তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৭ নভেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী 27.11.2019

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ৪৫০৪

চলমান নৌ-ধর্মঘট প্রত্যাহার

 

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) : 

 

         গত মধ্য রাত থেকে চলমান বিভিন্ন শ্রমিক ইউনিয়নের ডাকা নৌ-ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

         

          আজ শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিভিন্ন শ্রমিক ইউনিয়নের দাবিনামার বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনার প্রেক্ষিতে শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ এ ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

 

          নৌ পরিবহন খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বুক প্রদানের বিষয়ে মনিটরিংয়ের জন্য নৌ পরিবহন অধিদপ্তর তাদের বার্ষিক সার্ভে চেক লিস্টে অন্তর্ভুক্ত করবে। এ খাতের শ্রমিকদের খাদ্য ভাতা প্রদানের বিষয়ে বৈঠকে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। এ প্রসঙ্গে আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক করে মার্চ ২০২০ এর মধ্যে বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হবে। তৈলবাহী জাহাজ ট্যাংকারের ভাড়া বাড়ানোর দাবি তুললে এ বিষয়ে আগের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া মালিকরা তৈল পরিবহন রুটে নিয়মিত ড্রেজিংয়ের অনুরোধ করেন। 

 

          বৈঠকে নৌ পরিবহন শ্রমিকদের প্রোভিডেন্ট ফান্ড এবং ওয়েলফেয়ার ফান্ড গঠনের বিষয়ে নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে দায়িত্ব দেয়া হয়।

 

          গত মধ্য রাত থেকে বাংলাদেশ লাইটারেজ শ্রমিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ কার্গো ট্রলার বাল্কহেড শ্রমিক ইউনিয়ন এবং বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক লীগ  চলমান এ নৌ ধর্মঘট আহ্বান করে।        

         

#

 

আকতারুল/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/২১৪০ ঘণ্টা   

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৪৫০৩
 
নৌ শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বুক দিবে মালিকরা
 
ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :
নৌ পরিবহন খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র এবং সার্ভিস বুক প্রদান করবেন মালিকরা। এ কার্যক্রম সঠিকভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে কি না তা মনিটরিং করবে নৌ পরিবহন অধিদপ্তর।
আজ ঢাকায় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশনের দাবিনামার বিষয়ে মালিক-শ্রমিক প্রতিনিধিদের সাথে ত্রি-পক্ষীয় মতবিনিময় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।
নৌ পরিবহন খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বুক প্রদানের বিষয়ে মনিটরিংয়ের জন্য নৌ পরিবহন অধিদপ্তর তাদের বার্ষিক সার্ভে চেক লিস্টে অন্তর্ভুক্ত করবে। এ খাতের শ্রমিকদের খাদ্য ভাতা প্রদানের বিষয়ে বৈঠকে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। এ প্রসঙ্গে আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক করে বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়া হবে। তৈলবাহী জাহাজ ট্যাংকারের ভাড়া বাড়ানোর দাবি তুললে এ বিষয়ে আগের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া মালিকরা তৈল পরিবহন রুটে নিয়মিত ড্রেজিংয়ের অনুরোধ করেন।
বৈঠকে নৌ পরিবহন শ্রমিকদের প্রোভিডেন্ট ফান্ড এবং ওয়েলফেয়ার ফান্ড গঠনের বিষয়ে নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে তা বাস্তবায়নের নির্দেশ দেয়া হয়। 
এছাড়া বৈঠক শেষে শ্রম প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশন নেতৃবৃন্দকে তাদের ২৯ নভেম্বর মধ্য রাত থেকে আহুত কর্মবিরতি প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।
#
আকতারুল/নাইচ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/২০৫০ঘণ্টা
 

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৪৫০২

 

দেশের জিডিপি ও মাথা পিছু আয় বেড়েছে

                              ---পরিকল্পনা মন্ত্রী

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :

          পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘সার্বিকভাবে আমাদের অর্থনীতি সুসংহত-সহ আর্থ-সামাজিক অবস্থাও সুরক্ষিত হচ্ছে। তিনি বলেন, আমাদের জিডিপি ও মাথাপিছু আয় বেড়েছে, গর্ব করার মতো রিজার্ভ ও রেমিট্যান্স বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশের ৯৫ শতাংশ মানুষ এখন বিদ্যুৎ সুবিধা পাচ্ছেন। দারিদ্র্য কমছে, সবক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ বাড়ছে। অর্থ্যাৎ দেশের সার্বিকভাবে উন্নয়ন হয়েছে।’

