তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২nd August ২০১৮

তথ্যবিবরণী ১ আগস্ট ২০১৮

তথ্যবিবরণী                                                                                  নম্বর : ২১৫৬
 
আগামীকাল সারাদেশে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) : 
 
আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) সারাদেশে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। ঢাকায় গত ২৯ জুলাই রোববার গাড়ি চাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় উদ্ভূত পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
 
#
 
আফরাজ/রবীন্দ্র/সাইফুল্লাহ/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২২৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                  নম্বর : ২১৫৫

 
সরকার নারীর ক্ষমতায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে
                                 -- বীর বাহাদুর উশৈসিং
 
বান্দরবান, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) : 
 
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং  বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য এলাকার মানুষের প্রতি আন্তরিক বলেই পার্বত্যবাসীর জীবনমানের দ্রুত উন্নতি হচ্ছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলের অস্বচ্ছল ও প্রান্তিক পরিবারের নারীদের ভাগ্য উন্নয়ন তথা তাদের ক্ষমতায়নে সরকার বিভিন্ন কমসূচি গ্রহণ করেছে।
 
আজ বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা, কুহালং, রেইছা ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে প্রত্যন্ত অঞ্চলের অস্বচ্ছল ও প্রান্তিক পরিবারের নারীদের মাঝে গাভী বিতরণকালে প্রতিমন্ত্রী এ সব কথা বলেন।
 
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান  তরুণ কান্তি ঘোষ, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আসলাম হোসেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের প্রকল্প পরিচালক মোঃ হারুন-অর রশীদ, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্য সা প্রু,  লক্ষীপদ দাশ,  ¤্রাসা খেয়াং ও তিং তিং ম্যা মারমা। 
 
অনুষ্ঠানে ৭০ জন অসহায় নারীদের মধ্যে গাভী বিতরণ করা হয়। ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে বান্দরবান, রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ১২ কোটি ৭৯ লাখ টাকা ব্যয়ে ১ হাজার তিনশ’ জন নারীকে  গাভী বিতরণ ও  গাভী লালন পালনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে।
 
#
 
জুলফিকার/সেলিম/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২১৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                  নম্বর : ২১৫৪

 
বঙ্গবন্ধু রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন এনেছিলেন 
                         -- সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) : 
 
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন এনেছিলেন। তিনি প্রমাণ করেছিলেন ধর্মের ভিত্তিতে দেশ হয় না। রাজনীতিতে অসাম্প্রদায়িকতাকে যুক্ত করেছিলেন। যে কারণে তিনি আওয়ামী মুসলিম লীগ নামটি পরিবর্তন করে আওয়ামী লীগ রেখেছিলেন। রাজনীতিতে তিনি দ্বিতীয় যে গুণগত পরিবর্তন এনেছিলেন সেটি হল রাজনীতিকে অভিজাত সম্প্রদায়ের নিকট হতে সাধারণ শিক্ষিত মানুষের নিকট নিয়ে আসা। তৃতীয়ত তিনি সাধারণ মানুষের অন্তরের কথা বুঝতে পেরেছিলেন। সেজন্য তিনি ছয় দফার মত সাধারণ মানুষের প্রাণের কর্মসূচি দিতে পেরেছিলেন যেটি পরবর্তীতে এক দফা, স্বাধীনতার দাবিতে পরিণত হয়েছিল। 
 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৮ উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর আয়োজিত অনুষ্ঠানমালা এবং বঙ্গবন্ধু স্মৃতি নিদর্শন, গ্রন্থসমূহ ও আলোকচিত্রের মাসব্যাপী প্রদর্শনীর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন।
 
