তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৪ মে ২০২২

তথ্যবিবরণী ১৪ মে ২০২২

তথ্যবিবরণী                                                                                                                      নম্বর: ১৯৪১  

অধ্যাপক আনিসুজ্জামান সবসময় মানবতার জয়গান গেয়েছেন

                                                         -- পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে):

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান সবসময় মানবতার জয়গান গেয়েছেন। তিনি ছিলেন একটি ইনস্টিটিউশন এবং বাংলাদেশের মানুষের মঙ্গলই তাঁর চিন্তার খোরাক ছিল। 

আজ জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে চন্দ্রাবতী প্রকাশনী আয়োজিত অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের স্মরণসভা ও আলোকচিত্র গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। ড. মোমেন বলেন, অধ্যাপক আনিসুজ্জামান আমাদের সংস্কৃতিকে সমুন্নত রাখতে কাজ করেছেন এবং বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে তিনি পরিপূর্ণভাবে সংজ্ঞায়িত করেছেন। অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের প্রয়াণ আমাদের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি বেঁচে থাকলে আমরা তাঁর কাছে মানবকল্যাণের আরও অনেক কিছু আমরা শিখতে পারতাম। ড. মোমেন বলেন, অধ্যাপক আনিসুজ্জামান চলে গেলেও তাঁর সৃষ্টি রয়ে গেছে। তাঁর সৃষ্টির মধ্যেই তিনি আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন। অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের শিক্ষা এবং তাঁর স্বকীয় 
চিন্তা-চেতনা বিভিন্ন প্রকাশনার মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী অনুষ্ঠানে অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের দুর্লভ ছবিগুলো নিয়ে ‘আমার মুক্তি আলোয় আলোয়’ নামে চন্দ্রাবতী প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত আলোকচিত্র গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন।

সুরের ধারার চেয়ারম্যান সংগীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় অন্যান্যের মধ্যে অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের স্মৃতিচারণ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য কবি-শিক্ষাবিদ ড. মুহাম্মদ সামাদ, কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক, ‘আমার মুক্তি আলোয় আলোয়’ আলোকচিত্র গ্রন্থের সম্পাদক কবি মারুফুল ইসলাম এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আবুল খায়ের লিটু।

#

মোহসিন/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/শামীম/২০২২/২১৫৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর: ১৯৪০

উপ-মন্ত্রী এনামুল হক শামীমের মায়ের ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী ১৫মে

শরীয়তপুর, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে):

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীমের রত্নগর্ভা মা মরহুমা বেগম আশ্রাফুন্নেছার ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল ১৫ মে। এ উপলক্ষ্যে আগামীকাল বাদ জোহর পরিবারের পক্ষ থেকে মরহুমার নিজ বাড়ি সখিপুরের চরভাগা পাইক বাড়ি জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে। পাশাপাশি নড়িয়া ও সখিপুরের বিভিন্ন মসজিদেও মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে।

এছাড়া উপমন্ত্রী, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মরহুমার কবরে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করবেন বলেও জানা গেছে।

উল্লেখ্য মৃত্যুকালে মরহুমার স্বামী বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী আবুল হাসেম মিয়া, বড় ছেলে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি, মেজো ছেলে মেজর জেনারেল আমিনুল হক স্বপন, ছোটো ছেলে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. আশ্রাফুল হক সিয়াম ও মেয়ে একটি বেসরকারি ব্যাংকে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা শামীম আরা কাকলী সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মরহুমার রুহের মাগফিরাত কামনায় তাঁর বড় ছেলে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

#

গিয়াস/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/শামীম/২০২২/২১৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর: ১৯৩৯

নিজেদের পালানোর পথ খুঁজুন -বিএনপিকে ড. হাছান

চট্টগ্রাম, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, “শ্রীলঙ্কার নেতারা এখন যেভাবে পালাচ্ছে, বিএনপির নেতারা সেভাবে আগেই পালিয়ে গেছে। তারেক রহমান ‘আমি আর রাজনীতি করবো না’ মুচলেকা দিয়ে পালিয়ে গেছেন।” 

