তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৮ মে ২০১৫

তথ্যবিবরণী 28/5/2015

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৫৬৬

দেশকে এগিয়ে নিতে কৃষি আধুনিকায়নের বিকল্প নেই
                                   -- এলজিআরডি মন্ত্রী

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :
এলজিআরডি ও সমবায় মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, কৃষিনির্ভর বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি হচ্ছে কৃষি। দেশকে এগিয়ে নিতে কৃষির আধুনিকায়ন ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।
মন্ত্রী আজ ঢাকার বারিধারায় বসুন্ধরা কনভেনশন হলে পল্লিউন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের অধীন পল্লিউন্নয়ন একাডেমি, বগুড়া (আরডিএ) এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নিমরা ট্রেড ফেয়ারস্ এন্ড এক্সিবিশন এর যৌথ উদ্যোগে পঞ্চম আন্তর্জাতিক কৃষিপ্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
পল্লিউন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব এম এ কাদের সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা, আব্দুল মান্নান এমপি এবং মোঃ হাবিবুর রহমান এমপি উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আরডিএ’র মহাপরিচালক এম এ মতিন ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিচালক মোঃ নজরুল ইসলাম।
মন্ত্রী বলেন, আরডিএ আয়োজিত ব্যতিক্রমধর্মী আন্তর্জাতিক কৃষিপ্রযুক্তি মেলা সকলকে উৎসাহিত করবে এবং উদ্যোক্তাদের কর্মস্পৃহা অনেকাংশে বাড়িয়ে দেবে। এ মেলা বাংলাদেশের কৃষি ও সংস্কৃতিকে বহির্বিশ্বে পরিচিত করতে বহুলাংশে সহায়ক হবে।
এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন দারিদ্র্যবিমোচন, আত্মকর্মসংস্থান এবং গ্রামীণ আর্থসামাজিক অগ্রগতির  ক্ষেত্রে আধুনিক কৃষি প্রকৌশল এবং উন্নতমানের বীজ উৎপাদন প্রযুক্তি প্রধান সহায়ক শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হবে।
মেলায় দেশীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি  ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, নেদারল্যান্ড, চীন, জার্মানি, কোরিয়া, তুরস্ক, স্পেন, জাপান, তাইওয়ান, ইতালি, কানাডাসহ ১৪টি দেশের প্রতিষ্ঠান মিলে ১৫০টি স্টল অংশ নিচ্ছে।
#


আহসান/মিজান/নবী/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/২২০০ ঘণ্টা  
 
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১৫৬৫

রাজউকের বিজ্ঞপ্তি
ইমারত নির্মাণকালীন দুর্ঘটনার দায়দায়িত্ব ভবন মালিকের

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :

    রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) এর আওতাধীন এলাকায় ইমারত নির্মাণস্থলে যেকোনো দুর্ঘটনা ও অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি এড়ানো, ভূমিধস রোধ, কর্মরত নির্মাণ শ্রমিকদের নিরাপত্তাবিধান, আশপাশের ভবন, অবকাঠামো ও পথচারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ভবন মালিক বা নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের।
 
    বাংলাদেশ জাতীয় ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৬, ঢাকা মহানগর ইমারত (নির্মাণ, উন্নয়ন, সংরক্ষণ ও অপসারণ) বিধিমালা, ২০০৮ এবং ইমারত নির্মাণ আইন ১৯৫২-এ এসব দায়দায়িত্ব সুনির্দিষ্ট করা আছে।
 
    আজ জারী করা এক বিজ্ঞপ্তিতে ইমারত নির্মাণ বিধিমালাসহ অন্যান্য বিধিমালা অনুসরণপূর্বক অভিজ্ঞ প্রকৌশলীর তত্ত্বাবধানে ইমারত নির্মাণ ও নির্মাণকালীন সকল ধরনের নিরাপত্তা বিধানের জন্য মালিক ও নির্মাতা প্রতিষ্ঠানকে রাজউক অনুরোধ জানিয়েছে।  

    বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিদ্যমান আইন ও বিধিবিধান না মেনে ভবন নির্মাণ করা হলে বা নির্মাণকালে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে তার সকল দায়দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ভবন মালিক বা নির্মাতা প্রতিষ্ঠানকে বহন করতে হবে।