প্রধান অতিথি বলেন, বঙ্গবন্ধু এক দিনে বঙ্গবন্ধু হয়ে ওঠেননি। তিনি আজীবন কঠিন ত্যাগ-তিতিক্ষা ও সংগ্রামের মধ্য দিয়ে এ পর্যায়ে এসেছিলেন। মন্ত্রী বলেন, আমরা যদি বঙ্গবন্ধুর বেড়ে ওঠাকে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করি, তবে দেখব, তিনি শুধু একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে না, বরং বেড়ে ওঠেছিলেন মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন একজন পূর্ণাঙ্গ মানুষ হিসেবে। মন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর চিন্তা-চেতনা, দর্শন ও আদর্শকে বুকে ধারণ করে সোনার মানুষ ও সোনার বাংলা গড়ার কাজে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। 
 
বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর বোর্ড অভ্ ট্রাস্টিজের সভাপতি শিল্পী হাশেম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ নাসির উদ্দিন আহমেদ। 
 
#
 
ফয়সল/সেলিম/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০০০ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                                        নম্বর : ২১৫৩
 
দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর দ্রুত বিচার ও অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে
                                                                             --আইনমন্ত্রী
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বাসচাপায় রাজধানীর শহীদ রমিজ উদ্দিন কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর দ্রুত বিচার ও অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। এসময় সব সড়ক দুর্ঘটনার বিচার দ্রুত হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 
আজ সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। এসময় তিনি নিহত দুই শিক্ষার্থীর আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।
আইনমন্ত্রী বলেন, কিছুদিন যাবৎ সড়ক দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে এবং অনেক রকমভাবে এই সড়ক দুর্ঘটনা হচ্ছে। তাই যে সব কারণে (রাস্তার কারণে, গাড়ির কারণে, মানুষের চলাচলের কারণে, চালকের কারণে ইত্যাদি) সড়ক দুর্ঘটনা হতে পারে, সেগুলোর ব্যাপারে আইনে পর্যাপ্ত বিধান রাখা হয়েছে কিনা কিংবা দুর্ঘটনা যাতে না ঘটে সে রকম পর্যাপ্ত বিধান আইনের মধ্যে আছে কিনা এবং আইনে কোনো ফাঁক-ফোঁকর আছে কিনা সেই সব পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে দেখে সড়ক পরিবহন আইনটি প্রস্তুত করা হয়েছে। তিনি মনে করেন, সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ হবে অত্যন্ত আধুনিক। তার কারণ এই আইনে অনেক বিষয় আছে যেগুলো আগের কোনো আইনে এড্রেস করা হয়নি। তিনি বলেন, বিদেশে চালকের ভুলের কারণে যেমন পয়েন্ট কাটা যায় নতুন সড়ক পরিবহন আইনেও তেননি বিধান রাখা হয়েছে। এজন্য ১২ পয়েন্ট রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, কোনো ড্রাইভার অপরাধ করলে তার পয়েন্ট কাটা যাবে। যদি কোনো ড্রাইভারের ১২ পয়েন্ট কাটা যায় তা হলে সে আর কোনো দিন ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবে না। কত পয়েন্ট কাটলে কি পরিমাণ শাস্তি হবে আইনে তা বলা আছে। তিনি বলেন, কেউ যাতে কম অপরাধে বেশি শাস্তি এবং বেশি অপরাধে কম শাস্তি না পায় সেগুলো সুনিশ্চিতভাবে আইনে সন্নিবেশ করা হয়েছে। ৩ পয়েন্ট কাটলে কী হবে- এরকম বিধানও করে দেওয়া হয়েছে। বিচারের তাৎক্ষণিকতা বা দ্রুত বিচারের ব্যবস্থা এই আইনের মধ্যে করা হয়েছে।
আনিসুল হক বলেন, আইনটা মন্ত্রিসভার চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য উপস্থাপিত হবে, প্রধানমন্ত্রী চান এটা দ্রুত উপস্থাপিত হোক। সেইক্ষেত্রে আইনটা যদি অনুমোদিত ও সংসদে পাস হয় তাহলে সব স্টেকহোল্ডার ন্যায়বিচার পাবেন। তিনি বলেন,‘এখন কেউ যদি মনে করেন যে মানুষ মেরে তারা কম শাস্তি নিয়ে চলে যেতে পারবেন, এটা তো হয় না। আবার এটাও ঠিক একজনের ভুলের জন্য সবাইকে দায়ী করাও ঠিক না। যে ভুল করেছে তার বিচার করা উচিত, কিন্তু সম্প্রদায়কে দায়ী করা ঠিক হবে না।’
বিচার প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, আমি আপনাদের কথা দিতে পারি, যে মুহূর্তে তদন্ত শেষে এই মামলা আদালতে গড়াবে আমি প্রসিকিউশনকে বলে এটার দ্রুত বিচারের ব্যবস্থা করবো। যারা অপরাধ করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হবে। আইনে এ-টু-জেড সব বিষয় যুক্ত আছে বলে জানান মন্ত্রী। আইন হলে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরবে।
#
রেজাউল/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯২০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ২১৫২
 
ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দিচ্ছে
                           --- মোস্তাফা জব্বার 
 
কালিয়াকৈর, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বাংলাদেশের প্রস্তুতকৃত আইওটি (ইন্টারনেট অব থিংকস) ভিত্তিক ডিভাইস এখন দেশের গ-ি পেরিয়ে সৌদি আরবের মক্কায় পানি সরবরাহ সমস্যা নিরসনে ব্যবহƒত হবে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশের জন্য এটি এক ঐতিহাসিক অর্জন। সারা দুনিয়া এখন ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে শরিক হওয়ার চেষ্টা করছে আর বিপ্লবের নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ।
মন্ত্রী কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে ডাটা সফট ম্যানুফ্যাকচারিং ও অ্যাসেম্বলিইন করপোরেশন প্রস্তুতকৃত একটি আইওটি ভিত্তিক ডিভাইস সৌদি আরবে রপ্তানি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন। মক্কাকেন্দ্রিক একটি প্রতিষ্ঠান ’স্যাকআলভাতানিয়া’ এই অত্যাধুনিক ডিভাইসটি আমদানি করছে।
মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, সরকার তথ্যপ্রযুক্তি সেবা কিংবা পণ্য রপ্তানির ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছে। তিনি বলেন, আইওটির যাত্রা শুরু করার জন্য তিনশ’ শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে যাতে তারা আইওটি ডিভাইস তৈরিতে দক্ষতার সাথে কাজ করতে পারে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার দেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক তৈরি করছে। তিনি বলেন, ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার রপ্তানিতে সরকার ক্যাশ প্রণোদনা প্রদানের কারণে বাংলাদেশি ইলেকট্রনিকস পণ্য আন্তর্জাতিক বাজার দখলে নিচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান স্যামসাংসহ বেশ কিছু নামকরা আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে কারখানা স্থাপন করছে। আমাদের দেশের সফটওয়্যার কোম্পানিসমূহ নেপাল ও ভুটানসহ বিভিন্ন দেশে কাজ করছে, বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশে সফটওয়্যার রপ্তানি হচ্ছে।
মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে প্রস্তুতকৃত আইওটি ডিভাইসগুলো প্রথমবারের মতো রপ্তানির জন্য সিইও, স্যাকআলভাতানিয়া মোহাম্মদ সালেম বিন মাহফুজের হাতে হস্তান্তর করেন। অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব জুয়েনা আজিজ, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, ঢাকা ওয়াসার এমডি ইঞ্জিনিয়ার তাকসিম খান, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, ডাটা সফট ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের পক্ষ থেকে মাহবুব জামান এবং চেয়ারম্যান হাসান রতন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।
#
 
শেফায়েত/সেলিম/পারভেজ/জয়নুল/২০১৮/১৯১৫ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ২১৫১
 
