তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ নভেম্বর ২০২১

তথ্যবিবরণী ১৮ নভেম্বর ২০২১

তথ্যবিবরণী                                                                                                          নম্বর: ৫৪৭৫

 

তাড়াহুড়ো করে ইসি গঠন আইন করা সঠিক হবে না

                                             -- আইনমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

 

          আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, তাড়াহুড়ো করে নির্বাচন কমিশন গঠন আইন প্রণয়ন করা সঠিক হবে না।

 

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় তাঁর গুলশান কার্যালয়ে  সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

 

          এর আগে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এর সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদারের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধিদল সুজন কর্তৃক প্রস্তুতকৃত ‘খসড়া নির্বাচন কমিশন নিয়োগ আইন’ এর কপি আইনমন্ত্রীর নিকট হস্তান্তর করেন।

 

          সুজন’র সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার অধ্যাদেশ জারি করে নির্বাচন কমিশন গঠন আইন প্রণয়নের পরামর্শ দিলে মন্ত্রী বলেন, জাতীয় সংসদকে পাশ কাটিয়ে এ আইন প্রণয়ন করা সঠিক হবে না।

 

          আনিসুল হক বলেন, আগামী জানুয়ারি মাসে পরবর্তী অধিবেশন বসবে, ফেব্রুয়ারিতে বর্তমান ইসি'র মেয়াদ শেষ হবে। তাই এই স্বল্প সময়ে ইসি গঠন আইন প্রণয়ন করা সম্ভব নয়। তিনি  বলেন, ইসি গঠনের জন্য যে সার্চ কমিটি করার নিয়ম চালু আছে তা আইন না হলেও আইনের কাছাকাছি। কারণ এ সার্চ কমিটি রাষ্ট্রপতি গঠন করে থাকেন।

 

          প্রতিনিধিদলে আরো ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক, সৈয়দ আবু নাছের বখতিয়ার আহমেদ, অধ্যাপক রুবাইয়াৎ ফেরদৌস, দিলিপ কুমার সরকার প্রমুখ।

 

#

 

রেজাউল/রাহাত/রফিকুল/সেলিম/২০২১/২২.৩০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর: ৫৪৭৪

এইচএসসি পরীক্ষা শুরু ২ ডিসেম্বর, পরীক্ষার্থী প্রায় ১৪ লাখ

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

            আসন্ন ২০২১ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আগামী ২ ডিসেম্বর শুরু হবে। দেশের ১১টি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এ বছর পরীক্ষার্থী মোট ১৩ লাখ ৯৯ হাজার ৬৬৪ জন। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ছাত্র ৭ লাখ ২৯ হাজার ৭৩৮ জন ও ছাত্রী ৬ লাখ ৬৯ হাজার ৯৫২ জন।

            শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সুষ্ঠু, নকলমুক্ত ও ইতিবাচক পরিবেশে সম্পন্ন করতে আজ সচিবালয়ে জাতীয় মনিটরিং ও আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান।

            মন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। অনুষ্ঠানে আরো অংশগ্রহণ করেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মোঃ গোলাম ফারুক, আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি অধ্যাপক নেহাল আহমেদ এবং মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

            শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সাধারণ শিক্ষা বোর্ডগুলোর তত্ত্বীয় বিষয়ে পরীক্ষা আগামী ২ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে ৩০ ডিসেম্বর শেষ হবে। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা ২ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১৯ ডিসেম্বর শেষ হবে। আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা ২ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে ৮ ডিসেম্বর শেষ হবে।

            উল্লেখ্য, ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসিতে ১১ লাখ ৩৮ হাজার ১৭ জন, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের আলিম পরীক্ষায় ১ লাখ ১৩ হাজার ১৪৪ জন ও কারিগরিতে ১ লাখ ৪৮ হাজার ৫০৩ জন অংশ নেবে।  এছাড়া, বিদেশের ৮টি কেন্দ্রের মোট পরীক্ষার্থী ৪০৬ জন।

মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

            সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী জানান, পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে হবে। অনিবার্য কারণে কোনো পরীক্ষার্থীকে এরপরে প্রবেশ করতে দিলে তাদের নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, বিলম্ব হওয়ার কারণ ইত্যাদি একটি রেজিস্টারে লিপিবদ্ধ করে ওইদিনই সংশ্লিষ্ট বোর্ডে প্রতিবেদন দিতে হবে।