    বাংলাদেশ জাতীয় ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৬-এ বলা হয়েছে, নির্মাণকাজ পরিদর্শন, ব্যবহৃত উপকরণের গুণগত সঠিক মান নিশ্চিত করা, নির্বিঘœ কাজ সম্পাদন এবং সতর্কতামূূলক ব্যবস্থা নেয়ার দায়িত্ব নির্মাণাধীন ইমারতের মালিক বা নিয়োগকৃত পেশাজীবীর। এছাড়াও ঢাকা মহানগর ইমারত (নির্মাণ, উন্নয়ন, সংরক্ষণ ও অপসারণ) বিধিমালা, ২০০৮ এর ১৮(৩) বিধিতে বলা হয়েছে, সকল নকশার ডিজাইন পর্যাপ্ততা ও উপযুক্ততার দায়িত্বভার নকশার সাথে সংশ্লিষ্ট স্থপতি বা প্রকৌশলীর ওপর বর্তাবে।

#

কিবরিয়া/মিজান/নবী/সঞ্জীব/রফিকুল/সেলিম/২০১৫/১৯৩০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :   ১৫৬৪

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মে মাসের  
বেতন ভাতাদির সরকারি অংশের চেক ব্যাংকে হস্তান্তর

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরাধীন বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার  শিক্ষক-কর্মচারীদের চলতি বছরের মে মাসের বেতন-ভাতাদির সরকারি অংশের চেক অনুদান বণ্টনকারী অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংক লিমিটেড এর প্রধান কার্যালয় এবং জনতা ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর স্থানীয় কার্যালয়ে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আগামী ১ জুন থেকে ৮ জুন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট শাখা ব্যাংক হতে শিক্ষক-কর্মচারীগণ তাদের স্ব স্ব ব্যাংক একাউন্ট নম্বরের মাধ্যমে  মে মাসের বেতন-ভাতাদির সরকারি অংশ উত্তোলন করতে পারবেন।

উল্লেখ্য, এপ্রিল মাসের বেতন-ভাতার এমপিও কপি বা ভাউচার সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে না পৌঁছানোর কারণে অথবা অন্যকোনো কারণে যেসকল প্রতিষ্ঠান বেতন-ভাতাদি উত্তোলন করতে পারেনি সেসকল প্রতিষ্ঠান বর্তমান মাসের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তা উত্তোলন করতে পারবেন।

#

শফিকুল/মিজান/নবী/রফিকুল/সেলিম/২০১৫/১৯৩০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ১৫৬৩
   
পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক  অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :

    দশম জাতীয় সংসদের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৩তম বৈঠক আজ সংসদভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

    কমিটির সদস্য আ হ ম মুস্তফা কামাল, মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম) এবং মোঃ তাজুল ইসলাম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

    বৈঠকে স্থায়ী কমিটির ১০ম ও ১১তম বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি এবং পরিকল্পনা কমিশনের শিল্প ও শক্তি বিভাগের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

বৈঠকে জানানো হয়, বর্তমান প্রেক্ষিতপরিকল্পনা মোতাবেক ২০১০-২০২১ সালের মধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ২০ হাজার মেগাওয়াট, প্রস্তাবিত ৭ম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০২১ সালের মধ্যে ২৪ হাজার মেগাওয়াট এবং ২০৩০ সালে ৪০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ২০২১ সালের মধ্যে সঞ্চালন লাইনের পরিমাণ ১৩ হাজার সার্কিট কিলোমিটার এবং ২০৩০ সালের মধ্যে সঞ্চালন লাইনের পরিমাণ ২০ হাজার সার্কিট কিলোমিটারে উন্নীত করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

উপজেলাপর্যায়ে আর্থসামাজিক প্রকল্প হিসেবে প্রতিটি উপজেলায় সরকারি অর্থে অসহায় বৃদ্ধদের জন্য একটি করে বৃদ্ধাশ্রম প্রকল্প গ্রহণ করার জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

কৃষিভিত্তিক মধ্যম ও ছোটমানের শিল্পপ্রতিষ্ঠানে অগ্রাধিকারভিত্তিতে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদানের সুপারিশ করা হয়।

গভীর সমুদ্রবন্দরে টার্মিনাল নির্মাণ করে অপচয় ও খরচ রোধকল্পে পাইপলাইনের মাধ্যমে জ্বালানি তেল সরবরাহের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।

        পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সদস্যগণ, আইএমইডি’র সচিবসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ  বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

#

এমাদুল/মিজান/নবী/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৯০০ ঘণ্টা

 