          আজ ঢাকার এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেক্ষিত পরিকল্পনা (২০১০-২০২১) এর মধ্যমেয়াদি বাস্তবায়ন অগ্রগতি অবহিতকরণ ও প্রতিবেদনের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বইটি প্রণয়নে মূখ্য ভূমিকা পালন করেন পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ড. শামসুল আলম।    

          অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম ও বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান এবং পরিকল্পনা সচিব মো নুরুল আমিন-সহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

#

শাহেদ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২০৩০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ৪৫০১
 
রেমিট্যান্স আনতে জনতা ব্যাংকের সঙ্গে চুক্তি করবে ইউএই’র আর এ কে ব্যাংক
 
 
ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, সরকারের উদ্দেশ্য হচ্ছে জনগণকে সেবা দেয়া। রেমিট্যান্স আমাদের অর্থনীতির মেরুদন্ড। রেমিট্যান্স হলো ড্রাইভিং ফোর্স। সংযুক্ত আরব আমিরাতের আরএকে ব্যাংক আমাদের দেশীয় কোন ব্যাংকের সাথে পার্টনারশিপে রেমিট্যান্স প্রেরণে সহায়তা করবে। এর মাধ্যমে বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রেরণ অনেকগুণে বেড়ে যাবে।
আজ অর্থমন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশ সচিবালয়ে তার দপ্তরে চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স অভ্ ইউএই এম্বাসি আব্দুল্লাহ আলির নেতৃত্বে নয় সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল সাক্ষাৎ করতে আসলে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
এর আগে অর্থমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন এডিবি’র কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ এবং ট্রেজারার ও মিশন লিডার পিয়েরে ভ্যান পিটহেম-সহ (চরবৎৎব ঠধহ চবঃবমযবস) প্রতিনিধিদল। 
সাক্ষাৎ শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, এডিবি আমাদের দেশে শিল্পায়নে বিকল্প উৎস হিসাবে অর্থায়ন করতে আগ্রহী। আমাদের বিভিন্ন খাতে তারা পূর্ব থেকেই কাজ করছে এবার এ খাতে তারা কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করছে। এডিবির সাথে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। তারা কর্পোরেট হাউজের জন্য কর্পোরেট বন্ডের ব্যবস্থা করতে চায় বলে জানান মন্ত্রী। 
#
গাজী তৌহিদুল/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/২০৪০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ৪৫০০

আগামী ৯ ডিসেম্বর ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহম

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) : 

বাংলাদেশের আকাশে আজ কোথাও ১৪৪১ হিজরি সনের রবিউস সানি মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে আগামীকাল ২৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রবিউল আউয়াল মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং আগামী ২৯ নভেম্বর শুক্রবার থেকে রবিউস সনি মাস গণনা করা হবে। পরিপ্রেক্ষিতে, আগামী ৯ ডিসেম্বর সোমবার ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহম পালিত হবে। 

আজ সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররমস্থ সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কাজী হাসান আহমেদ।

সভায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব ড. মোঃ মুশফিকুর রহমান, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মোঃ জহির আহমদ, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব কাজী নূরুল ইসলাম, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক (প্রশাসন/অর্থ) মোঃ জহিরুল ইসলাম মিয়া, তথ্য অধিদফতরের সিনিয়র উপ প্রধান তথ্য অফিসার  মোঃ জসীম উদ্দিন, বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠানের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শাহ মোঃ মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আবদুর রহমান, ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মুহাম্মাদ আবদুর রশীদ, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, চকবাজার শাহী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা শেখ নাঈম রেজওয়ান ও লালবাগ শাহী জামে মসজিদের খতিব মুফতি মুহাম্মদ নেয়ামতুল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

#

 

নিজাম/ফারহানা/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/২০০০ ঘণ্টা   

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৪৪৯৯

 

বিএনপি’র প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ জঙ্গিপক্ষাবলম্বন জঙ্গিদমনে বড় প্রতিবন্ধক

