তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩১st মে ২০১৫

তথ্যবিবরণী 31/05/2015

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৫৮৭

ক্রীড়া সংগঠক সিরাজুল ইসলাম বাচ্চুর
মৃত্যুতে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীর শোক

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :
    বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও প্রবীণ ক্রীড়া সংগঠক সিরাজুল ইসলাম বাচ্চুর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন  যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার এবং যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়।
    পৃথক শোকবার্তায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী বলেন, সিরাজুল ইসলাম বাচ্চুর মৃত্যুতে বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গণে অপূরণীয় ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তাঁরা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।
#

শফিকুল/সাইফুল্লাহ/জয়নুল/২০১৫/২১০০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ১৫৮৬

দৈনিক সমকালের একাদশ বর্ষে পদার্পণ অনুষ্ঠানে স্পিকার

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :
স্পিকার এবং সিপিএ চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় জনমত সৃষ্টিতে দৈনিক সমকাল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে এধারা অব্যাহত রেখে অদূর ভবিষ্যতে সমকাল আরো এগিয়ে যাবে।
স্পিকার আজ ঢাকায় সমকাল ভবনে দৈনিক সমকালের ১১তম বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে একথা বলেন।
স্পিকার দৈনিক সমকালের শুভ কামনা করে বলেন, দৈনিক সমকাল তার অগ্রযাত্রার ধারাবাহিকতা রক্ষা করে এগিয়ে চলেছে এবং জনগণের কল্যাণে আরো বেশি ভূমিকা পালন করবে।
স্পিকার সমকাল ভবনে পৌঁছলে সমকাল পত্রিকার সম্পাদক ও অন্যান্য কর্মকর্তারা তাঁকে স্বাগত জানান। পরে তিনি দৈনিক সমকালের ১১তম বছরে পদার্পণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন।
এসময় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাইদ খোকন, এ কে আজাদ চৌধুরী, দৈনিক সমকালের সম্পাদক মোঃ গোলাম সরওয়ারসহ সমকাল পরিবারের সদস্যবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

#

হুদা/সাইফুল্লাহ/নবী/জসীম/জয়নুল/২০১৫/২১০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ১৫৮৫

বিভাগীয় কমিশনারদের সাথে বৈঠকে ভূমিমন্ত্রী
গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের মাধ্যমে একান্ন হাজার গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসন করা হবে

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :
ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেছেন, একান্ন হাজার গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসন করবে সরকার। তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের মাধ্যমে ভূমি মন্ত্রণালয় এ পরিবারগুলোকে পুনর্বাসন করবে।
মন্ত্রী আজ ভূমি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বিভাগীয় কমিশনারগণের সাথে মাসিক সমন্বয় সভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন।
ভূমিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত অগ্রাধিকার কাজের মধ্যে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের পুনর্বাসনকে গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি বলেন, দেশের দারিদ্র্যবিমোচনে ভূমি ও গৃহহীনদের মাঝে খাসজমি বন্দোবস্ত ও গুচ্ছগ্রাম নির্মাণসহ তাদের পুনর্বাসন করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের অন্যতম লক্ষ্য। গৃহহীনদের পুনর্বাসন কাজ সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়িত হচ্ছে কী না এ বিষয়ে প্রশাসনকে সতর্ক থাকারও নির্দেশ দেন মন্ত্রী।
ভূমিমন্ত্রী বলেন, জনদুর্ভোগ, ভোগান্তি ও দুর্নীতি রোধে দেশের ভূমি ব্যবস্থাপনাকে ডিজিটালাইজড করার মহাপরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে ভূমি ব্যবস্থাপনাকে আধুনিকায়ন করার জন্য সংশিষ্ট বিভাগীয় কমিশনারদের জোর তাগিদ দিয়েছেন। নদীতে জেগে ওঠা চরগুলোতে চর্চা ম্যাপ অথবা দিয়ারা জরিপের মাধ্যমে বন্দোবস্ত প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন তিনি।
    সভায় অন্যান্যের মধ্যে ভূমি আপীল বোর্ডের চেয়ারম্যান আবদুর রব হাওলাদার, ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান, ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ময়েজ্জদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব প্রশাসন আকরাম হোসেন, অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) পুন্যব্রত চৌধুরী ও বিভাগীয় কমিশনারগণ উপস্থিত ছিলেন।
#