 
তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ১৫৬২ 
   
মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে ই-টেন্ডারিং চালু
রংপুর অঞ্চলে অনলাইন এমপিও চালু, সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশে

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :

    শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ  মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন দপ্তরসমূহে ক্রয় কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও গতিশীলতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে  ই-টেন্ডারিং  কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন। তিনি বেসরকারি স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের মাসিক বেতনভাতার সরকারি অংশ (এমপিও) বিকেন্দ্রীকরণ ও অনলাইন এমপিও পদ্ধতিও চালু করেন।

    মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিক্ষাসচিব মোঃ নজরুল ইসলাম খান এবং সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রামের যুগ্মপ্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব রতন কুমার রায় বক্তৃতা করেন।

    শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কর্মকর্তাদের কাজের স্বচ্ছতা, দক্ষতা ও যোগ্যতা বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার প্রথম থেকে কাজ করছে। ই-টেন্ডারিং ব্যবস্থা চালু করার ফলে টেন্ডার নিয়ে নানারকম জটিলতার অবসান হয়ে স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে। তিনি বলেন, এখন এমপিও’র জন্য শিক্ষক-কর্মচারীদেরকে ঢাকায় আসতে হয়। অনলাইন পদ্ধতি চালু হওয়ায় তার অবসান হলো। এখন নিজ নিজ উপজেলা শিক্ষা অফিসারের দপ্তরে তথ্যাদি ও কাগজপত্র জমা দিলে ত্বরিৎ তার সমাধান হবে এবং ভোগান্তি দূর হবে।  আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সারাদেশের এমপিও অনলাইনে সম্পন্নের ব্যবস্থা করা হবে।

    পরে মন্ত্রী রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার কর্মকর্তাদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সিং করে অনলাইন এমপিও উদ্বোধন করেন।

#

সুবোধ/মিজান/নবী/রফিকুল/সেলিম/২০১৫/১৯০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১৫৬১

 

মৎস্য উৎপাদনে সঠিক ব্যবস্থাপনা ও মান বজায় রাখতে হবে

                               -- মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

 

বেনাপোল (যশোর), ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :

 

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেছেন, মৎস্য উৎপাদনে সঠিক ব্যবস্থাপনা ও মান বজায় রাখতে হবে। মাছ, মাংস, দুধ এবং ডিম উৎপাদনে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদের গুরুত্ব অপরিসীম। জাতীয় অর্থনীতিতে মৎস্য সম্পদ ভূমিকা রেখে চলেছে।

 

প্রতিমন্ত্রী আজ যশোর জেলার শার্শা উপজেলা পরিষদ চত্বরে বেনাপোলে নবনির্মিত প্রাণিসম্পদের কোয়ারেন্টাইন স্টেশন এবং শার্শা উপজেলা মৎস্য ভবন কাম ট্রেনিং সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রাকৃতিক জলাশয়ের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা, জলজ জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, মৎস্যচাষ ব্যবস্থাপনা ও সম্প্রসারণের মাধ্যমে নিরাপদ মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধির কোনো বিকল্প নেই। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ বিদেশে খাদ্যরপ্তানি করতে  সক্ষম হয়েছে। বর্তমান সরকার  ক্ষমতায় আসার পর খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

তিনি আরো বলেন, বৃহত্তর খুলনা অঞ্চলের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত আন্তরিক। বাংলাদেশ উন্নয়নের একটি মডেল। উন্নয়নের জন্য আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে হবে। মৎস্য উৎপাদনে বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ চতুর্থ স্থান অর্জন করেছে। আগামীতে প্রথম স্থান দখল করতে মৎস্যখাতে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।  সরকার মৎস্যজীবীদের উন্নয়নে সব ধরণের সহযোগিতা করবে। তিনি মৎস্যখাতের বিকাশে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

 

          যশোর জেলা প্রশাসক ড. মোঃ  হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, খুলনা বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ডাঃ নুরুল আমীন, খুলনা বিভাগীয় মৎস্য অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান এবং শার্শা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু বক্তৃতা করেন।

 

          উল্লেখ্য, দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে বেনাপোলে প্রাণিসম্পদের কোয়ারেন্টাইন স্টেশন এবং ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে শার্শা উপজেলা মৎস্য ভবন কাম ট্রেনিং সেন্টারটি নির্মিত হয়েছে।

#

 

সুলতান/মিজান/নবী/রফিকুল/সেলিম/২০১৫/১৯৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৬০