            ট্রেজারি থেকে নির্দিষ্ট তারিখের পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সব সেট কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হবে। ট্রেজারি থেকে প্রশ্নপত্র কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়ার জন্য নির্ধারিত কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে; পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে এসএমএসর মাধ্যমে সংশ্লিষ্টদের কাছে প্রশ্নপত্রের সেট কোড জানিয়ে দেওয়া হবে।

            ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ব্যতীত অন্য কেউ মোবাইল ফোন/ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। শুধু ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছবি তোলা যায় না এই রকমের মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ব্যতীত অন্য কেউই কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবে না।

            দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসিজনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী স্ক্রাইব (শ্ৰুতি লেখক) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এ ধরনের পরীক্ষার্থীদের এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য সময় ১০ মিনিট বাড়ানো হয়েছে। প্রতিবন্ধী (অটিস্টিক, ডাউন সিনড্রোম, সেরিব্রাল পালসি) পরীক্ষার্থীদের সময় ২০ মিনিট বাড়ানোসহ শিক্ষক, অভিভাবক, সাহায্যকারীর বিশেষ সহায়তায় পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

            ২০২১ সালের সংশোধিত ও পুনর্বিন্যাসকৃত সিলেবাসে গ্রুপভিত্তিক ৩টি নৈর্বাচনিক বিষয়ে ৬টি পত্রে পরীক্ষা হবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক নোটবুকের পাওয়া নম্বর অনলাইনে বোর্ডে পাঠাবে।

            বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ এর কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার্থীদের মধ্যকার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এ বছর বিজ্ঞান বিভাগ, মানবিক বিভাগ, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের পরীক্ষার্থীদের একই সময়ে পরীক্ষা গ্রহণ না করে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।

#

খায়ের/পাশা/রাহাত/রফিকুল/সেলিম/২০২১/২১৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর : ৫৪৭৩

বজ্রপাতে মৃত্যুর সংখ্যা কমিয়ে আনতে হাওড়ে হবে এক হাজার ছাউনি

                                                                                          -- ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান বলেছেন, বজ্রপাতে মৃত্যুর সংখ্যা কমিয়ে আনতে ‘লাইটার অ্যারেস্টার’ সংবলিত বজ্রপাত-নিরোধক কংক্রিটের ছাউনি (শেল্টার) নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। দেশের হাওড়াঞ্চলসহ বজ্রপাতপ্রবণ ২৩ জেলায় এসব ছাউনি নির্মাণে প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।

          প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় আইইবি ভবনে আয়োজিত ÔCauses of Lightning & Thunder : Safety Issues and Damage MinimizationÕ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

          আইইবি’র যন্ত্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ নাসির উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আব্দুস সবুর, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক কৌশল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ইঞ্জিনিয়ার ইয়াসির আরাফাত এবং আইইবি'র যন্ত্রকৌশল বিভাগের ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আহসান বিন বাসার।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রাথমিকভাবে হাওড় এলাকায় ১ কিলোমিটার পরপর ১ হাজার বজ্রপাত-নিরোধক কংক্রিটের ছাউনি নির্মাণ করা হবে। এক কিলোমিটার অন্তর অন্তর নির্মাণ করা হবে একেকটি শেল্টার, যাতে মেঘের গুড়ুম গুড়ুম আওয়াজ পেলেই মাঠের কৃষকসহ মানুষজন শেল্টারে আশ্রয় নিতে পারেন।

          প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে বজ্রপাতে প্রাণহানির সংখ্যা কমে আসবে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, বজ্রপাত ঠেকানো সম্ভব নয়। তবে এতে মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে তিনটি বিষয়কে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। এর একটি হলো আর্লি ওয়ার্নিং সিস্টেম। দ্বিতীয়ত হলো, বজ্রপাত-নিরোধক কংক্রিটের শেল্টার নির্মাণ এবং তৃতীয়ত জনসচেতনতা বাড়ানো।

          ডা. মোঃ এনামুর রহমান বলেন, বজ্রপাত-প্রবণ এলাকায় ‘আর্লি ওয়ার্নিং সিস্টেম’ মেশিন বসানো হবে। প্রাথমিকভাবে ৭২৩টি যন্ত্র বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। বজ্রপাতের ৪০ মিনিট আগেই সংকেত দেবে যন্ত্রটি। ফলে মানুষ নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে পারবে। এতে মৃত্যুর হার কমে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, যারা খোলা মাঠে কাজ করেন বা মাছ ধরেন, তারাই বজ্রপাতে বেশি মৃত্যুবরণ করেন। তাদের জন্যই এ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।’