আজ বন্দরনগরী চট্টগ্রামের জিইসি কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল প্রতিনিধি সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন মন্ত্রী। গত সপ্তাহে বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্য ‘শ্রীলঙ্কার চেয়েও আওয়ামী লীগের অবস্থা খারাপ হবে’ এর জের ধরে তিনি এ কথা বলেন। 

‘যারা শ্রীলঙ্কার তুলনা বাংলাদেশে দেয়, তারা অনেক আগেই শ্রীলঙ্কার মতো পালিয়েছেন, কেননা আজকের শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতিতে তারাও পড়েছিলেন, তাই তারা এসব কথা বলছেন’ উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তারেক জিয়া আর রাজনীতি করবে না বলে বাংলাদেশে মুচলেকা দিয়ে চলে গিয়েছিল। কিন্তু এখনও রাজনীতি করছে। তাদের যদি লজ্জা থাকে। তাহলে জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেবে।’

অতীত টেনে মন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকায় তাদের নেতা মাহবুবুর রহমানকে তাদের দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণ ধাওয়া করেছিল। ৮০ সালে জিয়াউর রহমান যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যান তখন তাকেও ধাওয়া করেছিল। এখন নিজেরা কীভাবে পালাবেন সেটির পথ খুঁজুন।’

ড. হাছান বলেন, ‘আমাদের সরকার যখন পদ্মা সেতু করছিল, তখন বিএনপি দেশে গুজব ছড়িয়ে ছিলো যে পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে। তাদের গুজব সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে, এতে অনেক নিরীহ মানুষ মারা যায়। এখন বিএনপির মহাসচিব, যুগ্ম মহাসচিবসহ তাদের নেতারা পদ্মা নদীর ওপারে কীভাবে যাবেন-তা দেখার অপেক্ষায় আছি। তারা কি গাড়িতে চড়ে পদ্মা সেতুর উপর দিয়ে যাবেন, নাকি আওয়ামী লীগের নৌকায় চড়ে ওপারে যাবেন-সেটি দেখার অপেক্ষায় আছি।’

এসময় তৃণমূল প্রতিনিধিদের প্রশংসা করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, তৃণমূল হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রাণ। জন্মলগ্ন থেকে তৃণমূলের নেতারাই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে টিকিয়ে রেখেছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিভিন্ন সময়ে ইতিহাসের বাঁকে বাঁকে নানা সমস্যা নানা প্রতিকূলতা অতিক্রমকালে অনেক নেতা দ্বিধান্বিত ও বিচলিত হয়েছে, অনেক নেতা দল ত্যাগ করেছে, মূল নেতৃত্বের সাথে বেঈমানী করেছে। কিন্তু তৃণমূল কখনো বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাথে বেঈমানী করে নাই।’

প্রায় সাড়ে ১৩ বছর ক্ষমতায় থাকার কারণে দলের অনেকের আলস্য ও সুবিধাবাদীদের অনুপ্রবেশের বিষয়ে সতর্কবার্তা দেন ড. হাছান। তিনি বলেন, সভায় কোনো নেতা এলে বিপুল স্লোগান আর সেলফি তোলার প্রতিযোগিতা হয় এবং ফেসবুকে শুধু সেই ছবি দেয়া ছাড়া বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অন্য কাজ কর‍তে আমি দেখি না। দেশে প্রায় ৭ কোটি মানুষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে। কিন্তু সেই প্লাটফর্মে যখন আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বিরূপ সমালোচনা হয়, তার প্রতিবাদে আমাদের নেতা-কর্মীদের যেভাবে সরব হওয়া দরকার সেটি দেখি না। ১৩ বছর আগে দেশের অবস্থা কী ছিল, জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের কারণে কী হয়েছে, সেটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলে ধরতে হবে, বলেন তথ্যমন্ত্রী।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ এমপি’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন প্রধান অতিথি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ প্রধান বক্তা এবং আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ধর্ম সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, চিফ হুইপ আবু সাঈদ মাহমুদ স্বপন ও সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, ওয়াসিকা আয়েশা খান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