রেজুয়ান/সাইফুল্লাহ/নবী/জসীম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৫/২১০৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৮৪

মানসের অনুষ্ঠানে স্পিকার
ধূমপান প্রতিরোধে আইনের সঠিক বাস্তবায়ন করতে হবে

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :

    জাতীয় সংসদের স্পিকার এবং কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন সিপিএ’র নির্বাহী কমিটি’র চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ধূমপান প্রতিরোধে শুধু আইন প্রণয়ন নয় বরং আইনের সঠিক বাস্তবায়ন করতে হবে।

    স্পিকার আজ বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস-২০১৫ উপলক্ষে মাদকদ্রব্য ও নেশা নিরোধ সংস্থা (মানস) আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

    স্পিকার বলেন, ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার ও নিয়ন্ত্রণে জাতীয় সংসদে আইন পাশ হয়েছে। কিন্তু শুধু আইন নয়, আইনের সঠিক বাস্তবায়নের মাধ্যমেই ধূমপান ও তামাকমুক্ত সমাজ গড়ে তোলা সম্ভব । এলক্ষ্যে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সরকারের পাশাপাশি দলমত নির্বিশেষে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে।  আইন প্রণয়ন ও বাস্তবায়নসহ জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সংসদ সদস্যরাও এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

    মাদকদ্রব্য ও নেশা নিরোধ সংস্থা (মানস)'র সভাপতি অধ্যাপক ড. অরুপ রতন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বাংলা একাডেমির সভাপতি প্রফেসর অ্যামিরেটাস ড. আনিসুজ্জামান এবং আশা ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. ডালেম চন্দ্র বর্মন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

#

শিবলী/সাইফুল্লাহ/রফিকুল/রেজাউল/২০১৫/২০১৬ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৮৩

জাতীয় পল্লিউন্নয়ন পদক
২০১৩ সালের “পল্লিউন্নয়নে সফল নেতৃত্বদান” ক্যাটাগরি বাতিলের সিদ্ধান্ত

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :

জাতীয় পল্লিউন্নয়ন পদক প্রদানে দশটি ক্যাটাগরির মধ্যে ২০১৩ সালের জন্য ‘পল্লিউন্নয়নে সফল নেতৃত্বদান’ ক্যাটাগরিতে নির্বাচন যথাযথ না হওয়ায় তা বাতিলের  সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আজ পল্লিউন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সম্মেলনকক্ষে জাতীয় পল্লিউন্নয়ন পদক ২০১৩ চূড়ান্তকরণ সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা এতে সভাপতিত্ব করেন।

এ সময় বিভাগের সচিব এম এ কাদের সরকারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, জাতীয় পল্লিউন্নয়ন পদক নীতিমালা, ২০১২ এর আলোকে ২০১৩ সালের জন্য পদক প্রদান চূড়ান্তকরণে দেশের বিভিন্ন এলাকায় দশটি ক্যাটাগরিতে সফল ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, সমিতি ও সংগঠনকে প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত করা হয়েছে।

এসবের মধ্যে রয়েছে ঃ পল্লি সফল উদ্যোগ, পল্লি সংগঠনভিত্তিক ক্ষুদ্রঋণের সফল ব্যবহার, পল্লিউন্নয়নে নবায়ণযোগ্য শক্তির ব্যবহার এবং পরিবেশ সুরক্ষায় অবদান, দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টি ও ব্যবহার, স্থানীয়ভাবে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বাজারজাতকরণ, সংগঠনভিত্তিক মাইক্রো সেভিং এর অনুশীলন বৃদ্ধিকরণ ও পুঁজিগঠন, নারীউন্নয়নে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ, পল্লিউন্নয়ন ও প্রায়োগিক গবেষণায় বিশেষ অবদান, কর্মকর্তা-কর্মচারী কর্তৃক ব্যতিক্রমধর্মী উল্লেখযোগ্য ও অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন এবং পল্লিউন্নয়নে সফল নেতৃত্ব দান।

এর মধ্যে ২০১৩ সালের ‘পল্লিউন্নয়নে সফল নেতৃত্বদান’ ক্যাটাগরিতে নির্বাচন যথাযথ না হওয়ায় বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়।

প্রতিমন্ত্রী পল্লিউন্নয়ন পদক প্রদানে তৃণমূলপর্যায়ে আরো সচেতন ও সতর্ক থাকার জন্য মাঠপর্যায়ে কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান। এ ব্যাপারে পল্লিউন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের পক্ষ থেকে নিয়মিত তদারকি করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
#