#

সেলিম/পাশা/রাহাত/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/২১২০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর : ৫৪৭১

এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্টেন্স প্রতিরোধে দেশের ফার্মেসি

ও ওষুধ কোম্পানিগুলোর ওপর নজরদারি বৃদ্ধি করা হবে

                                                                            -- স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া অনিয়মিতভাবে ও যত্রতত্রভাবে এন্টিবায়োটিক গ্রহণ, হাস-মুরগির ফার্ম বা মাছের ফার্মে এন্টিবায়োটিকের ব্যবহার, গবাদি পশুর খাদ্যে এন্টিবায়োটিক প্রয়োগসহ নানাভাবে আমাদের দেহে চিকিৎসার অতি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্টেন্স দেখা যাচ্ছে যা অত্যন্ত এলার্মিং। কিছু অসাধু ফার্মেসি বা ওষুধ কোম্পানিও এগুলো উপযুক্ত চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই মানুষকে গ্রহণ করতে উদ্বুদ্ধ করছে। এটি একটি অপরাধমূলক কাজ। ইতোমধ্যেই বেশকিছু ফার্মেসি ও ওষুধ কোম্পানি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আগামীতেও এ বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কঠোর নজরদারি রাখা হবে। নকল ওষুধ বিক্রি বা চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এন্টিবায়োটিক বিক্রি করলে সেক্ষেত্রে সেই প্রতিষ্ঠান দোষী হিসেবে চিহ্নিত হবে ও শাস্তি ভোগ করবে।

          মন্ত্রী আজ মহাখালীর ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে বিশ্ব এন্টিবায়োটিক সচেতনতা দিবস, ২০২১ উদ্যাপন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

          স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের সাধারণ মানুষের পাশাপাশি স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে বস্তিবাসীদেরকেও ভ্যাকসিনের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এসব কারণে দেশ এখন নিরাপদ আছে। দেশের অর্থনীতির চাকা সচল আছে, স্কুল কলেজ খোলা রয়েছে, ব্যবসা বাণিজ্য সাভাবিক অবস্থায় চলে এসেছে।

          ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহাবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর এবিএম খুরশিদ আলম, বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগস সমিতির নেতৃ, বাংলাদেশ ঔষধ শিল্প সমিতি, আইসডিডিআরবি প্রতিনিধি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি, ইউএসএইডের প্রতিনিধি, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি অনুষদের প্রতিনিধি, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাসহ ঋঅঙ, গঞঅচং, গঝঐ, টঝচ-চছগ, ঋষবসরহম ঋঁহফ ও দেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালের কর্মকর্তাবৃন্দ। বক্তারা দেশে এন্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্টেন্স প্রতিরোধে কাজ করতে সর্বসম্মতিক্রমে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

#

মাইদুল/পাশা/রাহাত/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৯২০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর: ৫৪৭০

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

            স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৯ হাজার ৫০৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৪৪ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৭৩ হাজার ৪৫৮ জন। 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ৫ জন-সহ এ পর্যন্ত ২৭ হাজার ৯৩৯ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৩৭ হাজার ৫১৮ জন।

#

কবীর/পাশা/রাহাত/রফিকুল/সেলিম/২০২১/১৯০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৫৪৬৯

যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে জর্ডান ও বাংলাদেশ একযোগে কাজ করবে

                                                                     -- যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে জর্ডান ও বাংলাদেশ একযোগে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল।

          যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আজ জর্ডানের যুব বিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাবুলসির সাথে তার দপ্তরে সাক্ষাৎ করেছেন।

           বৈঠককালে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জর্ডানের সাথে বাংলাদেশের বিদ্যমান সুসম্পর্কের কথা উল্লেখ করে যুব ও ক্রীড়া ক্ষেত্রে সহযোগিতা বিনিময়ের প্রস্তাব করেন।

          জর্ডানের যুব বিষয়ক মন্ত্রী যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে জর্ডানে স্বাগত জানিয়ে  বাংলাদেশের উন্নয়নে তরুণ ও যুব শ্রেণির অন্তর্ভুক্তিমূলক অংশগ্রহণের প্রশংসা করেন। পারস্পরিক সহযোগিতা বিনিমেয়ের প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, দক্ষিণ এশিয়া একটি অর্থনৈতিক উদীয়মান রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ জর্ডানের কাছে বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। এছাড়া বাংলাদেশের সাথে বিদ্যমান কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্কে জোরদার লক্ষ্যে উভয় দেশের মধ্যে আরো যোগাযোগ বৃদ্ধির কথা বলেন।