শিল্পমন্ত্রীর সাথে চীনা রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ
বাংলাদেশে জ্ঞানভিত্তিক শিল্পায়নের ধারা জোরদারে চীনের সহায়তা অব্যাহত থাকবে
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :
বাংলাদেশে জ্ঞানভিত্তিক শিল্পায়নের ধারা জোরদারে চীনের কারিগরি ও প্রযুক্তিগত সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন চীনা রাষ্ট্রদূত ঝাং জু (তযধহম তঁড়)। তিনি বলেন, বাংলাদেশের রাসায়নিক সার, স্টিল, কেমিকেল, আইসিটি, চিনি, কাগজসহ মানুফ্যাকচারিং শিল্প খাতে চীনের উদ্যোক্তারা বিনিয়োগে আগ্রহী। ইতোমধ্যে চীনের একটি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের স্টীল সেক্টরে তিন বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে। 
বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ঝাং জু আজ শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর সাথে বৈঠককালে এ কথা জানান। শিল্প মন্ত্রণালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ এনামুল হক, বিসিকের চেয়ারম্যান মুশতাক হাসান মুহঃ ইফতিখার, বিসিআইসির চেয়ারম্যান শাহ মোঃ আমিনুল হকসহ শিল্প মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা হয়। এ সময় বাংলাদেশের শিল্প খাতে চীনা বিনিয়োগ বৃদ্ধি, প্রযুক্তি স্থানান্তর, চীনের অত্যাধুনিক কারখানা বাংলাদেশে স্থানান্তরসহ অন্যান্য বিষয়ে আলোচনায় স্থান পায়।  
সাক্ষাতকালে শিল্পমন্ত্রী বলেন, ১৯৫২ ও ১৯৫৭ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চীন সফরের মাধ্যমে দু’দেশের মধ্যে অর্থবহ দ্বিপাক্ষিক উন্নয়ন সম্পর্কের সূচনা হয়। এর ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চীন সফর এবং চীনা রাষ্ট্রপতির শি জিংপিং এর বাংলাদেশ সফরের মাধ্যমে এ সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র ও দেশের বিভিন্ন জায়গায় সাতটি মৈত্রী সেতু নির্মাণ দু’দেশের মধ্যে বিরাজমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বলে তিনি উল্লেখ করেন। 
আমির হোসেন আমু বলেন, বাংলাদেশের শিল্প খাতের উন্নয়নে চীনা উদ্যোক্তারা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। এ বিবেচনায় সরকার চীনা বিনিয়োগকারীদের জন্য চট্টগ্রামে একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছে। এতে চীনের উদ্যোক্তারা পরিবেশবান্ধব ও উচ্চ প্রযুক্তির শিল্পস্থাপনে এগিয়ে আসতে পারে। তিনি চীনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বাস্তবায়িত শাহ্জালাল ফার্টিলাইজার প্রকল্পের খুচরা যন্ত্রাংশ সরবরাহ এবং সাভার চামড়া শিল্পনগরীর কেন্দ্রিয় বর্জ্য শোধনাগারের (সিইটিপি) নির্মাণ কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে চীনা রাষ্ট্রদূতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। 
#
জলিল/সেলিম/পারভেজ/জয়নুল/২০১৮/১৯১০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ২১৫০
 
বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সাথে জাপানি সংসদ সদস্য হিরোশি ইয়ামাদার সাক্ষাৎ 
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) : 
 
জাপানের সংসদ সদস্য হিরোশি ইয়ামাদা (ঐরৎড়ংযর ণধসধফধ) আজ সচিবালয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সাথে তাঁর দপ্তরে সাক্ষাৎ করেন। এসময় তারা পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।
 
হিরোশি ইয়ামাদা বলেন, জাপান বাংলাদেশের সাথে সুসম্পর্ক স্থাপনকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়। তারই অংশ হিসেবে ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকীতে জাপানের টোকিওতে ব্রোঞ্চ ভাস্কর্য স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মাতারবাড়ি’র পাওয়ার হাবের কার্যক্রম জাপান খুব গুরুত্বের সাথে পর্যবেক্ষণ করছে। তিনি এ সময় আশা প্রকাশ করে বলেন, এনার্জি বিনিময় ও উন্নয়নের মাধ্যমে দু’দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো জোরদার হবে।
 