                                                                                              --- তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :

          ‘প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ বিএনপি’র জঙ্গিপক্ষাবলম্বন জঙ্গিদমনে বড় প্রতিবন্ধকতা’ বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান gvn&gy`।

          আজ ঢাকার সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি-ডিআরইউ এর সাগর-রুনি মিলনায়তনে ‘ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০১৯’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সমসাময়িক প্রসঙ্গে তিনি একথা বলেন।

          রাজধানীর গুলশানে ২০১৬ সালে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনার পর গণমাধ্যমের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের প্রশংসা করে সদ্যঘোষিত হলি আর্টিজান হত্যাকা-ের রায়ের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন,‘আপনারা জানেন, হলি আর্টিজান হত্যাকা-ের রায়ে ৭ জনের ফাঁসি হয়েছে। এই হলি আর্টিজানে জঙ্গিরা যেভাবে হত্যাকা- ঘটিয়েছে, তারপর গণমাধ্যমে যে রিপোর্ট হয়েছে, আমি মনে করি সেগুলো এ ঘটনার গভীরে যাওয়ার ক্ষেত্রে বা এই ঘটনার বিচার প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। ভবিষ্যতে যাতে আর জঙ্গি তৈরি না হয়, এই রিপোর্টগুলো সেবিষয়েও সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।’

          অপরদিকে বিএনপি’র ভূমিকাকে জঙ্গিদমনের প্রতিবন্ধক বলে বর্ণনা করে ড. হাছান বলেন, ‘দুঃখের বিষয় জঙ্গিদের যখন ধরা হচ্ছিল, তখন এই বাংলাদেশের একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন- কিছু লোককে ধরে এনে কিছুদিন রেখে দেয়া হয়, চুল-দাড়ি লম্বা হলে তাদেরকে নাকি জঙ্গি হিসেবে আখ্যা দেয়া হয়। বিশেষ করে বিএনপির পক্ষ থেকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর-সহ অনেক নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তৃতায় এই ধরণের দায়িত্বহীন কথাবার্তা বারংবার বলেছেন। যখনই কোনো জঙ্গি ধরা হলো, বা এনকাউন্টারে যখন কোনো জঙ্গির মৃত্যু হয়, তখন তারা নানা প্রশ্ন তুলেছেন। এই যে পরোক্ষভাবে বা প্রত্যক্ষভাবে জঙ্গিদের সহায়তা করা, এটি জঙ্গি দমনে বড় প্রতিবন্ধকতা।’

          ‘আমাদের দেশে আমরা জঙ্গিদমনে যতটুকু সফল হয়েছি, পৃথিবীর অনেক রাষ্ট্র এত সফল হয়নি’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা জঙ্গি নির্মূল করতে পেরেছি, একথা আমি বলবো না। কিন্তু জঙ্গিবাদ এবং জঙ্গি দমন করতে সক্ষম হয়েছি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু করে ইউরোপেও এ ধরণের ঘটনা ঘটছে। আমাদের দেশে যেভাবে ঘটনা প্রবাহ ঘটছিল, সেগুলো সরকারের তড়িৎ পদক্ষেপে আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, গোয়েন্দা বাহিনী, একইসাথে গণমাধ্যমের সম্মিলিত ভূমিকার কারণে সেই জঙ্গিবাদ দমনে অনেক দেশের তুলনা আমরা অনেক সফল হয়েছি।

          ‘গণমাধ্যম ভাষাহীনদের ভাষা এবং ডিআরইউ পুরস্কার একটি ভালো উদ্যোগ’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ এসময় বলেন, সমাজের তৃতীয় নয়ন খুলে দেয়ার মতো দায়িত্বশীল রিপোর্টিং-এর ক্ষেত্রে এধরনের পুরস্কার অত্যন্ত উৎসাহব্যঞ্জক। গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা যাদের ভাষা নেই তাদেরকে ভাষা দিতে পারে, যার কাছে ক্ষমতা নেই তাকে ক্ষমতাবান করতে পারে, যে প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না, তাকে প্রতিবাদী হওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করতে পারে। সুতরাং এ দায়িত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এজন্যই গণমাধ্যমকে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলা হয়। স্বাধীনতার পূর্বকালে আমাদের স্বাধিকার সংগ্রাম থেকে স্বাধীনতা এবং স্বাধীনতাউত্তরকালে গণতন্ত্রকে শেকলবন্দি করে গণতন্ত্রের নামে যখন ‘মার্শাল ডেমোক্রেসি’ চালু করা হয় তখনও, গণমাধ্যমের যে বিশাল ভূমিকা, তা অনস্বীকার্য।