#

আকরাম/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/শামীম/২০২২/২০৫৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর: ১৯৩৮

ইউরিয়া সার উৎপাদন নিরবচ্ছিন্ন রাখতে হবে

                                      --শিল্প সচিব

তারাকান্দি (জামালপুর), ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :

শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা বলেছেন, সারের আমদানিনির্ভরতা কমিয়ে কৃষকদের নিকট যথাসময়ে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে ইউরিয়া সার উৎপাদন নিরবচ্ছিন্ন রাখতে হবে। অনিবার্য কারণ ছাড়া কারখানার উৎপাদন বন্ধ করা যাবে না। গ্যাসের চাপ কমজনিত সাম্প্রতিকসময়ে উৎপাদন বন্ধ করা প্রসঙ্গে সচিব বলেন, গ্যাসের সমস্যা সমাধানকল্পে পেট্রোবাংলাসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে আলোচনা করে সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

আজ জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলার তারাকান্দিতে যমুনা ফার্টিলাইজার কোম্পানী লিঃ পরিদর্শনকালে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে মতবিনিময় সভায় শিল্প সচিব এসব কথা বলেন। এসময় শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস আলম, জামালপুরের জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামান, যমুনা ফার্টিলাইজার কোম্পানী লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকির হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শিল্প সচিব বলেন, সার উৎপাদন ও মজুতের সঠিক হিসাব থাকতে হবে। উৎপাদনশীলতা বাড়াতে হবে। সারের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনতে হবে। তিনি কারখানার জন্য প্রয়োজনীয় পানি ভূউপরিস্থ উৎস থেকে ব্যবহারের পরামর্শ দেন। এজন্য নিকটস্থ প্রাকৃতিক উৎস যমুনা নদী কাজে লাগাতে হবে। 

সচিব সার উৎপাদন কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন এবং বাল্ক গোডাউন, স্টোর ও অন্যান্য স্থাপনা ঘুরে দেখেন। তিনি কারখানার সামগ্রিক পরিবেশ উন্নয়ন করতে ডাম্পিং গ্রাউন্ড তৈরি, বিভিন্ন স্থাপনা রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কারের বিষয়ে উদ্যোগ নিতে বলেন। কারখানার স্টোর পরিদর্শন করে তিনি বলেন, ইনভেন্টরি ব্যবস্থাপনা আধুনিকীকরণ করতে হবে। বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানে তিনি পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের সহযোগিতা নেয়ার কথা বলেন।

উল্লেখ্য জাপানের আর্থিক সহায়তায় মোট ২০০ একর জায়গা নিয়ে যমুনা ফার্টিলাইজার কোম্পানী লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করা হয়। এর বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ইউরিয়া সার প্রায় ৫ লাখ ৬১ হাজার মেট্রিক টন এবং এমোনিয়া প্রায় ৩ লাখ ৫৬ হাজার মেট্রিক টন।

#

মাহমুদুল/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/শামীম/২০২২/১৯৫৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর: ১৯৩৭

বাংলাদেশ কখনওই শ্রীলংকা হতে পারে না

                                -- জাহিদ ফারুক

বরিশাল, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :

পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে এসে পৌঁছেছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ২০৩০ সালের ভেতরে দেশ উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে উপনীত হবে। আর ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধিশালী দেশের কাতারে দাঁড়াবে। যারা বাংলাদেশকে শ্রীলংকার সাথে তুলনা করছে, তারা মনগড়া কথা বলছে। বাংলাদেশ কখনওই শ্রীলংকা হতে পারে না। শ্রীলংকার বর্তমান ফরেন রিজার্ভ হলো দুই বিলিয়ন ডলার, আর বাংলাদেশের ৪২ বিলিয়ন ডলার। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে শ্রীলংকাকেও লোন দেয়া হয়েছে।