প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাপান পাওয়ার সিস্টেম মাস্টার  প্ল্যান করে দিয়ে বিদ্যুৎ খাতকে সমৃদ্ধ করেছে। বাংলাদেশ জাপান থেকে সর্Ÿোচ্চ সহায়তা পাচ্ছে এবং প্রায় ৯০০ মিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য হচ্ছে। জাপানের সাথে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে আরো কাজ করার সুযোগ রয়েছে। দু’দেশের প্রতিনিধি একসাথে বসলে সহযোগিতার ক্ষেত্র আরো সমৃদ্ধ ও বিস্তৃত হবে। 
 
অন্যান্যের মধ্যে বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ সচিব আবু হেনা মোহাম্মদ রহমাতুল মুনিম, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ ও বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোয়াশু ইঝুমি (ঐরৎড়ুধংযড় ওুঁসর) এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
 
#
 
আসলাম/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮৪৫ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী             নম্বর : ২১৪৯ 
 
দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে আইনমন্ত্রীর শোক
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :
গত ২৯ জুলাই সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শহিদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। 
আজ এক শোকবার্তায় আইনমন্ত্রী নিহত দুই শিক্ষার্থীর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
আইনমন্ত্রী বলেন, শুধু এটুকু বলতে চাই ১৯৯১ সালে এ রকম একটি সড়ক দুর্ঘটনায় আমি আমার স্ত্রীকে হারিয়েছি। তাই একটা সড়ক দুর্ঘটনায় বা রেল দুর্ঘটনায় কেউ যদি নিহত হয় তার পরিবারের কি অবস্থা হয় সেই সম্বন্ধে আমার সম্যক অভিজ্ঞতা আছে। আমি অত্যন্ত ব্যথিত এবং এ রকম ঘটনা যাতে আর না ঘটে সেই সম্বন্ধে যা যা উদ্যোগ গ্রহণ করা দরকার সরকার সেটা করবে।
#
 
রেজাউল/মাহমুদ/পারভেজ/রেজাউল/২০১৮/১৮৪৮ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                  নম্বর : ২১৪৮

 
দায়ী চালককে সর্বোচ্চ সাজা দেয়া হবে
ফিটনেসবিহীন ও রুট পারমিটবিহীন গাড়ি এবং লাইসেন্সবিহীন
চালকের ক্ষেত্রে কঠোরভাবে আইন প্রয়োগ করা হবে
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) : 
গত ২৯ জুলাই ঢাকায় এয়ারপোর্ট সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় বাসের চালককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে দেশে প্রচলিত আইনের আওতায় বিচার করে সর্বোচ্চ সাজা দেয়া হবে। ফিটনেসবিহীন ও রুট পারমিটবিহীন গাড়ি যাতে চলাচল করতে না পারে এবং ড্রাইভিং লাইসেন্সবিহীন চালক যাতে গাড়ি চালাতে না পারে তার জন্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কঠোরভাবে আইন প্রয়োগ করবে।
আজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁনের সভাপতিত্বে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতি, বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান সমিতি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ  এবং  সংশ্লিষ্টদের সাথে এক বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ, পুলিশের মহাপরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারী, পুলিশ কমিশনার মোঃ আসাদুজ্জামান মিয়া, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান ফারুক তালুকদার সোহেল, বাংলাদেশ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুস্তম আলী খান এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোখলেছুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। 
সভায় সিদ্ধান্ত হয়, ভবিষ্যতে ঢাকা শহরে লিমিটেড কোম্পানির আওতায় যানবাহনের রেজিস্ট্রেশন হবে এবং রুট পারমিট ঐ কোম্পানির নামেই হতে হবে। কোম্পানি ফিটনেসবিহীন গাড়ি যাতে চালাতে না পারে সে জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কঠোর ব্যবস্থা নেবে। প্রদত্ত রুট পারমিটে সুনির্দিষ্টভাবে উল্লিখিত রুট পারমিট অনুযায়ী সকল গাড়ি চলাচল করবে। কোম্পানির গাড়িগুলো যাতে অসম ও অবৈধভাবে প্রতিযোগিতামূলক চলাচল করতে না পারে তা বন্ধের জন্য কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দেশব্যাপী বাস ও ট্রাক টার্মিনাল এবং বিভিন্ন যানবাহনের স্টার্টিং পয়েন্টে প্রতিটি গাড়ির ফিটনেস ও রুট পারমিট এবং চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স চেক করা হবে। মালিক, শ্রমিক ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার প্রতিনিধিরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাগজপত্র চেক করবে। যারা এর ব্যত্যয় ঘটাবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। চালক ও অন্যান্য শ্রমিকদের দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে সচেতন করা, মানবিক ও সামাজিক মূল্যবোধ সৃষ্টির জন্য দেশের সকল বাস ও ট্রাক টার্মিনালে নিয়মিত স্বল্পকালীন প্রশিক্ষণ কোর্স চালু করা হবে। এজন্য মালিক ও শ্রমিক এবং ট্রাফিক পুলিশ যৌথভাবে কাজ করবে। 
সভায় আরো সিদ্ধান্ত হয়, দুর্ঘটনা বন্ধের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুসৃত ৫টি দিকনির্দেশনার ভিত্তিতে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুসরণে অবিলম্বে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দেশব্যাপী সড়ক ও মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধ করার জন্য আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে, এ ব্যাপারে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে সকল পর্যায়ের মালিক-শ্রমিক সার্বিক সহায়তা প্রদান করবে। 
সিদ্ধান্তগুলো অবিলম্বে কঠোরভাবে কার্যকর করা হবে বলে সভায় জানানো হয়। 
#
জাহাঙ্গীর/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮০০ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ২১৪৭
 
