময়ের ব্যাপার যা দিয়ে অপারেটর ছাড়াই কথা বলা যাবে। প্রযুক্তি প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল, এর পর বিস্ময়কর কী প্রযুক্তি আসে বলা কঠিন বলে মন্তব্য করেন কম্পিউটারে বাংলাভাষার উদ্ভাবক মোস্তাফা জব্বার। নতুন প্রজন্ম এই ডিজিটাল যুগে বসবাস করবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরে শিক্ষায় আমূল রূপান্তর হয়েছে। শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তরের মাধ্যমে এই প্রজন্মকে গড়ে তোলার এখন সময় এসেছে। তিনি কাগজের বইয়ের চেয়ে ডিজিটাল পাঠ্যক্রম অত্যন্ত কার্যকর একটি উপায় উল্লেখ করে বলেন, শিক্ষার্থী তার ডিভাইস থেকে ডিজিটাল কন্টেন্টের মাধ্যমে সহজে শিক্ষা গ্রহণে সক্ষম। কম্পিউটার ডিভাইস বিকাশের অগ্রদূত মোস্তাফা জব্বার শিক্ষার ডিজিটাল কন্টেন্টের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে বলেন, ডিজিটাল কন্টেন্ট মানে পাওয়ার পয়েন্ট না। উন্নত দেশগুলোর শিক্ষার ডিজিটাল কন্টেন্টের দৃষ্টান্ত তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, একটি এন্ড্রয়েড টিভি ও পেনড্রাইভে রাখা ডিজিটাল কন্টেন্ট দিয়ে সহজে শ্রেণিকক্ষ ডিজিটাল করা সম্ভব। ৬৫০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষা চালু করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ৫৮৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফ্রি ওয়াইফাই জোন করা হয়েছে এবং ১২ হাজারেরও বেশি ফ্রি ওয়াইফাই জোন করার কাজ চলছে। কোভিডকালে দেশের প্রত্যন্ত জনগোষ্ঠীর নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট  নিশ্চিত করতে শতভাগ বিটিএস ফোর-জি নেটওয়ার্ক এর আওতায় আনা হয়েছে।

           প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান আশরাফুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কম্পিউটার সোস্যাইটির ভাইস প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক রেজাউল করিম অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন।

#

শেফায়েত/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/১৯১০ঘণ্টা


তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৩৪৮৪

খুলনা বিভাগে করোনাকালীন অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

ঢাকা, ১৩ শ্রাবণ (২৮ জুলাই) :

           কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান কঠোর লকডাউনের মধ্যে আজ খুলনা বিভাগের কুষ্টিয়া ও মাগুরা জেলায় অসহায়, কর্মহীন ও বিভিন্ন শ্রেণির প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে সরকারি ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

          কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আজ ১ হাজার ১৫০ টি উপকারভোগী পরিবারের মাঝে ১১ দশমিক ৫০ মেট্রিক টন চাল এবং ৩ শত ৫০টি উপকারভোগী পরিবারের মাঝে নগদ ১ লাখ ৯২ হাজার ৫০০ টাকা ত্রাণ হিসেবে বিতরণ করা হয়।

          মাগুরা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আজ স্থানীয়ভাবে ১৮১ টি উপকারভোগী পরিবারের মধ্যে ত্রাণ হিসেবে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

          বিভাগের অন্যান্য জেলায় অনুরূপ ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

#

দীপংকর/সাহেলা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২১/১৮১৫ঘণ্টাতথ্যবিবরণী           

                              &

2021-07-28-16-55-3d9852a0edf3ddab44a80d55a0c1e10c.doc 2021-07-28-16-55-3d9852a0edf3ddab44a80d55a0c1e10c.doc

Share with :

Facebook Facebook