আজ বরিশাল শিল্পকলা একাডেমির অডিটরিয়ামে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত কমিউনিটি পুলিশিং সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, বাংলাদেশে ২০১৭ সাল থেকে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উদযাপন করে আসছে। যারা সন্ত্রাস দমনসহ আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে নিয়োজিত থাকেন তাদের সাথে সাধারণ মানুষের মাঝে একটা বন্ধন সৃষ্টি করেছে কমিউনিটি পুলিশিং। পুলিশের সদস্যদের যে কাজে নিয়োজিত করা হয়েছে, সেই কাজটি সত্যিকার অর্থে বাস্তবায়ন করতে হলে কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্যদের সহযোগিতা অবশ্যই প্রয়োজন। একটি কমিউনিটির লোকজন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে একত্রিত হয়ে ওই এলাকার সন্ত্রাস দমন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করতে পারে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন বরিশাল সিটি মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহ । অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের কোন বিভাগ বা জেলায় কমিউনিটি পুলিশিং কতটা ভালো করছে তার কম্পিটিশন থাকা উচিত তাহলে এটার মান আরো উন্নয়ন হবে। কমিউনিটি পুলিশিং এ সদস্যদের এমনভাবে নেয়া উচিত যেখানে কোন রাজনীতি, স্বার্থ কাজ করা উচিত না। কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রমের মাধ্যমে নিরলসভাবে কাজ করে সমাজের মানুষকে নিরাপত্তা, আইনি সহায়তা ও সেবা দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে বিশেষ অবদান রাখা যাবে বলে আমরা মনে করি।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশকে সমৃদ্ধিশালী দেশে নিতে হলে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে। বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলা গড়ার যে স্বপ্ন দেখেছেন, তা বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছেন। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আপনাদের দায়িত্ব অপরিসীম। আপনাদের এলাকার আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে আরো সুন্দরভাবে কাজ করুন। যাতে এলাকাবাসী শান্তিতে বসবাস করতে পারে এবং এলাকার উন্নয়ন হয়। নারীদের ওপর নিপীড়ন বন্ধে, শিশুবান্ধব পরিবেশ এবং মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গড়তে কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্যদের ভূমিকা রাখতে হবে।

#

গিয়াস/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/শামীম/২০২২/১৯১৮ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ১৯৩৬

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৫৫ শতাংশ। এ সময় ৩ হাজার ৯৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। 

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কেউ মারা যায়নি। এ পর্যন্ত ২৯ হাজার ১২৭ জন করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৯ হাজার ১৫০ জন।

#

কবীর/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/রেজাউল/২০২২/১৮০৮ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ১৯৩৫

 

অপশক্তির বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে

        -- কৃষিমন্ত্রী

ঢাকা, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :

স্বাধীনতাবিরোধী ও দেশবিরোধী সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে বাম দল, কৃষক শ্রমিকসহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, দেশের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে স্বাধীনতাবিরোধী, ধর্মান্ধ ও দেশের উন্নয়নবিরোধী অপশক্তিরা এখনও তৎপর ও নানান পাঁয়তারা চালাচ্ছে। তারা দেশকে পিছনের দিকে নিয়ে যেতে চায়। এ দেশটাকে স্বাধীন করার জন্য ১৪ দল, ওয়ার্কাস পার্টি, কমিউনিস্ট পার্টিসহ বিভিন্ন বাম রাজনৈতিক দল আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। এখন স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি ক্ষমতায় আছে বলেই আমরা সারা বিশ্বে দেশটাকে মর্যাদা ও সম্মানে অনন্য উচ্চতায় তুলে ধরতে পেরেছি। কাজেই, অপশক্তির বিরুদ্ধে দেশের বাম দল, কৃষক শ্রমিকসহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