মাগুরা-১ নির্বাচনি এলাকার জনসাধারণের জন্য জ্ঞাতব্য

 

 

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :  

    আগামী ৩০ মে দশম জাতীয় সংসদের মাগুরা-১ শূন্য আসনের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ভোটগ্রহণ শুরুর পূর্ববর্তী ৪৮ ঘণ্টা অর্থাৎ ২৮ মে সকাল ৮টা হতে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা অর্থাৎ ১ জুন বিকাল ৪টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে নির্বাচনি এলাকায় কোনো ব্যক্তি জনসভা আহ্বান, অনুষ্ঠান বা তাতে যোগদান এবং কোনো মিছিল বা শোভাযাত্রা সংগঠিত করতে বা তাতে যোগদান করতে পারবে না।
    উল্লিখিত সময়ের মধ্যে কোনো ব্যক্তি হিং¯্রতামূলক কাজ বা বিশৃঙ্খলামূলক আচরণ করতে পারবে না। ভোটারগণ বা নির্বাচনি কাজকর্ম বা দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিগণকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে পারবে না। এছাড়া, কোনো অস্ত্র বা শক্তি প্রদর্শন বা ব্যবহার করতে পারবে না।
    কোনো ব্যক্তি এসব বিধানবলি লঙ্ঘন করলে তিনি অন্যূন দুই বছর এবং অনধিক সাতবছর সশ্রম কারাদ-ে এবং অর্থদ-েও দ-নীয় হবে।
    আগামীকাল ২৯ মে মধ্যরাত ১২টা হতে ভোটগ্রহণের দিন অর্থাৎ ৩০ মে মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত নির্বাচনি এলাকায় ট্যাক্সি ক্যাব, বেবিট্যাক্সি ও অটোরিক্সা, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, কার বাস, ট্রাক, টেম্পো, লঞ্চ, ইজিবাইক, ইঞ্জিনবোট, স্পিডবোটসমূহের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। নির্বাচনি এলাকায় ২৮ মে মধ্যরাত হতে ১ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে। তবে নির্বাচনে প্রার্থী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনী, প্রশাসন ও অনুমতিপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক এবং নির্বাচনি এজেন্টদের জন্য এ নির্দেশ প্রযোজ্য হবে না। পর্যবেক্ষক ও নির্বাচনি এজেন্টদের যানবাহনে নির্বাচন কমিশন প্রদত্ত স্টিকার ব্যবহার করতে হবে। জাতীয় হাইওয়ের ক্ষেত্রেও এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। 
#
আসাদুজ্জামান/মিজান/নবী/রফিকুল/আব্বাস/২০১৫/১৯০২ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ১৫৫৯

বনভূমি দখল, বনজ সম্পদ পাচার 
এবং বন্যপ্রাণী নিধন প্রবণতা রোধে টাস্কফোর্স গঠন

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :
    অবৈধভাবে বনভূমি দখল, বনজ সম্পদের অবৈধ পাচার এবং বন্যপ্রাণী নিধন প্রবণতা রোধকল্পে পরিবেশ ও বন মন্ত্রীকে সভাপতি করে ১৮ সদস্যবিশিষ্ট একটি শক্তিশালী টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। 
    আজ সচিবালয়ে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উচ্চপর্যায়ের এক সভায় এ টাস্কফোর্স গঠন করা হয়।
    পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব টাস্কফোর্সের সদস্যসচিব হিসেবে কাজ করবেন। অন্যান্য সদস্য হিসেবে থাকবেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, মহাপুলিশ পরিদর্শক, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এর মহাপরিচালক, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক, আনসার ভিডিপি’র মহাপরিচালক, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তরের মহাপরিচালক, র‌্যাপিড একশন ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, ৬টি বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার ও প্রধান বন সংরক্ষক।
    কমিটির কার্যপরিধি হবে বনভূমি দখল রোধ, জাতীয় পর্যায়ে দেশের যাবতীয় বনজ সম্পদ পাচার এবং বন্যপ্রাণী নিধন ও পাচার প্রতিরোধ সম্পর্কিত বিষয়ে সমন্বয়সাধন। বনজ সম্পদ পাচার সম্পর্কিত বন আইন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন, ২০১২ এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট আইনের সংশোধন, পরিবর্তন ও পরিবর্ধন। বনজ সম্পদ পাচার এবং বন্যপ্রাণী নিধন, পাচারপ্রবণ এলাকা ও অধিক পরিমাণে পাচারকৃত বনজ সম্পদ ও বন্যপ্রাণী নির্ধারণ এবং প্রতিরোধকল্পে সিদ্ধান্ত গ্রহণ। বনজ সম্পদ পাচার এবং বন্যপ্রাণী নিধন ও পাচার প্রতিরোধকল্পে যাবতীয় গোয়েন্দা নেটওয়ার্কের উন্নতি, পরিবর্তন ও পরিবর্ধন সম্পর্কিত নীতিমালা প্রণয়ন। বনজ সম্পদ পাচার এবং বন্যপ্রাণী নিধন ও পাচার প্রতিরোধকল্পে বিভাগীয় এবং জেলা পর্যায়ে টাস্কফোর্স কমিটি গঠন। কমিটি প্রতি তিনমাস অন্তর সভায় মিলিত হবে। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ কমিটির সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন।
#