ক্ষতিপূরণ পেল সৌদি আরবে মৃত প্রবাসীর পরিবার
 
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :
এক কোটি দশ লাখ দশ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পেল সৌদি আরবে মৃত প্রবাসী বাংলাদেশি ডা. হুমায়ন কবিরের পরিবার। আজ ঢাকায় ইস্কাটনস্থ প্রবাসী কল্যাণ ভবনে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান সচিব ড. নমিতা হালদার ক্ষতিপূরণের এই অর্থের চেক তাঁর স্ত্রী শাহনাজ বেগমের হাতে হস্তান্তর করেন। 
এ সময় ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস, বিএমইটির মহাপরিচালক মোঃ সেলিম রেজা, বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মরণ কুমার চক্রবর্তীসহ বোর্ডের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 
মরহুম ডা. হুমায়ন কবির সৌদি আরবের একটি হাসপাতালে দীর্ঘ ১৪ বছর চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি গত ১৩ জানুয়ারি ২০১৪ সালে হাসপাতালে কর্মরত থাকা অবস্থায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেন। সৌদি আরবস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কল্যাণ শাখার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের নিয়মিত তদারকিতে ক্ষতিপূরণের এই অর্থ আদায় করা সম্ভব হয়েছে। দূতাবাসের মাধ্যমে ক্ষতিপূরণের অর্থ প্রাপ্তির সাত দিনের মধ্যে পরিবারের নিকট উক্ত অর্থ হস্তান্তর করা হয়েছে। 
#
 
জাহাঙ্গীর/সেলিম/পারভেজ/জয়নুল/২০১৮/১৮২০ঘণ্টা

Handout                                                                                                                    Number : 2146

Loan Agreement Signed between Government of Bangladesh and IFAD

Dhaka, August 01 :

A loan agreement of US dollar 66.50 million was signed between the Government of Bangladesh and the International Fund for Agricultural Development (IFAD) today at IFAD  headquarters, Rome, Italy.

On behalf of the Bangladesh Government, Additional Secretary and Chief, Coordination and Nordic Wing of Economic Relations Division (ERD) Sultana Afroz and IFAD president Dr. Gilbert Fossun Hungbo signed the agreement. Abdus Sobhan Sikder, Ambassador of Bangladesh to Italy and other high officials of the Government of Bangladesh in Italy and other high officials of the Government of Bangladesh and other IFAD were present on the occasion.