          মোহাম্মদ নাবুলসি বাংলাদেশের কৃষি খাতের উন্নয়নকে বৈপ্লবিক আখ্যায়িত করলে যুব ও ক্রীড়া  প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল জর্ডানের সাথে কৃষি, প্রযুক্তি ও মৎস্যখাতসহ অন্যান্য সেক্টরে বাংলাদেশ আরো জোরালোভাবে ভূমিকা রাখতে পারে বলে উল্লেখ করেন। এ সময় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জর্ডান হতে একটি প্রতিনিধিদলকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ  জানান।

          দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে জর্ডানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সুবাহান এবং কাউন্সিলর ও হেড অভ্ চ্যান্সেরি মোহাম্মদ বশির উপস্থিত ছিলেন।

#

আরিফ/পাশা/রাহাত/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৮৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                  নম্বর : ৫৪৬৮

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর সাথে লিবিয়ার চার্জ ডি’অ্যাফেয়ার্সের বৈঠক

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদের সাথে আজ ঢাকায় মন্ত্রীর দপ্তরে বাংলাদেশে নিযুক্ত লিবিয়ার চার্জ ডি’অ্যাফেয়ার্স Rahoumah M. R. Yahy- এর এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

          এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন উপস্থিত ছিলেন।

           বৈঠকে তাঁরা দু’দেশের ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি, সুষ্ঠু-সুশৃঙ্খল ও দায়িত্বশীল অভিবাসন, মানব পাচারের প্রতিরোধ, অনিয়মিত অভিবাসনকে নিরুৎসাহিতকরণসহ লিবিয়ার শ্রমবাজার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন।

#

রাশেদুজ্জামান/পাশা/রাহাত/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৮৪০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                  নম্বর : ৫৪৬৭

জ্বালানি নিরাপত্তা ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করবে                                                                                                                                                                                                                         -- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, জ্বালানি নিরাপত্তা ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করবে। জ্বালানি নিরাপত্তা সুসংহত করতে সরকার প্রাথমিক জ্বালানি সরবরাহ বৃদ্ধি করেছে। শতভাগ বিদ্যুতায়ন প্রায় সম্পন্ন। উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা আধুনিক হতে অত্যাধুনিক করা হচ্ছে।

          প্রতিমন্ত্রী আজ, চট্টগ্রামে ‘রিহ্যাব চট্টগ্রাম ফেয়ার-২০২১’এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, পরিকল্পিত নগরী গড়তে সরকারের পাশাপাশি রিহ্যাবেরও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব রয়েছে। জ্বালানি সাশ্রয়ী ভবন করে বা নেট মিটারিং সিস্টেমকে ব্যবহার করে বা ড্যাব পর্যালোচনা করে সুষম পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা করে রিহ্যাব কার্যকরী অবদান রাখতে পারে। এ সময় তিনি বলেন, আগামীতে নির্ধারিত স্থানে প্রতিষ্ঠিত শিল্পকারখানায় দ্রুততার সাথে গ্যাস-বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে। 

          প্রতিমন্ত্রী এ সময় আরো বলেন, Secondary Market করতে হলে আর্থিক সুবিধা সরকারকে বুঝাতে চেষ্টা করতে হবে। তিনি রিহ্যাবকে নিয়ম মেনে কাজ করার অনুরোধ জানিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রায়ণ প্রকল্পের আওতায় গৃহহীনদের গৃহ নিমার্ণ কার্যক্রমে রিহ্যাবের অবদান রাখা উচিত। এর আগে সকালে প্রতিমন্ত্রী রিহ্যাব চট্টগ্রাম রিজিওনাল অফিসের উদ্বোধন করেন। 

          রিহ্যাবের সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে চট্টগ্রাম মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী ও রিহ্যাব চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি আব্দুল কায়উম চৌধুরী বক্তব্য রাখেন। 

#

আসলাম/পাশা/রাহাত/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৮১৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                 নম্বর : ৫৪৬৬