আজ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ মিলনায়তনে বাংলাদেশ কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশনের ৭ম জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সরকার যে কতটা কৃষিবান্ধব ও পল্লীবান্ধব-তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ হচ্ছে সরকার শুধু সারে বছরে ৩০ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয়া’। তিনি বলেন, বিএনপির আমলে ২০০৫-০৬ সালে যেখানে মোট উন্নয়ন বাজেট ছিল মাত্র ২১ হাজার কোটি টাকা, সেখানে এ বছর সরকার শুধু সারে ভর্তুকি দিচ্ছে ৩০ হাজার কোটি টাকা। বছরে ভর্তুকি লাগত ৭-৮ হাজার কোটি টাকা, দাম চারগুণ বৃদ্ধি পাওয়ায় এ বছর লাগছে ৩০ হাজার কোটি টাকা। তারপরও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারের দাম এক টাকাও বৃদ্ধি করেননি।

কৃষি ফার্ম শ্রমিকদের চাকরি স্থায়ীকরণ, জীবিকার জন্য ন্যায্য মজুরি নিশ্চিতকরণসহ বিভিন্ন দাবির বিষয়ে মন্ত্রী জানান, বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের কৃষি ফার্ম শ্রমিকদের চাকরি স্থায়ীকরণের বিষয়টি খুবই জটিল। তিনি বলেন, কৃষিকাজ মৌসুমভিত্তিক, সারা বছর সব শ্রমিকের কাজ থাকে না। যখন কাজ থাকে না, তখন মজুরি কীভাবে দেয়া হবে। এছাড়া, চাকরি স্থায়ী করলে শ্রমিকেরা ঠিকমতো কাজ করে না বলে অভিযোগ রয়েছে।

সারা বছর যে সংখ্যক শ্রমিকের কাজ থাকে, সেসব স্বল্প শ্রমিকের চাকরি স্থায়ীকরণের বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া হবে বলে এসময় জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলে উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। এছাড়া, মজুরির পরিমাণ বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হবে। বর্তমানে এক কেজি গরুর মাংস কিনতে যেখানে ৬০০-৭০০ টাকা লাগে, সেখানে একজন কৃষি ফার্ম শ্রমিক দিনে ৫০০ টাকা মজুরি পান। এটি খুবই কম।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশনের উপদেষ্টা সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি বাংলাদেশে আর চলবে না। বাংলাদেশ কখনও শ্রীলংকা হবে না। তবে যারা দুর্নীতি করে বিশাল সম্পদ কুক্ষিগত করে রেখেছে, তাদের স্বরূপ উন্মোচন করতে হবে।

বাংলাদেশ কৃষি ফার্ম শ্রমিক ফেডারেশনের সহসভাপতি মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। এসময় সারা দেশের বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের কৃষি ফার্ম শ্রমিকেরা উপস্থিত ছিলেন।

#

কামরুল/পাশা/এনায়েত/সঞ্জীব/রেজাউল/২০২২/১৮০০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ১৯৩৪

 

আওয়ামী লীগ রাজপথে থেকেই সকল ষড়যন্ত্রের জবাব দেবে

                                              -এনামুল হক শামীম

শরীয়তপুর, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে)

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক চেতনাকে সমুন্নত রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ এবং যেকোনো ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে প্রস্তুত। আর আওয়ামী লীগ রাজপথে থেকেই সকল ষড়যন্ত্রের জবাব দেবে।

আজ শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার জপসা ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি করতে করতে বিএনপি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তারা গণধিকৃত দলে পরিণত হয়েছে। আন্দোলনের ভয় আওয়ামী লীগকে দেখিয়ে লাভ নাই। দীর্ঘ আন্দোলন, লড়াই-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগ এ অবস্থানে এসেছে। ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য আওয়ামী লীগ কারো কাছে ধরণা দেয় না। আওয়ামী লীগ জানে, রাজনীতি করতে হলে জনগণের ভালোবাসা ও সমর্থন প্রয়োজন। কিন্তু ক্ষমতালিপ্সু বিএনপি হত্যা-ক্যু-ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে মানুষের কল্যাণে কিছু করেনি।