          এ সময় অসত্য বা ভুল তথ্যের বিষয়ে সতর্কবার্তাও দেন তরুণ বয়সে সাংবাদিকতার অভিজ্ঞতাসমৃদ্ধ তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, একইসাথে আরো যে বিষয় মাথা রাখা প্রয়োজন, সেটি হচ্ছে একটি ভুল কিংবা অসত্য রিপোর্ট সমাজ, রাষ্ট্র বা কোনো ব্যক্তির জন্য ক্ষতিকর হতে পারে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এটি সাংবাদিকদের দায়িত্ব।

          মন্ত্রী বলেন, ‘আজকাল সবার আগে সর্বশেষ সংবাদ পরিবেশন করতে গিয়ে দেখা যায়, অনেক সময় ভুল রিপোর্ট পরিবেশিত হয়েছে, বিশেষ করে অনলাইন মাধ্যমে। পত্রিকায় সেটি কমই হয়, কারণ পত্রিকায় সংবাদ এডিটিং এর মাধ্যমে যায়। অনলাইনে হয়তো কোনো সংবাদ প্রোগ্রামের সাথে সাথে হুট করে বা সবার আগে তাড়াহুড়া করে দেয়ার ক্ষেত্রে এটা ঘটে, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়। সুতরাং এক্ষেত্রে অবশ্যই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।’

          অনুষ্ঠানে ৯টি ক্যাটেগরিতে ‘ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড হিসেবে ১০ জন বিজয়ীর হাতে ক্রেস্ট, সনদপত্র ও নগদ ৫০ হাজার টাকা মূল্যমানের চেক তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন পুরস্কারের জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান ডিআরইউ’র সাবেক সভাপতি শাহজাহান সরদার ও জুরি বোর্ডসদস্য জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম ও সিনিয়র সাংবাদিক মনোয়ার হোসেন। ডিআরইউ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

          এবারের বিজয়ীরা হলেন-প্রিন্ট ও অনলাইন ক্যাটেগরির মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে দৈনিক যুগান্তরের মিজানুর রহমান চৌধুরী, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যে ডেইলি স্টারের মোহাম্মদ আল-মাসুম মোল্লা, অনুসন্ধানে বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিক, বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে যুগ্মভাবে দ্য ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের জসিম উদ্দিন হারুন ও দৈনিক কালের কণ্ঠের জিয়াদুল ইসলাম, ক্রীড়ায় দৈনিক প্রথম আলোর তারেক মাহমুদ, সাহিত্য-সংস্কৃতি-ঐতিহ্যে দৈনিক সমকালের তপন দাস। টেলিভিশন ক্যাটেগরিতে সেবাখাতে এনটিভির শফিক শাহীন, অনুসন্ধানে একাত্তর টিভির আদনান খান (নয়ন আদিত্য) এবং বাণিজ্য ও অর্থনীতিতে চ্যানেল ২৪ এর মোর্শেদ হাসিব হাসান।

          ডিআরইউ’র সাংগঠনিক সম্পাদক ও বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড উপকমিটির আহ্বায়ক আফজাল বারীর সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খান। এছাড়া পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্য থেকে অনুভূতি প্রকাশ করেন এনটিভির শফিক শাহীন ও বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিক।

#

আকরাম/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৯৪০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৪৪৯৮

 

দারিদ্র্য দূরীকরণে বেসরকারি সংস্থাকে এগিয়ে আসার আহ্বান পরিকল্পনা মন্ত্রীর

 

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :

          দারিদ্র্য দূরীকরণে বেসরকারি সংস্থাকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, নানা সীমাবদ্ধতার কারণে দারিদ্র্য দূরীকরণে অনেক এলাকায় সরকারের একার পক্ষে কাজ করা সম্ভব হয় না সেখানে বেসরকারি সংস্থাগুলো ভূমিকা রাখতে পারে।