প্রধানমন্ত্রী যে মহানুভবতা দেখিয়েছেন, খালেদা জিয়া কি তা পারতেন

                                                                -- তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীর প্রশ্ন

ঢাকা, ৩ অগ্রহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আদালতে দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি যে মহানুভবতা দেখিয়েছেন, বেগম জিয়া কি তা পারতেন’ প্রশ্ন রেখেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ।

          আজ বন্দরনগরীতে ৫৬তম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদ্যাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা শেষে সাংবাদিকবৃন্দ বেগম জিয়ার বিদেশগমনের অনুমতি বিষয়ে প্রশ্ন করলে মন্ত্রী বলেন, ‘সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া সেই ব্যক্তি যার আমলে তার পুত্রের পরিচালনায় একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা হয়েছে এবং এরপর তিনি সংসদে দাঁড়িয়ে হাস্যরস করে বলেছিলেন যে, আমাদের নেত্রী না কি ভ্যানিটি ব্যাগে করে গ্রেনেড নিয়ে গিয়েছিলেন।’

          ড. হাছান বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া সেই ব্যক্তি যার দুয়ারে দেশের প্রধানমন্ত্রী গিয়ে ২০-২৫ মিনিট দাঁড়িয়ে ছিলেন তার পুত্রের মৃত্যুতে সমবেদনা জানানোর জন্য, তিনি দরজা খোলেননি। বেগম জিয়া সেই ব্যক্তি যাকে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ২০১৪ সালে নির্বাচনের আগে দাওয়াত দিয়েছিলেন, আর তিনি অশোভন আচরণ করে সেদিন তা প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।’

          মন্ত্রী বলেন, ‘বেগম জিয়া সেই মানুষ যিনি ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডকে উপহাস করার জন্য, হত্যাকারীদেরকে উৎসাহ দেওয়ার জন্য নিজের জন্মের তারিখ বদলে দিয়ে ১৫ আগস্ট কেক কাটেন, ভুয়া মিথ্যা জন্মদিন পালন করেন। তিনি আদালতে খালাস পাননি, জামিন পাননি। এরপরও বেগম জিয়াকে কারাগারের বাইরে রাখা হয়েছে। তিনি যখন কারাগারেও ছিলেন, তার সাথে তার পছন্দের গৃহপরিচারিকাকে থাকতে দেয়া হয়েছিল, যেটি উপমহাদেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন। তার প্রতি যে মহানুভবতা প্রধানমন্ত্রী দেখিয়েছেন, আমি ব্যক্তি হিসেবে কখনো সেটি দেখাতে পারতাম না, অন্য কেউ পারতো না। বেগম খালেদা জিয়া পারতেন কি না সেই প্রশ্নটা করেন।’

          এসময় বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্য ‘সরকার লুটপাট-নৈরাজ্য চালাচ্ছে’ এবিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহ্মুদ বলেন, ‘ফখরুল সাহেবরা দেশে যে কি পরিমাণ নৈরাজ্য বিভিন্ন সময় চালিয়েছে সেটি তো দেশের মানুষ ভুলে যায়নি। মানুষের ওপর পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের রাজনীতি, মানুষকে দিনের পর দিন অবরুদ্ধ করে রাখার রাজনীতি, স্কুলছাত্র বিশ্ব ইস্তেমা ফেরত মুসল্লি, মসজিদের মধ্যে মোয়াজ্জিনের ওপর বোমা নিক্ষেপ, ভিন্নমতালম্বীদের উপর হামলা এগুলো সবই মির্জা ফখরুল সাহেবরাই করেছেন। আমাদের দল সেই রাজনীতির চর্চা করে না।’

          এর আগে বক্তৃতায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, আয়তনের দিক দিয়ে বাংলাদেশের বৃহত্তম এবং অনন্য এ বিশ্ববিদ্যালয় গত ৫৫ বছরের পথচলায় দেশ ও সমাজ গঠন এবং মানবসম্পদ উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। সংস্কৃতি ও মুক্তবুদ্ধি চর্চা ও গবেষণায় আরো ভূমিকা রেখে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের খ্যাতি বিশ্বসভায় ছড়িয়ে যাবে বলে কামনা করেন তিনি।

          চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর বেনু কুমার দে, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি আবদুল করিম, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম উপস্থিত ছিলেন। প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মহীবুল আজিজ অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

#

আকরাম/পাশা/রাহাত/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৮১০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৫৪৬৫