এনামুল হক শামীম বলেন, দেশের সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে। নির্বাচনে কাউকে আনা না আনা সরকারের দায়িত্ব না। আইন অনুযায়ী নির্বাচন পরিচালনার সম্পূর্ণ দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের উপর ন্যস্ত। তবে আমরা প্রত্যাশা করি, গণতান্ত্রিক চেতনায় বিশ্বাসী সকল রাজনীতিক দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে এবং বিএনপি ষড়যন্ত্রের পথ পরিহার করে জনকল্যাণের রাজনীতিতে নিজেদের নিয়োজিত করবে।

অনুষ্ঠানে জপসা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছালাম হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক
আ. রাজ্জাক মাদবরের সঞ্চালনায় সম্মেলনে নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক মাল উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

#

গিয়াস/মেহেদী/জুলফিকার/রেজ্জাকুল/সাজ্জাদ/শামীম/২০২২/১৫৪০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ১৯৩৩

 

শিশুর সঠিক প্রারম্ভিক বিকাশ মেধাসম্পন্ন জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে

                                                      -মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী 

ঢাকা, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :  

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, সুষ্ঠু শারীরিক, বুদ্ধিবৃত্তিক, সামাজিক ও আবেগীয় বিকাশের জন্য শিশুদের জীবনের প্রথম আট বছর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই সময়ে শিশু শিক্ষা ও বিকাশের ভিত্তি রচিত হয়। শিশুর সঠিক প্রারম্ভিক বিকাশ মেধাসম্পন্ন জাতি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ।

প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তন থেকে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে বাংলাদেশ আরলি চাইল্ডহুড ডেভেলপমেন্ট নেটয়ার্ক (বেন) আয়োজিত জাতীয় ইসিডি সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, একটি মেধাসম্পন্ন জাতি গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার শিশুদের খাদ্য, পুষ্টি, স্বাস্থ্যসেবা, সুরক্ষা ও শিক্ষা নিশ্চিত করছে। গর্ভাবস্থা থেকেই মা ও শিশুর পুষ্টি নিশ্চিত করতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় মা ও শিশু সহায়তা কর্মসূচি চালু করেছে। সমাজভিত্তিক সমন্বিত শিশু যত্ন কেন্দ্রের মাধ্যমে পাচ লাখ ষাট হাজার শিশুর প্রারম্ভিক বিকাশ, সুরক্ষা ও সাতার সুবিধা প্রদান করা হবে। 

তিনি বলেন, জাতির পিতা সংবিধানে শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠা ও ১৯৭৪ সালে শিশু আইন প্রণয়ন করেন। দেশ স্বাধীনের পর পরই শিশুদের জন্য অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষার ব্যবস্থা করেন। শিশুমৃত্যু ও মাতৃমৃত্যুরোধ এবং প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ ও কার্যক্রম বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা আরো বলেন, মন্ত্রণালয় থেকে ৭ লাখ ৭০ হাজার দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকালীন ভাতা ও ২ লাখ ৭৫ হাজার কর্মজীবী মা’র জন্য ল্যাক্টেটিং মা ভাতা কর্মসূচি পরিচালিত হচ্ছে। সরকারের পনেরটি মন্ত্রণালয় শিশুকেন্দ্রিক বাজেট বাস্তবায়ন করছে।  প্রতিমন্ত্রী শিশুর উন্নয়নে সকলকে একসাথে কাজ করার আহবান জানান।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন ইসিডি নেটয়ার্কের সভাপতি ড. মঞ্জুর আহমেদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মু: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের কান্ট্রিরিপ্রেজেনটেটিভ শেলডন ইয়েট।

#

আলমগীর/মেহেদী/জুলফিকার/রেজ্জাকুল/সাজ্জাদ/শামীম/২০২২/১৫৪৭ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                 নম্বর : ১৯৩২

 

সরকার দেশের নৌপথ উদ্ধার ও উন্নয়নে কাজ করছে

                                                -নৌপ্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :  