আহসান/সাইফুল্লাহ/নবী/রফিকুল/রেজাউল/২০১৫/২০০৫ ঘণ্টা

 
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৮২

আমদানি রপ্তানি সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় বাণিজ্যিমন্ত্রী
আসন্ন রমজানে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল থাকবে

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :
    বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বর্তমান ব্যবসাবান্ধব সরকার ব্যবসায়ীদের পরামর্শ নিয়ে আগামী তিন বছরের জন্য একটি সময়োপযোগী আমদানি ও রপ্তানি নীতি তৈরি করবে।
    মন্ত্রী আজ প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত আমদানি নীতি আদেশ ২০১৫-১৮ এবং রপ্তানি নীতি ২০১৫-১৮ প্রণয়নের বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্বকালে একথা বলেন।
    মতবিনিময় সভায় বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, বিজিএমইএ’র সভাপতি মোঃ আতিকুল আলমসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও আমদানি ও রপ্তানিকারকগণ মতামত প্রদান করেন।
    মন্ত্রী বলেন, সরকার ৬ষ্ঠ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা মোতাবেক দেশের রপ্তানি পণ্যের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। প্রতিবছর দেশের রপ্তানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকার দেশের রপ্তানি আরো বৃদ্ধির জন্য তথ্যপ্রযুক্তি, ঔষধ, জাহাজ, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য এবং ফার্নিচার রপ্তানির বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এ সকল ক্ষেত্রে রপ্তানি বৃদ্ধির জন্য রপ্তানিকারকদের চাহিদা মোতাবেক সকল সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। মন্ত্রী বলেন, দেশের ৫০ বছর পূর্তিতে আগামী ২০২১ সালে দেশকে একটি মধ্যমআয়ের দেশ হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
    তোফায়েল আহমেদ বলেন, অপ্রত্যাশিত রানা প্লাজা দুর্ঘটনার বাংলাদেশের তৈরিপোশাকখাত ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আন্তর্জাতিক চাপের মুখে দক্ষতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবিলা করে বিশ্ববাজারে মাথা উচুঁ করে দাড়িঁয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের তৈরিপোশাকখাত এখন একটি শক্ত ভিত্তির উপর দাঁড়িয়েছে। এখন এ খাতের শ্রমিকরা উপযুক্ত মজুরি পাচ্ছে। শিল্প কারখানায় কর্মবান্ধব পরিবেশ বিরাজ করছে। তৈরিপোশাকখাতের সংগঠন বিজিএমইএ দেশের ৫০ বছর পূর্তিতে ২০২১ সালে ৫০ বিলিয়ন ডলারের তৈরিপোশাক রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে কাজ করে যাচ্ছে।
    মন্ত্রী বলেন, ব্যবসায়ীদের আন্তরিক সহযোগিতায় সরকার নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে সক্ষম হয়েছে। আসন্ন পবিত্র রমজান মাসসহ আগামী দিনগুলোতেও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল ও সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকবে।
#

বকসী/সাইফুল্লাহ/রফিকুল/রেজাউল/২০১৫/১৯১৬ ঘণ্টা

 
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৫৮১

জাতীয় ইএনটি হাসপাতাল আকস্মিক পরিদর্শনে স¦াস্থ্যমন্ত্রী
অননুমোদিত অনুপস্থিতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :
রাজধানীর তেজগাঁও-এ জাতীয় নাক কান গলা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল আকস্মিক পরিদর্শনকালে অধিকাংশ চিকিৎসক, নার্স, কর্মকর্তা, কর্মচারীকে না পেয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
তিনি আজ হাসপাতালে গিয়ে দেখেন অভ্যর্থনা কক্ষে কেউ নেই। একজন নার্স ব্যতীত অন্যরা অনুপস্থিত। এসময় হাসপাতালের পরিচালক ছাড়া অধিকাংশদেরকে পাওয়া যায়নি।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসময় হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ড ঘুরে দেখেন কাগজে কলমে ২৮ জন রোগী ভর্তি দেখালেও বাস্তবে ২০ জন ভর্তি আছে। তিনি হাসপাতালের এই অব্যবস্থাপনা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে পরিচালক ডা. জাহেদুল আলমকে অনুপস্থিতদের বিরুদ্ধে কারণ দর্শাও নোটিশ প্রদান করে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। অন্যথায় তাঁকেও অপসারণ করা হবে বলে জানিয়ে দেন মন্ত্রী।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বর্তমান সরকারের সময়ে এরকম সুন্দর ও অত্যাধুনিক বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণ করে জনগণের জন্য বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে কতিপয় কর্মকর্তা কর্মচারীর গাফিলতিতে তা ভেস্তে যেতে দেওয়া হবে না। তিনি এই হাসপাতাল সম্পর্কে জনগণের মাঝে আরো প্রচারণা বাড়িয়ে একটি উন্নত ব্যবস্থাপনা গড়ে রোগীবান্ধব ও চিকিৎসা উপযোগী পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য পরিচালককে নির্দেশ প্রদান করেন।
 স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোঃ নূরুল হক, পরিচালক (হাসপাতাল) অধ্যাপক ডা. শামিউল ইসলাম এবং বিএমএ মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।
#