মুক্তিকামী মানুষের অনুপ্রেরণার অনিঃশেষ উৎস বঙ্গবন্ধু

                                -যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ৩ অগ্রাহায়ণ (১৮ নভেম্বর) :

          যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শোষিত ও বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ে আজীবন সোচ্চার ছিলেন। তিনি তাঁর সমগ্র জীবনটাই উৎসর্গ করেছিলেন মানুষের কল্যাণে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন বিশ্বের সকল মুক্তিকামী মানুষের অনুপ্রেরণার এক অনিঃশেষ উৎস।

          প্রতিমন্ত্রী গতকাল মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে জর্ডানে বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য ও ডায়নামিক নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। বঙ্গবন্ধু যে সুখী-সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই স্বপ্নপূরণে শেখ হাসিনা নিরলস কাজ করে চলেছেন। আজ বাংলাদেশ একটি আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে বিশ্বের বুকে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে।

          সিডনি এপারেলস এবং এআরকে গার্মেন্টসের মধ্যে আকাবা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জর্ডানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান।

          জর্ডানে বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা থেকে আগত শ্রমিকদের মধ্যে এই ম্যাচটির আয়োজন করা হয়।

          প্রতিমন্ত্রী স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে উপস্থিত থেকে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ক্রিকেট ম্যাচ উপভোগ করেন এবং খেলা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। প্রতিমন্ত্রী বিদেশের মাটিতে এ ধরনের ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনের জন্য বাংলাদেশ দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানান। এছাড়াও প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিদেশ থেকে তাদের কষ্টার্জিত রেমিট্যান্স পাঠানোর মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতিও প্রতিমন্ত্রী কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

          অনুষ্ঠানে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ জর্ডানে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর (লেবার) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, কাউন্সিলর ও হেড অব চ্যান্সেরি মোহাম্মদ বশিরসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

#

 

অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/মেহেদী/রেজ্জাকুল/মাসুম/২০২১/৯৩৮ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৫৪৬৪

জাতিসংঘে প্রথমবারের মতো সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হল রোহিঙ্গা রেজ্যুলেশন

নিউইয়র্ক, (১৮ নভেম্বর) :

            জাতিসংঘে প্রথমবারের মতো সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হল রোহিঙ্গা রেজ্যুলেশন। গতকাল জাতিসংঘে ‘মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমসহ অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার পরিস্থিতি’ শীর্ষক এই রেজ্যুলেশনটি গৃহীত হয়। রেজ্যুলেশনটি যৌথভাবে উত্থাপন করে ওআইসি এবং ইউরোপিও ইউনিয়ন।

বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও মানবিক সহায়তা প্রদান এবং জাতীয় কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন কর্মসূচিতে তাদেরকে অন্তর্ভূক্ত করার মাধ্যমে বাংলাদেশ যে উদারতা ও মানবিকতা প্রদর্শন করেছে, রেজ্যুলেশনটিতে তার ভূয়সী প্রশংসা করা হয়। কক্সবাজারের অত্যন্ত জনাকীর্ণ আশ্রয় ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের একটি অংশকে ভাষানচরে স্থানান্তর এবং এ লক্ষ্যে এখানে অবকাঠামোসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা তৈরি করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার যে প্রচেষ্টা ও বিনিয়োগ করেছে তারও স্বীকৃতি দেওয়া হয় রেজ্যুলেশনটিতে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ও জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের মধ্যকার সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরকে স্বাগত জানানো হয়।

            রেজ্যুলেশনটিতে প্রাথমিকভাবে দৃষ্টি দেওয়া হয়েছে, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার পরিস্থিতি এবং ১ ফেব্রুয়ারি ২০২১-এ জরুরি অবস্থা জারির প্রেক্ষাপট এর মতো বিষয়গুলোর প্রতি। রোহিঙ্গা সমস্যার মূল কারণ খুঁজে বের করা, বাংলাদেশের সাথে স্বাক্ষরিত দ্বি-পাক্ষিক চুক্তির বাধ্যবাধকতাগুলো পূরণ করা, এবং মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূতসহ জাতিসংঘের সকল মানবাধিকার ব্যবস্থাপনাকে পূর্ণ সহযোগিতা প্রদান করতে এবারের রেজ্যুলেশনে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান

2021-11-18-16-47-a5de09b90d5d014ad8db94c825784432.doc 2021-11-18-16-47-a5de09b90d5d014ad8db94c825784432.doc

Share with :

Facebook Facebook