          আজ রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘কাউকে পশ্চাতে রেখে নয়, হাওর উন্নয়নে সমন্বিত প্রয়াস’ বিষয়ক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। ব্র্যাক সমন্বিত উন্নয়ন কর্মসূচি এ সেমিনার আয়োজন করে।

          দারিদ্র্য দূরীকরণে সরকার গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচির কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, বার্ষিক, পঞ্চ-বার্ষিক এমনকি শত-বার্ষিক পরিকল্পনা গ্রহণ করে সরকার মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে।

          ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহর সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তৃতা করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক ছিদ্দিকুর রহমান ও ব্র্যাকের পরিচালক আন্না মিনজ।

#

শাহেদ/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৯৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ৪৪৯৭

 

সহযোগিতা ও অংশীদারিত্ব জেন্ডার সমতা অর্জনে জোরদার ভূমিকা রাখবে

                                           -- মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) : 

  

          ম‌হিলা ও শিশু বিষয়ক প্র‌তিমন্ত্রী ফ‌জিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, সহযোগিতা ও অংশীদারিত্ব এশিয়া - প্যাসিফিক অঞ্চলে নারীর উন্নয়ন, ক্ষমতায়ন ও জেন্ডার সমতা অর্জনে জোরদার ভূমিকা রাখবে। ইকনোমিক এন্ড সোশ্যাল কমিশন ফর এশিয়া এন্ড প্যাসিফিক (এসক্যাপ) কনফারেন্স নারী নেতৃত্ব বিকাশেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ থাইল্যান্ডের ব্যাংককে ইউনাইটেড ন্যাশনস কনফারেন্স সেন্টারে বেইজিং প্লাস ২৫ রিভিউ বিষয়ে এশিয়া প্যাসিফিক মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্সে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন। ২৭-২৯ নভেম্বর ব্যাংককে অনুষ্ঠিত এ কনফারেন্সে প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে এ প্রতিনিধিদলে রয়েছেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার।

 

          প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ জেন্ডার সমতা ও নারীর ক্ষমতায়নে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে। ওয়ার্ল্ড জেন্ডার গ্যাপ রিপোর্ট অনুযায়ী বাংলাদেশ  নারীর  অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে বিশ্বের ১৪৯ দেশের মধ্যে  ৪৮তম ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে বিশ্বে ৫ম স্থানে রয়েছে।  এ সকল অর্জনে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার অন্য সব দেশের উপরে অবস্থান করছে।

#

আলমগীর/ফারহানা/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/১৯৪০ ঘণ্টা   

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ৪৪৯৬

 

বাংলাদেশে প্রবাসীদের রেমিটেন্স পাঠাতে ডাক বিভাগকে

সহযোগী হিসেবে চায় সংযুক্ত আরব আমিরাত

 

ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) : 

 

          সংযুক্ত আরব আমিরাতের  রেক ব্যাংক বাংলাদেশি প্রবাসিদের টাকা  দেশে তাদের প্রাপকের হাতে পৌঁছানোর জন্য  ডাক বিভাগকে সহযোগী হিসেবে নেওয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

 

          বাংলাদেশে সফররত  সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজপরিবারের সদস্য শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মুয়াল্লা ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সাথে আজ ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর দপ্তরে সাক্ষাৎকালে এই আগ্রহের কথা জানান।

 

          শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ আরব আমিরাতের রেক ব্যাংকের সাথে ডাকঘর, নগদ এবং ডাক টাকার মাধ্যমে আরব আমিরাতে কর্মরতদের রেমিটেন্স তাদের প্রাপকদের হাতে পৌঁছানোর ব্যবস্থা চালুর প্রস্তাব করেন। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী তাঁর এই প্রস্তাবকে স্বাগত জানান। এছাড়াও সাক্ষাৎকালে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে তারা আলোকপাত করেন।

 

          মন্ত্রী বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাত ভ্রাতৃপ্রতীম দু’টি দেশের মধ্যে ঐতিহাসিক সম্পর্কের উল্লেখ করেন বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি শ্রম বাজার। বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে প্রতিবছর প্রচুর দক্ষ জনসম্পদ তৈরি হচ্ছে। এই খাতে আরব আমিরাতে দক্ষ কর্মী নিয়োগে দু’দেশই উপকৃত হবে। তিনি বলেন, প্রযুক্তির লেটেস্ট ভার্সন ফাইভ জি বাংলাদেশ ২০২১ সালে চালু হবে।