পরীক্ষিৎ/সাইফুল্লাহ/নবী/জসীম/জয়নুল/২০১৫/১৯৫০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৮০

জিএসপি অটোমেশন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী
রপ্তানিকারকগণ কম সময়ের মধ্যে সেবা পাবেন
ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :

    বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, রপ্তানির ক্ষেত্রে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো থেকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে জিএসপি সার্টিফিকেট ইস্যু চালু করায় নতুন দিগন্তের সূচনা হলো। জিএসপি অটোমেশন চালুর ফলে এখন রপ্তানিকারকগণ অল্পসময়ের মধ্যে আধুনিক পদ্ধতিতে জিএসপি সার্টিফিকেট পাবেন। এতে রপ্তানিবাণিজ্য আরো সহজ হলো।

    মন্ত্রী আজ ঢাকা প্যানপ্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো আয়োজিত রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর বস্ত্রসেলে জিএসপি অটোমেশন-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
    
    রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান শুভাশীষ বসুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জোনায়েদ আহমেদ পলক, জাতীয় সংসদের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ তাজুল ইসলাম চৌধুরী, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের প্রতিনিধি মারিও রনকোনি।

    মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন। রপ্তানির ক্ষেত্রে জিএসপি অটোমেশন চালুর ফলে দেশ আরো একধাপ এগিয়ে গেলো।

    মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের পণ্যরপ্তানির ক্ষেত্রে রপ্তানিউন্নয়ন ব্যুরো কর্তৃক জিএসপি অটোমেশন চালুর ফলে অনেক জটিলতা দূর হবে এবং রপ্তানিকারকগণ কম সময়ের মধ্যে সেবা পাবেন।

#

বকসী/সাইফুল্লাহ/আলম/জসীম/রেজাউল/২০১৫/১৮৫০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ১৫৭৯

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ
প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের চূড়ান্ত পর্বের খেলার উদ্বোধনীতে গণশিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :
    বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৪ এবং বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৪ জাতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত পর্বের উদ্বোধনী খেলা আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।
    বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রথম খেলা রংপুর বিভাগের ১নং পালিচড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় , সদর ,রংপুর ও সিলেট বিভাগের সৈয়দ আরজুমন্দ আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সদর, সিলেট এর মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়েছে। খেলায় পালিচড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সৈয়দ আরজুমন্দ আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ৩-২ গোলে পরাজিত করে সেমিফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।
    প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান চূড়ান্ত পর্যায়ের খেলা উদ্বোধন করেন। এসময় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মেছবাউল আলমসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরে মন্ত্রী বিজয়ী ও রানার আপ দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।
অন্যদিকে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টে প্রথম খেলায় ট্রাইবেকারে চট্টগ্রাম বিভাগের ফৈয়জুন্নেছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পেকুয়া, কক্সবাজার ঢাকা বিভাগের দক্ষিণ শীলমন্দির সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সদর, নরসিংদীকে ৪-৩ গোলে পরাজিত করে সেমিফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।
 প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মেছবাহউল আলম এ খেলায় প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও বিজিতদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।
#


রবীন্দ্রনাথ/সাইফুল্লাহ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৫/১৮৪৫ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৭৮

ধূমপানের বিরুদ্ধে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য সমাজের
সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :  

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ধূমপানের বিরুদ্ধে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। বিশেষ করে তরুণ সমাজকে ধূমপান থেকে বিরত রাখতে অভিভাবকদের সজাগ থাকার পরামর্শ দেন তিনি।
 