পাশা/মিজান/নবী/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/২০৪০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ১৫৫৮


প্রসবজনিত কারণে মাতৃ মৃত্যুহার শূন্যের 
কোঠায় আনতে সহযোগিতা কামনা স¦াস্থ্যমন্ত্রীর


ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম প্রসবজনিত কারণে মাতৃ মৃত্যুহার শূন্যের কোঠায় আনতে সকলের সহযোগিতা কামনা করে বলেছেন, মাতৃ ও শিশুমৃত্যু হার হ্রাসে অভাবনীয় সাফল্য পেয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু এখনও অনেক নারী গর্ভধারণ ও প্রসবজনিত জটিলতায় মারা যায়। সচেতনতার অভাব ও বাল্যবিবাহ এর পেছনে ভূমিকা রাখছে। তাই এক্ষেত্রে সচেতনতামূলক কর্মসূচি জোরদার করতে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।
বিশ্ব নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উপলক্ষে আজ ঢাকায় চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় ও চ্যানেল আই-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘মায়ের কথা’ শীর্ষক মেলার উদ্বোধনকালে স¦াস্থ্যমন্ত্রী একথা বলেন। 
স্বাস্থ্যমন্ত্রী সব মায়ের প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে বেলুন উড়িয়ে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবসের উদ্বোধন করেন। এসময় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসীন আলী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ সচিব সৈয়দ মনজুরুল হাসান, ইমপ্রেস  টেলিফিল্ম চ্যানেল আই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. 
এ কে এম নূর-উন-নবী, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক দীন মোঃ নূরুল হক উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে ‘কিশোরীর সুস্থ বার্তা’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী। এ আয়োজনের সহযোগিতায় ছিল সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, ইনসেপ্টা, ওয়েল ফুড, ওয়াটার এইড, পিপিডি, বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ।  
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিভাগীয় শহর থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পর্যায়ে মা ও শিশু স্বাস্থ্যসেবার ব্যবস্থা করেছে সরকার। ওই সকল সেবাকেন্দ্রে  প্রসূতি মায়েদের সেবা গ্রহণ করা দরকার। গর্ভকালীন সময়ে মায়েদের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের পরামর্শ নিতে হবে। সর্বোপরি বাসাবাড়িতে নয়, নিকটস্থ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রগুলোতে প্রশিক্ষিত ধাত্রী দ্বারা সন্তান প্রসব করালে প্রসূতি মায়ের মৃত্যুঝুঁকি বহুলাংশে  হ্রাস পায়।  
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মা ও শিশু মৃত্যুহার কমিয়ে আনার সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন। বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যখাতে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। শুধু সরকারের একার পক্ষে শতভাগ সফল হওয়া সম্ভব নয়। সমন্বিতভাবে কাজ করলে এক্ষেত্রে আরো এগিয়ে যাওয়া সম্ভব। ২০১৫ সাল নাগাদ স্বাস্থ্য, জনসংখ্যা ও পুষ্টি সেক্টর উন্নয়ন কার্যক্রমে মাতৃমৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ এ কমিয়ে আনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। সম্প্রতি জেনেভায় অনুষ্ঠিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলনেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালকসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবার মান বৃদ্ধি বিশেষ করে মা ও শিশু স্বাস্থ্যসেবার প্রশংসা করেছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। 
#


পরীক্ষিৎ/মিজান/নবী/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/১৯১০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৫৫৭