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে নৌপথের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। মহাসড়কে পণ্যবাহী যানবাহনের চাপ কমাতে দেশের নৌপথের সক্ষমতা বৃদ্ধি নিয়ে কাজ করছে বর্তমান সরকার।

প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় হোটেল রেডিসনে চট্টগ্রাম-ঢাকা-আশুগঞ্জ অঞ্চলের নৌ-করিডোরের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নৌপথ খনন সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের উন্নয়নকে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে থমকে দেওয়া হয়েছিল। পঁচাত্তর পরবর্তী সরকার দেশের নৌপথসহ কোনো পথেই উন্নয়ন করে নাই। এরপর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে দেশের নৌপথ পুনরায় উদ্ধার ও উন্নয়নে হাত দেন। আজ যে দুটি চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছে তার কাজ সম্পন্ন হলে বাংলাদেশের নৌপথে পণ‍্যবাহী যান ও যাত্রীরা আরো সাচ্ছন্দ্যে নিজ গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন প্রকল্প পরিচালক বিআইডব্লিউটিএ’র অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আইউব আলী, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গালফ কবলা-কর্ণফুলী যৌথ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে কর্ণফুলী শিপ বিল্ডার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুর রশিদ, অপর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ধারতি-বঙ্গ যৌথ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে বঙ্গ ড্রেজার্স লিমিটেডের পরিচালক মো. আইনুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৯০০কিলোমিটার নৌপথ খনন, ৬টি স্থানে নৌযানসমূহের ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ, ৩টি ফেরি ক্রসিং এলাকায় সংরক্ষণ ড্রেজিং, ৪টি প্যাসেঞ্জার ও ২টি কার্গো টার্মিনাল নির্মাণ ও উন্নয়ন, ১৫টি ল্যান্ডিং স্টেশন নির্মাণ এবং ২টি মাল্টিপারপাস ভেসেল সংগ্রহ করা হবে।

#

জাহাঙ্গীর/মেহেদী/জুলফিকার/রেজ্জাকুল/সাজ্জাদ/শামীম/২০২২/১৫২২ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর : ১৯৩১

 

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ও অপশক্তি দমনে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই

                                                              -তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

ঢাকা, ৩১ বৈশাখ (১৪ মে) :  

দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ও অপশক্তি দমনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। 

বৌদ্ধদের সবচেয়ে বড় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে আজ রাজধানীর শাহবাগে বাংলাদেশ বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক পরিষদ আয়োজিত জাতীয় সম্মিলিত শান্তি শোভাযাত্রা ও সম্প্রীতি উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। 

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান শোভাযাত্রার উদ্বোধক ও আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উৎসবে বক্তৃতা করেন। মহামতি গৌতম বুদ্ধের জন্ম, বোধি ও মহাপ্রয়াণের স্মৃতিবিজড়িত বৌদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে সকলকে শুভেচ্ছা জানান অতিথিবৃন্দ। 

ড. হাছান এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অসাম্প্রদায়িকতার প্রতীক হিসেবে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, 'বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শুধু মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্র ও উন্নয়ন-অগ্রগতিরই প্রতীক নন, একইসাথে তিনি অসাম্প্রদায়িক চেতনারও মূর্তপ্রতীক। তিনি ক'দিন আগে বক্তৃতায় বলেছেন- সংস্কৃতিকে ধর্মের সাথে মেলানো উচিত নয়।' 

উদাহরণ দিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরবে মুসলিমরা উলুধ্বনি দেয়, সেটি তাদের সংস্কৃতির অংশ অথচ এ দেশে কোনো মুসলিম উলুধ্বনি দিলে একটি পক্ষ বলবে, এরা সবাই হিন্দু হয়ে গেছে। 

সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, পাকিস্তানে

2022-05-14-16-19-49e9fb0b8bc36b56434591fb1019eeb3.doc 2022-05-14-16-19-49e9fb0b8bc36b56434591fb1019eeb3.doc

Share with :

Facebook Facebook