স্বাস্থ্যমন্ত্রী আজ রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিশ্ব তামাক মুক্ত দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। দিবসটি পালনে এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘তামাকজাত পণ্যের অবৈধ ব্যবসা বন্ধ কর’।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সচিব সৈয়দ মনজুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হক, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নূর হোসেন তালুকদার, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

রোগীদের ধূমপান না করার পরামর্শ দিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানান মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, চিকিৎসক রোগী দেখার সময়ে বলবেন, তারা যদি ধূমপান করে তাহলে তাদের সেবা দেওয়া হবে না। চিকিৎসকদের এই ধরনের সতর্ক বার্তা সাধারণ মানুষের মধ্যে ধূমপান ভীতি গড়ে উঠতে সাহায্য করবে।  
 
তিনি আরো বলেন, আসুন তামাক মুক্ত বিশ্ব গড়ে তুলতে আমরা সবাই এক সাথে কাজ করি। ধূমপানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলি। যাতে করে তরুণ সমাজ ধ্বংসের পথে না যায়। একটি সুন্দর প্রজন্ম গড়ে তুলতে তামাকের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাদকবিরোধী প্রচারণায় বিশেষ অবদানের জন্য একটি করে সরকারি প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, এনজিও  ও একজন সুশীল সমাজের প্রতিনিধিকে সম্মাননা প্রদান করেন।

#
পরীক্ষিৎ/মোহাম্মদ আলী/অনসূয়া/খাদীজা/শুকলা/লাভলী/২০১৫/১৬৩০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৭৭

ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেল বিক্রয়ে সংশ্লি¬ষ্ট সবাইকে বাধ্য করা হবে
                                                                   - শিল্পমন্ত্রী  

ঢাকা, ১৭ জ্যৈষ্ঠ (৩১ মে) :

    জনস্বার্থে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেল বিক্রয়ে সংশ্লি¬ষ্ট সবাইকে বাধ্য করা হবে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। তিনি বলেন, শিশু ও গর্ভবতী মহিলাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় “ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ আইন-২০১৩” এর আওতায় কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে। তিনি এ আইন মেনে চলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেল বাজারজাত করতে রিফাইনারি মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান।  

    শিল্পমন্ত্রী আজ জাতীয় পর্যায়ে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেলের ব্যবহার বৃদ্ধির লক্ষ্যে উদ্বুদ্ধকরণ ও জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য আয়োজিত র‌্যালি পরবর্তী সমাবেশে বক্তৃতাকালে একথা বলেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাস্তবায়নাধীন ‘ফর্টিফিকেশন অভ্ এডিবল অয়েল ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে এ র‌্যালির আয়োজন করা হয়।  

শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশে সুস্থ সবল ও মেধাবী জনগোষ্ঠী গড়ে তোলার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার ইউনিসেফ এবং গেইন (গ্লে¬াবাল অ্যালায়েন্স ফর ইম্প্রুভড নিউট্রেশন/এঅওঘ) এর সহায়তায় ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এজন্য ইতোমধ্যে “ভোজ্য তেলে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ আইন-২০১৩” পাস করা হয়েছে। এরপরও একটি মহল আইনের মারপ্যাঁচে এ কর্মসূচিকে বাধাগ্রস্থ করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল। উচ্চ আদালতের রায়ের ফলে এখন থেকে বাধ্যতামূলকভাবে ভোজ্য তেল ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ করতে হবে। এ মহতী উদ্যোগ বাস্তবায়নে তিনি রিফাইনারি মালিকদের সহায়তা কামনা করেন।  

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে শিল্পসচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি এবং প্রকল্প পরিচালক ও মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম প্রধান মো. লুৎফর রহমান তরফদার বক্তব্য রাখেন।

এর আগে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্য তেলের ব্যবহারে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে সকালে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়।  এটি শিল্প মন্ত্রণালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে বক চত্ত্বর ও দিলকুশা ঘুরে মন্ত্রণালয়ে এসে শেষ হয়। এতে শিল্পসচিবসহ মন্ত্রণালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারি, রিফাইনারি মালিক, কর্মকর্তা ও শ্রমিকরা অংশ নেন।

#

জলিল/মোহাম্মদ আলী/অনসূয়া/খাদীজা/শুকলা/লাভলী/২০১৫/১৪০০ ঘণ্টা  

 

Todays handout (5).doc Todays handout (5).doc

Share with :

Facebook Facebook