 

          শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ বাংলাদেশের ডিজিটাল প্রযুক্তিসহ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় সরকারের গৃহীত উদ্যোগের প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশে ফাইভ জি-সহ টেলিযোগাযোগ খাতের বিভিন্ন শাখায় বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

#

শেফায়েত/ফারহানা/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/১৮৪০ ঘণ্টা   

  তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৪৪৯৫
 
অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধে পরিকল্পনার পাশাপাশি প্রয়োজন সচেতনতা
    --- স্বাস্থ্যমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :
স¦াস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, সিরোসিস-সহ নানাবিধ অসংক্রামক রোগের প্রধানতম কারণ হচ্ছে জীবন মানে অসতর্কতা। এই রোগগুলির কারণে রোগাক্রান্ত মানুষটির যেমন ক্ষতি হচ্ছে, তেমনি তার পরিবার তথা দেশেরও ক্ষতি হচ্ছে। একারণে অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকারের বহুমাত্রিক পরিকল্পনার পাশাপাশি জনসচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। 
আজ রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের জন্য বহুখাতভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা ২০১৮-২৫’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
অসংক্রামক রোগের ঝুঁকি প্রসঙ্গে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘দীর্ঘমেয়াদী রোগগুলো একবার হয়ে গেলে তা সারাজীবন থাকে, তাই রোগ নিরাময়ের পরিবর্তে আমাদের রোগ প্রতিরোধের ওপর অধিক গুরুত্ব আরোপ করা উচিত’। প্রণয়নকৃত ‘বহুখাতভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা এই ঝুঁকি নিয়ন্ত্রণের কার্যক্রমের মূল বুনিয়াদী নকশা হিসেবে বিবেচিত হবে। ‘সকল নীতিতে স্বাস্থ্য’ এই মূলমন্ত্র ধারণ করে যদি সকল বিভাগ, সংস্থা ও দপ্তর তাদের কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ করেন, সমাজের সকল অংশ, গণমাধ্যমকর্মীগণ, রাজনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় নেতৃত্ব সকলে যদি একযোগে কাজ করে তবেই অসংক্রামক রোগের আসন্ন মহামারী মোকাবিলায় সফলতা লাভ করা সম্ভব হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি স্বাস্থ্য সহায়তা ট্রাস্টের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন ও বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মোঃ আসাদুল ইসলাম। এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও সংস্থার উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা, শিক্ষাবিদ, সমাজকর্মী, গণমাধ্যমকর্মী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
#
মাইদুল/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮৫০ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৪৪৯৪
 
বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সাথে থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ
 
ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সাথে বাংলাদেশে নিযুক্ত থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত অৎঁহৎঁহম চযড়ঃযড়হম ঐঁসঢ়যৎবুং আজ সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তাঁরা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট  বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। 
প্রতিমন্ত্রী রাষ্ট্রদূতকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সকল প্রকার বিনিয়োগকে উৎসাহিত করবে। ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্টের আওতায় জ্বালানি সহযোগিতা বাড়ানো যাবে। থাইল্যান্ডের সিয়াম গ্যাস, পিটিটি, সাইও ট্রিপল এ গ্রুপ বাংলাদেশে কাজ করার আগ্রহ দেখিয়েছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি, বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ, এলপিজি ইত্যাদি ক্ষেত্রে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। তিনি এ সময় সহযোগিতার ক্ষেত্র বাড়াতে দ্বি-পাক্ষিক সভার ওপর গুরুত্ব দেন।
থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত, প্রদত্ত খসড়া সমঝোতা স্মারক চুক্তি স্বাক্ষরের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ডের পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য এই সমঝোতা অপরিহার্য। জ্বালানি সহযোগিতা বৃদ্ধির সাথে সাথে অর্থনৈতিক, শিল্প ও সামাজিক উন্নয়নেরও অগ্রগতি হবে। তিনি বলেন, জ্বালানি ফোরামের আওতায় নবায়নযোগ্য জ্বালানি বা এলপিজি বিষয় কার্যক্রমের দৃশ্যমান অগ্রগতি হবে। 
  এ সময় অন্যান্যের মাঝে থাই অ্যাম্বাসির কাউন্সিলর কৎধরপযড়শ অৎঁহঢ়ধরৎড়লশঁষ উপস্থিত ছিলেন। 
#
আসলাম/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮৩৫ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৪৪৯৩
 