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :
দশম জাতীয় সংসদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৯ম বৈঠক আজ সংসদভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়া বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। 
কমিটির সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান, মোঃ মাহবুবুর রহমান এবং হোসনে আরা বেগম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। 
কমিটির ৮ম বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি প্রতিবেদন সভায় উপস্থাপন করা হয় এবং এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। 
বৈঠকে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরকে আধুনিকায়নের লক্ষ্যে গৃহীত পদক্ষেপের ওপর মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশন করা হয় এবং এই প্রতিষ্ঠানকে একটি দক্ষ ও কার্যকরী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অঁঃড়সধঃরপ ডবধঃযবৎ ঝঃধঃরড়হ স্থাপন, ম্যানুয়েলের পরিবর্তে ডিজিটাল অত্যাধুনিক ও উন্নত যন্ত্রপাতি প্রতিস্থাপন এবং সাংগঠনিক কাঠামো দ্রুত উন্নয়নের ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। 
এছাড়া, বৈঠকে বিস্তীর্ণ সমুদ্রসীমা সম্পর্কে সম্যক অবহিত হওয়ার লক্ষ্যে এবং তাৎক্ষণিক তথ্য জানার জন্য সমুদ্রসীমায় ডিজিটাল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ টাওয়ার স্থাপন ও আধুনিক ডপলার রাডার স্থাপনে মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। 
বৈঠকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের রাজস্ব ও উন্নয়নখাতে বাজেটবরাদ্দ বৃদ্ধি করার এবং গবঃবড়ৎড়ষড়মরপধষ অপঃ প্রণয়নের সুপারিশ করা হয়।  প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের চলমান গুরুত্বপূর্ণ কার্যাবলি ও গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ কমিটিকে অবহিত করা হয়। 
প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কাজী হাবিবুল আউয়াল, বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
#

হুদা/মিজান/নবী/রফিকুল/জয়নুল/২০১৫/১৮৩০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৫৫৬

ঢাকা ইউনিভার্সিটি ফিলানথ্রোপিক সোসাইটির উদ্বোধন

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :
    বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে ঢাকা ইউনিভার্সিটি ফিলানথ্রোপিক সোসাইটির উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, উন্নততর সমাজব্যবস্থা গঠনের লক্ষ্যে নতুন প্রজন্মকে নিজেদের মানসিকতায় ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে হবে। 
    প্রতিমন্ত্রী বলেন, ছাত্রছাত্রীদের মেধার প্রকাশ ও বিকাশের জন্য প্লাটফর্ম প্রয়োজন। ফিলানথ্রোপিক সোসাইটি একটি প্লাটফর্ম হতে পারে। ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্ক উন্নয়নের সাথে পিতামাতার যোগাযোগের মিথস্ক্রিয়া  প্রয়োজন।  এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি উন্নততর হবে। আর্তমানবতার সেবা, মানুষের প্রতি ভালোবাসা ও ক্যাম্পাসের পরিবেশ উন্নয়নে এ সোসাইটি কার্যকরী অবদান রাখতে পারে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। 
    বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, চ্যারিটি কাজের মধ্যেই শুধু সীমাবদ্ধ না থেকে এ সোসাইটির কার্যক্রম বৃদ্ধি করে তা  ক্যাম্পাসের বাইরেও ছড়িয়ে দিতে হবে। নেপালে ভূমিকম্পে দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এ সোসাইটিকে তিনি ধন্যবাদ জানান। 
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. জিয়া রহমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে মিডিয়া ব্যক্তিত্ব রাশেক রহমান বক্তব্য রাখেন ।  
#

আসলাম/মিজান/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/১৮২৫ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ১৫৫৫

 

 

প্রতিবন্ধী নারীদের জন্য সংসদে আসন সংরক্ষণের আশ্বাস ডেপুটি স্পিকারের 

 


ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) :  