Through this support of IFAD, the ‘Smallholders Agricultural Competitiveness Project will be implemented under the Ministry of Agriculture for the welfare of the small farmers in Bangladesh.

#

Bidhan/Mahmud/Rafiqul/Salimuzzaman/2018/17.45 Hrs

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২১৪৫

বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিলের মধ্যে ঋণচুক্তি স¦াক্ষর

ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ও আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল (ইফাদ)-এর মধ্যে আজ ইতালির রোমে ইফাদ সদর দপ্তরে ৬৬ দশমিক ৫০ মিলিয়ন ডলারের একটি ঋণচুক্তি স¦াক্ষরিত হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সমন্বয় ও নরডিক অনুবিভাগের প্রধান ও অতিরিক্ত সচিব সুলতানা আফরোজ এবং ইফাদ প্রেসিডেন্ট ড. গিলবার্ট ফসুন হুংবো (উৎ. এরষনবৎঃ ঋড়ংংঁহ ঐঁহমনড়) চুক্তিতে স¦াক্ষর করেন। চুক্তি স¦াক্ষর অনুষ্ঠানে ইতালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান সিকদারসহ বাংলদেশ সরকার ও ইফাদের অন্যান্য জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ইফাদের উক্ত ঋণ সহায়তার মাধ্যমে কৃষি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ক্ষুদ্র কৃষকের কল্যাণে ‘স্মলহোল্ডার এগ্রিকালচারাল কম্পিটিটিভনেস প্রকল্প’ কর্মকা- বাস্তবায়িত হবে।

#

বিধান/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৭৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর : ২১৪৪

 
বাসচাপায় নিহত শিক্ষার্থীদের পরিবারের সদস্য ও স্বজনদের প্রতি শিক্ষামন্ত্রীর গভীর শোক
 শিক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধৈর্য্য ধারণ ও শান্ত থাকার আহ্বান
 
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) :
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ মর্মান্তিক বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর নিহত ও কয়েকজন শিক্ষার্থীর আহত হওয়ার ঘটনায় গভীর শোক ও মর্মবেদনা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, এ ধরণের অনাকাক্সিক্ষত দুর্ঘটনায় সহপাঠীর মৃত্যুতে কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ শিক্ষা পরিবারের সকলে শোকার্ত। 
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সভাপতিত্বে আজ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও সংশ্লিষ্টদের সাথে এক তাৎক্ষণিক সভায় তিনি শিক্ষা পরিবারের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করেন। সভায় শিক্ষাসচিব মোঃ সোহরাব হোসাইন, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবগণ এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ মাহবুবুর রহমানসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, দুর্ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা এবং সড়ক পরিবহনকে সুশৃঙ্খল ও নিরাপদ করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেছেন। সে অনুযায়ী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে এবং দোষীদের গ্রেফতার করেছে। সংশ্লিষ্ট দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তির বিষয়ে আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণ অব্যাহত আছে।
সভায় মন্ত্রী শোকার্ত কোমলমতি শিক্ষার্থীদেরকে শোক সংবরণ করে শান্ত থাকা ও ধৈর্য্য ধারণ করার জন্য আহ্বান জানান। তিনি সংশ্লিষ্ট সকল শিক্ষক ও অভিভাবকদের শিক্ষার্থীদের পাশে থেকে শিক্ষা কার্যক্রমে সহযোগিতা করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানান।
#
 
আফরাজুর/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৭৫০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২১৪৩
দুর্যোগে জনপ্রতিনিধিদেরকে জনগণের পাশে থাকতে হবে
                                          -এলজিআরডি মন্ত্রী
ঢাকা, ১৭ শ্রাবণ (১ আগস্ট) : 
 
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ এলাকা। প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে উন্নয়ন কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়। যেকোন প্রাকৃ
Todays handout (11).docx Todays handout (11).docx

Share with :

Facebook Facebook