সেনাবাহিনী অতীতের ন্যায় নিপুণভাবে কাজ করবে
                           --- পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :
পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, সেনাবাহিনী অতীতের ন্যায় নিপুণভাবে কাজ করবে। প্রত্যেক সরকারি কাজ পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় বা সেনাবাহিনীর পৃথক কাজ না ভেবে সবাইকে একসাথে কাজ করে যেতে হবে।
প্রতিমন্ত্রী আজ পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মধ্যে ‘কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন উপজেলাধীন নির্মিতব্য মিঠামইন সেনানিবাস স্থাপনার ভূমি সমতল উঁচুকরণ, ওয়েভ প্রটেকশন ও তীর প্রতিরক্ষা কাজ’ শীর্ষক প্রকল্পের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সেনাবাহিনীর সাথে স্বাক্ষরিত এই একাদশতম প্রকল্পে সেনানিবাস স্থাপনের বিষয়টি থাকায় প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর কাছে আলাদা গুরুত্ব রাখবে। কাজের গুণগতমানের সাথে আপোশ না করার নির্দেশনা দিয়ে উপমন্ত্রী বলেন, মানবতার বৃহত্তর কল্যাণে প্রত্যেক প্রকল্প গৃহীত হচ্ছে যা উন্নত বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখবে ।
সমঝোতা স্মারকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষে ময়মনসিংহ (বাপাউবো) এর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী একেএম সফিকুল হক এবং সেনাবাহিনীর পক্ষে লেকর্নেল মোঃ বদরুল আহসান খান সমঝোতা স¥ারকে স্বাক্ষর করেন। এ সময় কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের এমপি রিজওয়ান আহাম্মেদ তৌফিক, মেজর জেনারেল ইবনে ফজল শায়খুজ্জামান-সহ পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
#
আসিফ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮৩০ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৪৪৯২
 
প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল বিএসসি’র নতুন পাঁচটি জাহাজের উদ্বোধন করবেন
ঢাকা, ১২ অগ্রহায়ণ (২৭ নভেম্বর) :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন (বিএসসি) এর নতুন পাঁচটি সমুদ্রগামী জাহাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে জাহাজগুলোর উদ্বোধন করবেন। 
জাহাজগুলোর মধ্যে তিনটি প্রোডাক্ট অয়েল ট্যাংকার (তেলবাহী) এবং তিনটি বাল্ক ক্যারিয়ার (পণ্যবাহী)। ছয়টি জাহাজের মধ্যে প্রথমটি ‘এমভি বাংলার জয়যাত্রা’ ২০১৮ সালের পহেলা নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেন। আগামীকাল দু’টি বাল্ক ক্যারিয়ার ও তিনটি প্রোডাক্ট অয়েল ট্যাংকার উদ্বোধন করা হবে। জাহাজগুলো হলো-‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’;  ‘এমভি বাংলার অর্জন’; ‘এমটি বাংলার অগ্রযাত্রা’; ‘এমটি বাংলার অগ্রদূত’  এবং ‘এমটি বাংলার অগ্রগতি’।
বাংলাদেশ ও চীন সরকারের মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী ছয়টি জাহাজ  সংগ্রহে ব্যয় ধরা হয় ১ হাজার ৬৩৭ কোটি ১৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে চীন সরকারে সহায়তা ১ হাজার ৫২৭ কোটি ৬৬ লাখ টাকা  এবং  বিএসসি’র নিজস্ব অর্থ ১০৯ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। প্রতিটি জাহাজের ধারণক্ষমতা ৩৯ হাজার ডিডব্লিউটি (ডেড ওয়েট টন)।
#
জাহাঙ্গীর/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী               &

1a8d4a9a4e841eb990044fa50e947c40.docx 1a8d4a9a4e841eb990044fa50e947c40.docx

Share with :

Facebook Facebook