    জাতীয় সংসদে ৫০টি সংরক্ষিত নারী আসনের মধ্যে অন্তত দুটি সংরক্ষিত আসন প্রতিবন্ধী নারীদের জন্য সংরক্ষণ করা, আদালতে এবং সংসদ অধিবেশন চলাকালীন ইশারা ভাষা ব্যবহারসহ প্রতিবন্ধীদের ভাগ্য উন্নয়নে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো.ফজলে রাব্বী মিয়া। আজ জাতীয় সংসদের শপথকক্ষে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের প্রতিনিধিদলের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে এ আশ্বাস দেন তিনি। 
    ডেপুটি স্পিকার বলেন, আসন্ন বাজেটে প্রতিবন্ধীদের সমস্যা দূরীকরণে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য প্রতিটি মন্ত্রণালয়ের বাজেট থেকে প্রতিবন্ধীদের জন্য থোক বরাদ্দ রেখে মন্ত্রণালয়গুলোকে প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। 
    তিনি বলেন, যাতায়াত, স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ অবকাঠামোগত সবধরণের সুযোগ-সুবিধা প্রদানের ক্ষেত্রে সরকার আন্তরিক রয়েছে। দেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে, বাস ও রেল স্টেশনে প্রতিবন্ধীদের জন্য আলাদা শৌচাগার নির্মাণের বিষয়ে তিনি গুরুত্বারোপ করেন। প্রত্যেক সংসদ সদস্যকে ব্যক্তিগত উদ্যোগে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে গুরুত্বের সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান ডেপুটি স্পিকার। 
    মতবিনিময় অনুষ্ঠানে বক্তারা প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের উপযোগী একটি নমনীয় কারিকুলাম তৈরি, জাতীয় কর্মপরিকল্পনায় এবং জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন কর্মসূচিতে প্রতিবন্ধীদের সমস্যাগুলোকে গুরুত্বের সাথে তুলে ধরা, প্রতিবন্ধীদের দখলকৃত জমি উদ্ধারের পদক্ষেপ নেয়া, প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে প্রতিটি জেলায় কমিটি গঠনসহ বিভিন্ন প্রস্তাব তুলে ধরেন। 
    অনুষ্ঠানে জাতীয় প্রতিবন্ধী ফোরামের সভাপতি সাইদুল হক, মহাসচিব মিজানুর রহমানসহ প্রতিবন্ধীদের প্রতিনিধিগণ বক্তব্য রাখেন।
#

স্বপন/মোহাম্মদ আলী/খাদীজা/শুকলা/আসমা/২০১৫/১৬২০ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৫৪ 

 

 


মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত

 

ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) : 

দশম জাতীয় সংসদের মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৩তম বৈঠক আজ জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি রেবেকা মমিনের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ, নাসরিন জাহান রতœা এবং ফজিলাতুন নেসা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। 
বৈঠকে নারী আইসিটি ফ্রি-ল্যান্সিং এবং উদ্যোক্তা উন্নয়ন শীর্ষক কর্মসূচির বর্তমান অবস্থা এবং মন্ত্রণালয় কর্তৃক গৃহীত কার্যক্রম, গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তাদের দক্ষতা বিকাশ প্রশিক্ষণ শীর্ষক কর্মসূচি এবং জেলা ও উপজেলায় কর্মকর্তা পদায়নের তথ্যাদি সম্পর্কে আলোচনা হয়। 
কমিটি নারী আইসিটি ফ্রি-ল্যান্সিং এবং উদ্যোক্তা উন্নয়ন শীর্ষক কর্মসূচির বর্তমান অবস্থা পর্যবেক্ষণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। 
    উপজেলা পর্যায়ে দীর্ঘ সময় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীগণের অবস্থানের বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয় এবং উক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীগণকে কর্মস্থল পরিবর্তনে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জোর সুপারিশ করা হয়।  
    সেই সাথে মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম জোরদার করার লক্ষ্যে শূন্য পদগুলোতে এডহকভিত্তিতে দ্রুততার সাথে নিয়োগের সুপারিশ করে কমিটি। 
    বৈঠকে তৃণমূল শিশুদের সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরি শিক্ষার ব্যবস্থা এবং খাদ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিতের সুপারিশ করা হয়। 
বৈঠকে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 
#

মৌমিতা/মোহাম্মদ আলী/খাদীজা/শুকলা/আসমা/২০১৫/১৬০০ ঘণ্টা 

 

 

 
তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর : ১৫৫২  

 


ন্যায্যমূল্যে প্যাকেটজাত আখের চিনি বিক্রয় কর্মসূচির উদ্বোধন  


ঢাকা, ১৪ জ্যৈষ্ঠ (২৮ মে) : 

    পবিত্র শবেবরাত ও রমজানে জনসাধারণের মধ্যে ন্যায্যমূল্যে মানসম্পন্ন চিনি সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্যাকেটজাত আখের চিনি বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশন (বিএসএফআইসি)। শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু আজ রাজধানীর দিলকুশায় চিনিশিল্প ভবনে এ বিক্রয় কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। 
    বিএস

Todays handout (3).doc Todays handout (3).doc

Share with :

Facebook Facebook